এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > উত্তরবঙ্গ > ফালাকাটা জয়ে বড়সড় অস্ত্র নিয়ে মাঠে নামছে তৃণমূল, পাল্টা চাল দিয়ে আসরে বিজেপিও!

ফালাকাটা জয়ে বড়সড় অস্ত্র নিয়ে মাঠে নামছে তৃণমূল, পাল্টা চাল দিয়ে আসরে বিজেপিও!



 

বিগত 2019 সালের লোকসভা নির্বাচনে উত্তরবঙ্গ জুড়ে পদ্মফুল শিবিরের জয়জয়কার লক্ষ্য করেছে সকলেই। তবে লোকসভা নির্বাচনের কয়েক মাস পেরোতে না পেরোতেই, কেন্দ্রীয় সরকারের একটি সিদ্ধান্তে এখন বিজেপির প্রতি বিক্ষুব্ধ হতে শুরু করেছেন অনেকেই। সম্প্রতি দেশজুড়ে কেন্দ্রীয় সরকারের পক্ষ থেকে নাগরিকত্ব বিল পাস করার পর, সেই বিল আইনে পরিণত হয়ে গিয়েছে। আর তার ফলেই সেই আইন বাতিল করার দাবিতে রাস্তায় নেমেছেন অনেকে।

ইতিমধ্যেই এই আইনের বিরুদ্ধে সরব হয়ে বিজেপি বিরোধিতায় আরও বেশি করে সরব হয়েছে রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস। যা নিঃসন্দেহে ভারতীয় জনতা পার্টিকে কিছুটা হলেও বিপাকে ফেলে দিয়েছে। বর্তমানে প্রায় প্রতিটা নির্বাচনেই তৃণমূল কংগ্রেস এনআরসি বিরোধী প্রচার করে বিজেপিকে পরাজিত করতে উদ্যোগী হয়েছে। আর এবার ফালাকাটা বিধানসভা কেন্দ্রের উপনির্বাচনের সেই একই পন্থা নিতে চাইছে রাজ্যের শাসক দল।


দেশে যে কোনো দিন ব্যান হয়ে যেতে পারে হোয়াটস্যাপ। তাই এখন থেকে আমরা শুধুমাত্র টেলিগ্রাম ও সিগন্যাল অ্যাপে। প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার নিউজ নিয়মিতভাবে পেতে যোগ দিন –

টেলিগ্রাম গ্রূপটাচ করুন এখানে

সিগন্যাল গ্রূপটাচ করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

সূত্রের খবর, এনআরসির খারাপ দিকগুলো তুলে ধরবার জন্য বিজেপি কর্মী সমর্থকদের বাড়ি গিয়ে তাদের বোঝাতে তৃণমূল নেতাকর্মীদের পরামর্শ দিলেন তৃণমূলের শীর্ষ নেতৃত্ব। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, ফালাকাটার তৃণমূল বিধায়ক অনিল অধিকারীর মৃত্যুর কারণে এবার সেই আসনে বিধানসভা উপনির্বাচন হবে। আগামী 2021 এর বিধানসভা নির্বাচনের আগে এই কেন্দ্রে যদি উপনির্বাচন হয়, তাহলে সেখানে জয়লাভ করা যে তৃণমূলের কাছে কতটা দরকার, তা জানেন প্রত্যেকেই। তাই সেদিক থেকে বিজেপি এই আসন যাতে দখল করতে না পারে, তার জন্য এনআরসির বিরুদ্ধে সরব হয়ে সাধারণ মানুষের পাশাপাশি বিজেপির নেতা কর্মীদের বাড়িতে গিয়ে, তাদের বুঝিয়ে, তাদের ভোট নিজেদের দিকে আনতে চাইছে তৃণমূল কংগ্রেস।

রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা বলছেন, লোকসভায় বিজেপির ভোট এমনি এমনি বৃদ্ধি পায়নি। তার মূল কারণ বাম এবং অন্যান্য রাজনৈতিক দলগুলো থেকে বেশির ভাগ ভোট বিজেপির দিকে চলে যাওয়া। তাই সেই সমস্ত ভোট যাতে নিজেদের দিকে আনা যায় এবং ফালাকাটায় যাতে জয়লাভ করা যায়, তার জন্য এনআরসি বিরোধী প্রচার করে সেই সমস্ত কর্মীদের ভাবাবেগ নিজেদের দিকে আনতে চাইছে পদ্ম শিবির।

এদিন এই প্রসঙ্গে তৃণমূল নেতা বলেন, “নতুন আইন এবং এনআরসির প্রতিবাদ জানিয়ে অনেকেই বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দিতে শুরু করেছেন। এছাড়াও গেরুয়া শিবিরের আরও অনেক নেতাকর্মী আমাদের দলে যোগ দিতে মুখিয়ে রয়েছেন।” তবে তৃণমূলের এই দাবি মানতে নারাজ ভারতীয় জনতা পার্টি। তাদের দাবি, লোকসভায় যেভাবে মানুষ তাদের প্রতি আস্থা রেখেছে, বিধানসভা উপনির্বাচনে ফালাকাটায় সেভাবেই মানুষ তাদের আশীর্বাদ করবে। তবে যে রাজনৈতিক দল যে কথাই বলুন না কেন, এখন ফালাকাটা বিধানসভা উপনির্বাচনে এনআরসি ফ্যাক্টর কতটা কাজ করে! আর ভোটবাক্সে তার কি প্রভাব পড়ে! সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!