এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > উত্তরবঙ্গ > বিজেপিতে যোগ দেওয়ার দুদিনের মাথায় ফের তৃণমূলে হেভিওয়েট মন্ত্রী? বাড়ছে জল্পনা!

বিজেপিতে যোগ দেওয়ার দুদিনের মাথায় ফের তৃণমূলে হেভিওয়েট মন্ত্রী? বাড়ছে জল্পনা!



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – সম্প্রতি তৃণমূল কংগ্রেস ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন তপনের বিধায়ক তথা রাজ্যের মন্ত্রী বাচ্চু হাঁসদা। কিন্তু বিজেপিতে যোগ দেওয়ার সাথে সাথেই কি এবার মোহভঙ্গ হয়ে গেল তার? বিশেষ সূত্র মারফত খবর, আজ দুপুর 12 টায় বিজেপি ছেড়ে আবার তৃণমূল কংগ্রেসের ফিরে আসতে চলেছেন বাচ্চুবাবু। স্বাভাবিক ভাবেই এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে এবার রীতিমতো টালমাটাল রাজ্য রাজনীতি।

প্রসঙ্গত, এবার তপন বিধানসভা কেন্দ্রে তৃণমূল কংগ্রেসের টিকিট পাননি বাচ্চু হাঁসদা। আর তারপরেই তিনি যোগ দেন ভারতীয় জনতা পার্টিতে। স্বাভাবিক ভাবেই টিকিট না পাওয়ার পরেই কার্যত বিদ্রোহী হয়ে ওঠেন বাচ্চুবাবু। তবে বিজেপিতে যোগ দিয়ে তিনি টিকিট পেতে পারেন বলে জল্পনা তৈরি হয়।

কিন্তু গেরুয়া শিবিরে নাম লেখানোর কিছুদিনের মধ্যেই এবার ঘরওয়াপসি করতে চলেছেন রাজ্যের উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন দপ্তরের প্রতিমন্ত্রী। জানা গেছে, বাচ্চু হাঁসদা জেলা নেতৃত্বের থেকে তেমন কোনো সম্মান পাননি। আর তাই বিজেপি ছেড়ে এবার আবার তিনি তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দিতে চলেছেন।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, তপনে তৃণমূল কংগ্রেসের টিকিট না পাওয়ার কারণে বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন বাচ্চু হাঁসদা। কিন্তু বিজেপিতে গিয়েও হয়ত বা তাকে টিকিট দেওয়ার ব্যাপারে কোনো নিশ্চয়তা দেওয়া হয়নি। আর সেই কারণেই এবার গেরুয়া শিবির ছেড়ে আবার নিজের প্রাক্তন দল তৃণমূল কংগ্রেসেই ফিরে আসতে চলেছেন তিনি।

তবে রাজ্যের এই হেভিওয়েট মন্ত্রী যদি ভোটের মুখে বিজেপি ছেড়ে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগদান তাহলে গেরুয়া শিবির যে অনেকটাই বেকায়দায় পড়ে যাবে, তা বলার অপেক্ষা রাখে না। যদিও বা বাচ্চু হাঁসদা বিজেপি ছেড়ে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দিলেও জেলা বিজেপিতে কোনো প্রভাব পড়বে না বলে জানিয়ে দিয়েছেন দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার বিজেপি নেতা বাপি সরকার।

তবে বারবার দলবদল করা এই সমস্ত নেতা এবং মন্ত্রীরা মানুষের কাছে কতটা বিশ্বাসযোগ্য হচ্ছেন, এখন সেটাই বড় প্রশ্ন হয়ে দাঁড়িয়েছে রাজ্য রাজনীতিতে। সব মিলিয়ে গোটা পরিস্থিতি কোথায় গিয়ে দাঁড়ায়, সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!