এখন পড়ছেন
হোম > রাজনীতি > তৃণমূল > বিজেপি নয়, মমতাদের ঘুম কাড়ছেন রাজ্যপালই! বরখাস্ত নিয়ে তৃণমূল সরব হতেই জল্পনা চরমে

বিজেপি নয়, মমতাদের ঘুম কাড়ছেন রাজ্যপালই! বরখাস্ত নিয়ে তৃণমূল সরব হতেই জল্পনা চরমে



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – রাজ্যপালকে নিয়ে ক্রমাগত অস্বস্তি বাড়ছে রাজ্যের শাসক দল তৃণমূলের। রাজ্যের সাংবিধানিক দায়িত্ব নেবার পর থেকেই রাজ্য সরকারের একাধিক বিষয় নিয়ে রাজ্যপাল বারবার সরব হয়েছেন। রাজ্যের শিক্ষাব্যবস্থা, স্বাস্থ্যব্যবস্থা, পুলিশি ব্যবস্থা, আইন-কানুন নিয়ে ইতিপূর্বে সরব হয়েছেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকর। সম্প্রতি নির্বাচন পরবর্তী হিংসা, আইনশৃঙ্খলার পরিস্থিতি নিয়ে রাজ্যপাল বারবার সরব সরব হচ্ছেন। কিছুদিন ধরে রাজ্যপাল রাজ্যের একাধিক জেলা পরিদর্শন করছেন। ভোট-পরবর্তী হিংসার ঘটনায় আক্রান্ত বেশ কিছু অঞ্চল পরিদর্শন করছেন তিনি। তাই, এখন আর বিজেপি নয়, তৃণমূলের রাতের ঘুম কেড়ে নিচ্ছেন রাজ্যপাল।

দুদিন আগে কোচবিহার জেলা পরিদর্শনে গিয়েছিলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকর। দিনহাটার বেশ কিছু স্থানে সেদিন রাজ্যপালকে কালো পতাকা দেখানো হয়েছিল। এই ঘটনার পরে গাড়ি থেকে নেমে পড়লেন রাজ্যপাল। ধমক দেন তিনি থানার আইসিকে। পুলিশকে তিনি প্রশ্ন করেন, এসব কি চলছে? দিনহাটার এসডিপিওকে রাজ্যপাল জানান, এটা সম্পূর্ণ পুলিশের ব্যর্থতা।

পুলিশের জানা প্রয়োজন ছিল যে, রাজ্যপাল কখন কোথায় যাবেন। এই অবস্থা দেখে তিনি অবাক হয়ে যাচ্ছেন। তিনি প্রশ্ন করেছেন, রাজ্যপালের গাড়ি আটকানোর সাহস কি করে হয়? তিনি স্বপ্নেও ভাবেননি যে, শাসন ব্যবস্থার এই নগ্ন রূপ দেখতে হবে তাঁকে। তিনি অভিযোগ করেন, আইন ব্যবস্থা সম্পূর্ণ ভেঙে পড়েছে।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

নন্দীগ্রাম পরিদর্শনে গিয়েছিলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকর। সেখানে গিয়ে তিনি মানুষের দুঃখ-দুর্দশা দেখে চোখের জল চেপে রাখতে পারেননি। অশ্রুসিক্ত ভাবে রাজ্যপাল জানান, জ্বলন্ত আগ্নেয়গিরির উপরে বসে আছেন সকলে। রাজ্যজুড়ে যে সংকটের মুহূর্ত তৈরি হয়েছে, তাতে তিনি রাতে ঘুমাতে পারছেন না।

তিনি অভিযোগ করেছেন, মানুষ ঘরবাড়ি ছেড়ে পালিয়ে যেতে বাধ্য হচ্ছেন। বারবার তাঁকে কটুক্তি শুনতে হচ্ছে। প্রাণহানি, ধর্ষণ, লুটপাট, তোলাবাজি বারবার ঘটছে। কষ্টে রয়েছেন লক্ষ লক্ষ মানুষ। মুখ্যমন্ত্রীকে হিংসা বন্ধ করার অনুরোধ করেছেন তিনি।

রাজ্যের সাম্প্রতিক পরিস্থিতি নিয়ে বারবার অভিযোগ করায় শাসকদল তৃণমূলের চক্ষুশূল হয়ে পড়ছেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকর। প্রসঙ্গত, রাজ্যপালের কোচবিহার পরিদর্শনের সময় তাঁর সঙ্গে ছিলেন কোচবিহারের বিজেপি সাংসদ নিশীথ প্রামানিক। এ প্রসঙ্গে, তৃণমূল সাংসদ সুখেন্দু শেখর রায়ের বক্তব্য, একজন কুখ্যাত সাংসদকে সঙ্গে নিয়ে কোচবিহার ঘুরে বেড়িয়েছেন রাজ্যপাল।

এখনই তাঁকে বরখাস্ত করা উচিত। তিনি অভিযোগ করেছেন, রাজ্যপাল পদের অমর্যাদা করছেন। কোচবিহারের শীতলকুচিতে রাজ্যপাল গিয়েছিলেন, কিন্তু কেন্দ্রীয় বাহিনীর গুলিতে যারা প্রাণ হারিয়েছেন, তাদের বাড়িতে যাননি রাজ্যপাল। রাজ্যপালকে তিনি দিল্লির এজেন্ট বলে কটাক্ষ করে তাঁর অপসারণের দাবি জানান।

বস্তুত, শাসকদল তৃণমূলের অস্বস্তি বহুগুণে বাড়িয়ে দিয়েছেন রাজ্যপাল। এজন্যই রাজ্যপালের বরখাস্তের দাবি করতে দেখা যাচ্ছে তৃণমূল নেতৃত্বকে, এমনটাই মনে করছেন একাধিক রাজনৈতিক বিশ্লেষক। রাজ্য ও রাজ্যপাল সংঘাত ইতিপূর্বে বারবার দেখা গিয়েছিল। এবার ভোট পরবর্তী হিংসার পটভূমিতে রাজ্যপাল যখনই জেলা সফর করতে শুরু করেছেন, তখনই রাজ্যপালের সঙ্গে তীব্র হয়ে উঠেছে রাজ্য সরকারের বিরোধ। এদিকে সম্প্রতি মুখ্যমন্ত্রী চিঠি দিয়ে প্রশ্ন করেছেন, রাজ্যপাল কি এভাবে যেতে পারেন? তাঁর এমন সফরের সাংবিধানিক এক্তিয়ার নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন মুখ্যমন্ত্রী।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!