এখন পড়ছেন
হোম > রাজনীতি > বিজেপি > বিজেপির অন্দরে দ্বন্দ্ব- অশান্তির পিছনের মাস্টারমাইন্ড কে? ফাঁস করে দিলেন হেভিওয়েট নেতা!

বিজেপির অন্দরে দ্বন্দ্ব- অশান্তির পিছনের মাস্টারমাইন্ড কে? ফাঁস করে দিলেন হেভিওয়েট নেতা!



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – 2021 সালের বিধানসভা নির্বাচনে পশ্চিমবাংলার ক্ষমতা দখলের ব্যাপারে বিজেপি প্রবল চেষ্টা চালালেও, মাঝেমধ্যেই দিলীপ ঘোষ বনাম মুকুল রায়ের দ্বন্দ্ব প্রকাশ্যে চলে আসছে। বিজেপির তরফ থেকে অবশ্য সেরকম কোনো দ্বন্দ্ব নেই বলে জানানো হলেও, নানা মহলে এই ব্যাপারে খবর রটতে শুরু করেছে। যার ফলে কিছুটা হলেও অস্বস্তিতে গেরুয়া শিবির।তবে একসময় পশ্চিমবঙ্গে বিজেপির রাজ্য সভাপতি পদে থাকা তথাগত রায় দীর্ঘদিন রাজনীতির নাগপাশে না থাকলেও, এবার তিনি আবার বাংলার রাজনীতিতে সক্রিয় হতে চলেছেন।

জানা গেছে, সম্প্রতি মেঘালয়ের রাজ্যপাল পদ থেকে ইস্তফা দিয়ে আবার নতুন করে বাংলার সংগঠনের নাক গলাতে চলেছেন তথাগতবাবু। স্বাভাবিক ভাবেই তাকে নিয়ে বিজেপিতে নতুন করে জল্পনা তৈরি হয়েছে, তাহলে একদিকে মুকুল রায় এবং দিলীপ ঘোষের মধ্যেকার দ্বন্দ্ব যখন সামাল দিতে কার্যত অতিষ্ঠ হয়ে পড়ছে বিজেপি শীর্ষ নেতৃত্ব, ঠিক সেই সময় যদি তথাগত রায় আবার সক্রিয় ভূমিকা পালন করেন, তাহলে ত্রিফলা দ্বন্দ্ব তৈরি হতে পারে বলে মনে করছে একাংশ।


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

তবে বিজেপিতে দুই নেতার মধ্যকার দ্বন্দ্বের পেছনে কে মূল দায়ী, এবার তা ফাঁস করে দিলেন সেই তথাগত রায়। জানা গেছে, এদিন তথাগত বাবু বিজেপিতে এই দ্বন্দ্বের জন্য তৃণমূলের রাজনৈতিক পরামর্শদাতা প্রশান্ত কিশোরকে দায়ী করেছেন। এদিন তিনি বলেন, “আমি অশান্তি বাড়াতে বিজেপিতে আসতে চাইছি না। তৃণমূলের ভোট কৌশলী বিজেপিতে ঝগড়া লাগানোর একটা প্রক্রিয়া চালিয়ে যাচ্ছেন। এটা তৃণমূলের রাজনৈতিক কৌশলের মধ্যে পড়ে। প্রতিদ্বন্দ্বিতা লাগিয়ে রাখতে পারলে আদতে তৃণমূলের লাভ। আমি রাজনীতিতে ফিরলে সেখানে আরও একটা চরিত্র পেয়ে যাবেন প্রশান্ত কিশোর। ফলে বিজেপিতে অশান্তি পাকিয়ে রাখার একটা চেষ্টা তিনি করে যেতে চাইবেন। কিন্তু তার এই অভিসন্ধি সফল হবে না। কেননা আমি বিজেপিতে অশান্তি লাগাতে চাই না। বিজেপি যদি চায়, তবেই আমি এগোবো।”

আর তথাগতবাবুর এই মন্তব্য নিয়েই এবার তীব্র জল্পনা সৃষ্টি হয়েছে বাংলার রাজনৈতিক মহলে। তাহলে কি দিলীপবাবু এবং মুকুলবাবুকে নিয়ে যে দ্বন্দ্বের খবর সাম্প্রতিককালে পশ্চিমবঙ্গ রাজনীতিতে আসতে শুরু করেছিল, তা আসলে দুই নেতার মধ্যেকার দ্বন্দ্ব নয়! আদতে তৃণমূলের রাজনৈতিক পরামর্শদাতা এর পেছনে প্রধানভাবে দায়ী?

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, তথাগতবাবুর এই মন্তব্যের পেছনে যে যুক্তি নেই, এমনটা ভাবলে ভুল হবে। তবে পশ্চিমবঙ্গে বিজেপির প্রাক্তন সভাপতি তথাগত রায় সক্রিয় রাজনীতিতে ফেরার আগে যেভাবে বিজেপিতে দ্বন্দ্বের ঘটনায় তৃণমূলের রাজনৈতিক পরামর্শদাতাকে দায়ী করলেন, তাদের তৃনমূলের পক্ষ থেকে এখন কি প্রতিক্রিয়া আসে, সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!