এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > বর্ধমান > বিজেপির শিক্ষক নেতাকে বাঁশ-রড দিয়ে নির্মম প্রহারের বিস্ফোরক অভিযোগ তৃণমূলের বিরুদ্ধে

বিজেপির শিক্ষক নেতাকে বাঁশ-রড দিয়ে নির্মম প্রহারের বিস্ফোরক অভিযোগ তৃণমূলের বিরুদ্ধে



গোটা বাংলা কার্যত করোনা ও আমপানের জোড়া ফলায় অতিষ্ঠ হয়ে আছে। আর তার মাঝেই চলছে তীব্র রাজনৈতিক বাদানুবাদ! আর এবার তা ছাপিয়ে গেল বোধহয় সবকিছুকে। বিজেপির শিক্ষক নেতাকে বাঁশ-রড দিয়ে নির্মম প্রহারের বিস্ফোরক অভিযোগ উঠল রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে। আসানসোল জেলা বিজেপি টিচার্স সেলের জেলা কনভেনার বিকাশ বিশ্বাসের উপর তৃণমূল কংগ্রেসের ‘দুষ্কৃতীদের’ ‘বর্বরোচিত’ আক্রমণের বিস্ফোরক অভিযোগ নিয়ে এল গেরুয়া শিবির।

গেরুয়া শিবিরের তরফে জানা গেছে, গত ২৬ শে মে পাণ্ডবেশ্বর বিধানসভার অন্তর্গত পানশিউলি গ্রামের বাসিন্দা, তথা সক্রিয় বিজেপি কর্মী সরোজ বাউড়ির উপর একদল দুষ্কৃতকারী আক্রমন চালায়। এরা সকলেই তৃণমূল কর্মী বলেই গেরুয়া শিবিরের অভিযোগ। আর এরই প্রতিবাদে আজ আসানসোলের বিজেপি জেলা সভাপতি লক্ষণ ঘোড়ুইয়ের নেতৃত্বে ফরিদপুর থানায় শান্তিপূর্ণ অবস্থান বিক্ষোভ কর্মসূচি নেয় গেরুয়া শিবির। সেখানে উপস্থিত ছিলেন আসানসোল জেলা বিজেপি টিচার্স সেলের জেলা কনভেনার বিকাশ বিশ্বাস সহ অন্যান্য বিজেপি কার্যকর্তা ও কর্মীরা।

বিজেপির অভিযোগ, থানায় প্রচুর সংখ্যক পুলিশের উপস্থিতিতে তৃণমূল কংগ্রেসের নেতা সুজিত মুখোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে বাঁশ, লাঠি, রড নিয়ে একদল তৃণমূল দুষ্কৃতী বিজেপি কর্মীদের উপর আক্রমণ করে। বিজেপি কার্যকর্তাদের চারটি গাড়ি ভাঙচুর করা হয়। বিজেপি জেলা সভাপতি লক্ষণ ঘোড়ুই সহ অন্যান্য বিজেপির কার্যকর্তা ও কর্মীরা সকলেই কমবেশি আহত হন। সবথেকে বেশি আক্রান্ত হন বিজেপি টিচার্স সেলের জেলা কনভেনার তথা অযোধ্যা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বিকাশ বিশ্বাস।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

বিজেপি শিবিরের তরফে স্পষ্ট জানানো হয়েছে, বাঁশ ও রডের আঘাতে বিকাশবাবুর মাথা ফেটে যায়। ঘটনা স্থলেই তিনি জ্ঞান হারান এবং তাঁর নাক ও কান দিয়ে রক্ত বেরুতে থাকে। বিজেপির আরও অভিযোগ, সশস্ত্র পুলিশ বাহিনীর সামনেই বিনা বাধায় তৃণমূলী দুষ্কৃতকারীরা আক্রমণ করে পালিয়ে যায়। এরপর বিকাশ বিশ্বাসকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় দুর্গাপুর মহকুমা হাসপাতালের আইসিইউতে ভর্তি করা হয়। বিজেপি টিচার্স সেলের রাজ্য কনভেনার দিপল বিশ্বাস ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন।

এদিন দীপলবাবু জানান, তৃণমূল কংগ্রেস বুঝতে পেরে গিয়েছে একুশের বিধানসভা নির্বাচনে ওদের পরাজয় নিশ্চিত। তাই বিজেপিকে আটকানোর জন্য মরিয়া হয়ে তারা বিজেপি কার্যকর্তা ও কর্মীদের উপর আক্রমণ চালাচ্ছে। সবথেকে অবাক হয়ে যাচ্ছি এই ঘটনা দেখে থানার মধ্যে প্রচুর সংখ্যক সশস্ত্র পুলিশ কর্মী থাকা সত্ত্বেও তৃণমূলী দুষ্কৃতকারীরা বিনা বাধায় নির্বিচারে বিজেপি কার্যকর্তা ও কর্মীদের উপর আক্রমণ করলো। এই ঘটনায় প্রমাণিত হয় রাজ্যের পুলিশ প্রশাসন তৃণমূল কংগ্রেসের নেতাদের দ্বারা পরিচালিত হয়।

দীপলবাবু আরও জানান, আমরা বিজেপি টিচার্স সেলের পক্ষ থেকে তৃণমূলী দুষ্কৃতকারীদের অবিলম্বে গ্রেফতারের দাবি জানাচ্ছি এবং সেই সাথে যে সমস্ত পুলিশ কর্মচারীরা এই ঘটনার সাথে জড়িত তাদের শাস্তির দাবি জানাচ্ছি। দুষ্কৃতকারীদের অবিলম্বে গ্রেফতার করে চরমতম শাস্তি না দেওয়া হলে আমরা বিজেপি টিচার্স সেলের পক্ষ থেকে গোটা রাজ্য জুড়ে প্রতিবাদ ও বিক্ষোভ আন্দোলন করবো। স্বাভাবিকভাবেই, এই ঘটনার পর শিল্পাঞ্চলের রাজনৈতিক মহল উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!