এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > পঞ্চায়েতে তৃণমূল ঝড়ের মাঝেও কোথায় কোথায় গেরুয়া উত্থানের স্পষ্ট ইঙ্গিত?

পঞ্চায়েতে তৃণমূল ঝড়ের মাঝেও কোথায় কোথায় গেরুয়া উত্থানের স্পষ্ট ইঙ্গিত?



সকাল থেকে ব্যালট বাক্স খুলতেই চারিদিকে শুধু সবুজ। শাসকদলের দাবি – উন্নয়নের জন্যই জয়, অন্যদিকে বিরোধীদের দাবি পঞ্চায়েত জুড়ে শাসকদলের লাগামহীন সন্ত্রাসের প্রতিফলন এই জয়। কিন্তু এর মাঝেও কয়েকটি ব্যাপার স্পষ্ট হয়ে গেল এই পঞ্চায়েত নির্বাচনে। প্রথমত, রাজ্যে কংগ্রেস একেবারে প্রান্তিক শক্তি। দ্বিতীয়ত, বামফ্রন্ট না বিজেপি – কে এই রাজ্যে এখন প্রধান বিরোধী সেই প্রশ্নে বামেদের বহু পিছনে ফেলে গ্রাম বাংলার মানুষের সুস্পষ্ট রায় গেরুয়া শিবিরের দিকে। তৃতীয়ত, রাজ্যের সব জায়গাতেই গেরুয়া ভোট বৃদ্ধির স্পষ্ট ইঙ্গিত, সঙ্গে কিছু কিছু জেলাতে একেবারে চমক জাগানো ফলাফল।

জেলা পরিষদের আসনের হিসাবে বিজেপি খাতা খুলছে একেবারে ৯ টি জেলায়। এগুলি হল – আলিপুরদুয়ার, জলপাইগুড়ি, উত্তর দিনাজপুর, দক্ষিণ দিনাজপুর, মালদা, নদীয়া, ঝাড়গ্রাম এবং পুরুলিয়া। অর্থাৎ উত্তরবঙ্গে যা এতদিন কংগ্রেস বা বামফ্রন্টের শক্তঘাঁটি হিসাবে পরিচিত ছিল, তা আসতে আসতে বিজেপির দিকে ঢোলে পড়ছে। নদীয়া জেলা সবসময়ই বিজেপির ভালো ফল করার জায়গা, সেখানেও আরো ভালো ফল করার ইঙ্গিত। সবথেকে গুরুত্ত্বপূর্ন জঙ্গলমহল এলাকায়, বিজেপির তীব্র উত্থান লক্ষ্য করা যাচ্ছে।

পঞ্চায়েত সমিতিতেও যথেষ্ট ভালো ফলের ইঙ্গিত দিচ্ছে বিজেপি। সবথেকে গুরুত্ত্বপূর্ন কথা হল – মালদার মত সংখ্যালঘু অধ্যুষিত জেলায় ৪০ টি আসনে বিজেপি জয়ের দিকে এগোচ্ছে। প্রসঙ্গত, গত মার্চ মাসে করা প্রিয়বন্ধু মিডিয়ার করা সমীক্ষায় উঠে এসেছিল মালদা জেলায় একটি লোকসভা আসন ২০১৯ সালে বিজেপির ঝোলায় যেতে পারে, তখন অনেকেই প্রশ্ন তুলেছিলেন, মালদার মত সংখ্যালঘু অধ্যুষিত জেলায় কি করে বিজেপি আসন পেতে পারে। কিন্তু এবারের পঞ্চায়েত নির্বাচন দেখিয়ে দিল মালদায় আমাদের সমীক্ষায় সঠিক দিক নির্দেশই উঠে এসেছিল। পঞ্চায়েত সমিতিতে অন্যান্য জেলার পাশাপাশি বিজেপির উল্লেখযোগ্য উত্থান দেখা যাচ্ছে দক্ষিণ দিনাজপুর, ঝাড়গ্রাম ও পুরুলিয়া জেলায়।

তবে সবথেকে উল্লেখযোগ্য ফলাফল গ্রাম পঞ্চায়েতে। যেখানে শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেস বারবার দাবি করে এসেছে বিজেপি প্রার্থী খুঁজে পাচ্ছে না, সেখানে এখনো পর্যন্ত প্রায় হাজারের কাছাকছি আসনে পদ্ম ফুটেছে। তারথেকেও বড় কথা উত্তরবঙ্গে ভালো ফল করার পাশাপাশি দক্ষিণ ২৪ পরগনায় সেঞ্চুরি পার করে ফেলেছে বিজেপি। প্রসঙ্গত, আমাদের করা সমীক্ষাতেও উঠে এসেছিল বামেদের পিছনে ফেলে এই জেলাতে অনেক ভালো ফল করতে পারে বিজেপি, তা নিয়েও অনেকে প্রশ্ন তুলেছিলেন। কিন্তু দেখা গেল দক্ষিণ ২৪ পরগনার মত শক্ত বাম ঘাঁটিতেও তীব্র উত্থান হচ্ছে গেরুয়া শিবিরের। অন্যদিকে পুরুলিয়াতে ‘ডাবল-সেঞ্চুরি’ হাঁকাল পদ্ম-শিবির, পাশাপাশি ঝাড়গ্রামেও সেঞ্চুরির কাছাকাছি। অর্থাৎ মুখ্যমন্ত্রী যতই দাবি করুন ‘জঙ্গলমহল হাসছে’, এই ফলের পর শাসকদলের হাসি কেড়ে কপালে চিন্তার ভাজ ফেলে দিতে বাধ্য করবে জঙ্গলমহল।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!