এখন পড়ছেন
হোম > রাজনীতি > বিজেপি > বিজেপি সমর্থকের খুনের ঘটনায় তীব্র উত্তেজনা এলাকায়, পুলিশি প্রহরা অব্যাহত

বিজেপি সমর্থকের খুনের ঘটনায় তীব্র উত্তেজনা এলাকায়, পুলিশি প্রহরা অব্যাহত



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – একুশের বিধানসভা নির্বাচন যত কাছে আসছে ততই রাজনৈতিক অশান্তি এবং সংঘাত বেড়ে চলেছে রাজ্যজুড়ে। রাজনৈতিক হিংসা এবং সংঘাত বন্ধ করার জন্য নির্বাচন কমিশন একাধিকবার নির্দেশ দিয়েছে ইতিমধ্যে, কিন্তু নির্বাচন কমিশনের নির্দেশে উড়িয়ে দিয়ে রাজ্য জুড়ে ক্রমাগত বেড়ে চলেছে হিংসাত্মক ঘটনা। এদিন এরকমই একটি হিংসাত্মক ঘটনার খোঁজ পাওয়া গেল বীরভূমের ইলামবাজার এলাকায়। জানা গিয়েছে, ইলামবাজারের এক বিজেপি সমর্থককে পিটিয়ে খুন করা হয়েছে। ইতিমধ্যেই অভিযুক্তদের শাস্তির দাবিতে সরব হয়েছেন মৃতের পরিবার এবং স্থানীয় বিজেপি কর্মী সমর্থকরা।

সূত্রের খবর, ইলামবাজারের হিঙ্গলপুরের বাসিন্দা নিহত যুবকের নাম শ্রীকান্ত বাগদী। রবিবার রাতে বেশ কয়েকজন বিজেপি সমর্থকদের সঙ্গে তিনি স্থানীয় একটি গ্রামে গিয়েছিলেন। কিন্তু সবাই ফিরে আসলেও শ্রীকান্ত বাড়ি ফেরেন না। এরপর সোমবার সকালে গ্রামের কবরস্থানের পাশে মৃত অবস্থায় তাঁকে পড়ে থাকতে দেখেন স্থানীয়রাই। শ্রীকান্তের মৃতদেহের পাশে পাওয়া যায় একটি বাঁশ। তারপর থেকেই বলা হয়, পিটিয়ে খুন করে ফেলে রাখা হয়েছে ওই বাঁশটিকে।

ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

যথারীতি এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে রীতিমতো উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে ইলামবাজার এলাকা। ঘটনার খবর মিলতেই এলাকা জুড়ে বিশাল পুলিশবাহিনী উপস্থিত হয়। অন্যদিকে এই খুনের ঘটনাকে কেন্দ্র করে পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। পরে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আসে পুলিশ। ইতিমধ্যেই মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে বলে জানা গেছে। অন্যদিকে গেরুয়া শিবিরের দাবি, পরিকল্পনামাফিক শ্রীকান্তকে খুন করা হয়েছে। এবং এই ঘটনার পেছনে তৃণমূলের জড়িত থাকার সম্ভাবনা কোনভাবেই উড়িয়ে দিচ্ছে না গেরুয়া শিবির।

পুলিশি সূত্রে জানা গেছে, ইতিমধ্যেই দু’জনকে আটক করা হয়েছে। আপাতত এই খুনের পেছনের আসল কারণের সন্ধানে পুলিশি তদন্ত শুরু করেছে। যথারীতি নির্বাচনের আগে এই খুনের ঘটনা বীরভূমের রাজনৈতিক পরিস্থিতিকেও যথেষ্ট প্রভাবিত করেছে। এলাকার মানুষ তীব্র আতঙ্কে ভুগছে। নতুন করে যাতে কোনো অশান্তি না বাঁধে, তার জন্য এলাকায় পুলিশি প্রহরা রয়েছে বলে জানা যাচ্ছে। আপাতত এই খুনের পেছনে রাজনৈতিক কারণ না অন্য কিছু রয়েছে তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

 

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!