এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > শাসকদলের ‘বুদ্ধিজীবী’ মহলে এবার হাত বাড়াতে চলেছে বিজেপি

শাসকদলের ‘বুদ্ধিজীবী’ মহলে এবার হাত বাড়াতে চলেছে বিজেপি



২০১১ সালে ৩৪ সালের বাম শাসনের আবাসন ঘটিয়ে রাজ্যে ক্ষমতা দখলের পথে তৃণমূল কংগ্রেসের অন্যতম ‘ভরসার’ ছিলেন বাংলার বুদ্ধিজীবী মহল। ২০০৬ সালের বিধানসভা নির্বাচনে ভরাডুবি হওয়ার পরবর্তীকালে সিঙ্গুর, নন্দীগ্রামের আন্দোলনের সমর্থনে বিদ্বজ্জনদের সাহায্যপ্রার্থী হয়েছিলেন তৎকালীন বিরোধীনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর তারপরের ইতিবৃত্ত নতুন করে বলার কিছুই নেই। বর্তমানে রাজ্যের অন্যতম বিরোধী থেকে প্রধান বিরোধী হয়ে উঠতে এবার বিজেপিও সেই একই পথে হাঁটতে চলেছে। সূত্রের খবর, আজ বিকেলে ধর্মতলার একটি পাঁচতারা হোটেলে অন্যতম শীর্ষ রাজ্যনেতা সায়ন্তন বসুর তত্ত্বাবধানে বেঙ্গল ক্যাডারের প্রাক্তণ আইএএস ও আইপিএস অফিসারদের নিয়ে একটি বৈঠক করতে চলেছে বিজেপি।

সামনেই আসন্ন পঞ্চায়েত নির্বাচন, পরের বছরই লোকসভা নির্বাচন। আর আগামী এই দুই নির্বাচনে ‘ভালো’ ফল করতে হলে একদিকে যেমন সংগঠন মজবুত করতে হবে অন্যদিকে তেমনই তৈরি করতে হবে জনমত। আর এই জনমত তৈরির ব্যাপারে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দেখানো পথেই এবার বিদ্বজ্জনদের সাহায্যপ্রার্থী হতে চলেছে গেরুয়া শিবির বলে সূত্রের খবর। বিজেপি সূত্রে জানা যাচ্ছে, ‘বেটার বেঙ্গল’ নামে এই আলোচনাসভার শুরুটা করবেন প্রাক্তণ আইএএস ওম পাঠক। আর তারপর একে একে নিজেদের বক্তব্য রাখবেন ইতিমধ্যেই বিজেপির সদস্যপদ নিয়ে নেওয়া বা অচিরেই নিতে চলা প্রাক্তন এই অফিসারেরা। শুধু প্রাক্তন এই অফিসাররাই নন, আজকের আলোচনাসভায় থাকতে চলেছেন বেশ পরিচিত বুদ্ধিজীবীও, তবে তাঁরা করা, সেই বিষয়ে এখনো কিছু বিশদভাবে জানা যায় নি।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!