এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > তবে কি মমতাকে মাত দিয়ে বিজেপি বিরোধী ‘বৃহত্তর মহাজোট’ গঠনের দিকে এগিয়ে গেলেন সোনিয়া গান্ধী

তবে কি মমতাকে মাত দিয়ে বিজেপি বিরোধী ‘বৃহত্তর মহাজোট’ গঠনের দিকে এগিয়ে গেলেন সোনিয়া গান্ধী



ইউপিএ চেয়ার পার্সন সোনিয়া গাঁধী নৈশভোজের আমন্ত্রণ জানালেন বিভিন্ন বিরোধী দলের নেতাদের। জানা গেছে তাঁর জনপথের বাড়িতে এই নৈশভোজের আয়োজন করেছেন তিনি। ২০১৯ এর লোকসভা নির্বাচনের আগে বিজেপি বিরোধীদের একজোট হওয়ার বার্তা দেওয়ার জন্যই সম্ভবত এই নৈশভোজের আয়োজন করা হয়েছে বলে সূত্রের খবর।শোনা গিয়েছিলো যে সবাই আসছেন না,আর তাই মমতার দিকেই পাল্লা ভারী ছিল কিন্তু এদিন জানা গেছে নৈশ ভোজে যোগ দিতে আসার তালিকাটা বেশ বড়ই হয়েছে।নৈশভোজে যোগ দিতে আসছেন ঝাড়খণ্ডের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ও ঝাড়খন্ড বিকাশ মোর্চার বাবুলাল মান্ডারি এবং হেমন্ত সোরেন, বিহারের মুখ্যমন্ত্রী ও হিন্দুস্তানী আওয়াম মোর্চার প্রধান যতীন রাম মাঝি। তবে তাঁর নৈশভোজে যোগ দেওয়ার বিষয়টিতে অনিশ্চয়তা আছে বলে জানা গেছে। উপস্থিত থাকছেন, তৃণমূল কংগ্রেস নেতা সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়, ডিএমকে- এর নেতা কানিমোঝি, সমাজবাদী পার্টির নেতা রাম গোপাল যাদব সূত্রানুযায়ী এমনটাই জানা গেছে। কংগ্রেস সূত্রের খবর, এছাড়াও আমন্তনের তালিকায় রয়েছেন বামফ্রন্টের সীতারাম ইয়েচুরি ও ডি রাজা, জেডি-এস, কেরল কংগ্রেস, ইন্ডিয়ান ইউনিয়ন মুসলিম লিগ, রেভলিউশনারি সোশালিস্ট পার্টি, আরএলডি এবং বিএসপি দল। তবে সামনের কর্ণাটক নির্বাচনে জেডি-এস এর সাথে জোট বাঁধার সম্ভাবনা থাকার কারণে মায়াবতী তাঁর দল বিএসপির কোনো সদস্যকে এই নৈশভোজে পাঠাবেন কিনা এবিষয়ে যথেষ্ট সন্দেহ আছে বলে জানা গেছে। মূলত সামনের লোকসভাকে লক্ষ্য করে দলকে শক্ত করার উদ্দেশ্যে প্রথম পদক্ষেপ হিসাবে এই নৈশভোজকেই হাতিয়ার করেছেন সোনিয়া গাঁধী, এমনটাই মনে করছে রাজনৈতিক মহল। তবে আমন্ত্রনের তালিকা থেকে বাদ পড়লেন অন্ধ্রের তেলেগু দেশম পার্টির নেতা, এনডিএ, বিজেডি এবং টিআরএস- এর নেতারা, এমনটাই কংগ্রেস সূত্রের খবর।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!