এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > সংবাদমাধ্যমের ঘাড়ে দোষ চাপিয়ে নিজের পদ থেকে ইস্তফা দিতে তৈরি বিজেপির সাংসদ

সংবাদমাধ্যমের ঘাড়ে দোষ চাপিয়ে নিজের পদ থেকে ইস্তফা দিতে তৈরি বিজেপির সাংসদ



লোকসভা নির্বাচন যত এগিয়ে আসছে তত বেশি করে যেন বিতর্কের জালে জড়িয়ে যাচ্ছেন গেরুয়া শিবিরের নেতারা। স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী মানা করলেও দলীয় বিধায়ক-সাংসদদের একের পর এক বিতর্কিত ইস্যুতে মন্তব্য নিয়ে বিতর্ক যেন কিছুতেই পিছু ছাড়ছে না বিজেপির। সম্প্রতি মুম্বইয়ের মালাদের মালভনিতে শিয়া কবরেস্তান কমিটির ইদের এক অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন উত্তর মুম্বইয়ের বিজেপি সাংসদ গোপাল শেট্টী। সেখানেই বক্তব্য রাখতে গিয়ে তিনি দাবি করেন, “দেশের স্বাধীনতা সংগ্রামে হিন্দু ও মুসলিম সঠিক ভূমিকা পালন করলেও এখানে বিদেশি খ্রীষ্টানদের কোনো অবদান নেই।”

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

দেশের অন্যতম সংখ্যালঘু সম্প্রদায় সম্পর্কে তাঁর এই ‘অপমানকর’ মন্তব্যের জেরে বিতর্ক চরমে ওঠে – ড্যামেজ কন্ট্রোল করতে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তিনি বলেন, “আমার বক্তব্যকে ভুল ভাবে তুলে ধরা হয়েছে। তাও যদি এহেন কথা বলে থাকি তবে তাঁর জন্য দলের রাজ্য সভাপতির সাথে কথা বলে আমি আমার সাংসদ পদ থেকে ইস্তফা দেব।” এদিকে রাজনৈতিক মহলের দাবি, ইতিমধ্যেই ক্যামেরায় ধরা পড়েছে যে তিনি খ্রীষ্টানদের “ব্রিটিশ”-এর তকমাও দিয়েছেন। অন্যদিকে বিরোধীদের দাবি, নানা জাতির বসবাস এই ভারতবর্ষে, কিন্তু সেখানেই বিজেপি ‘ভোট-পলিটিক্সের’ জন্য ধর্মের নামে ভারতের একতাকে দ্বিখন্ডিত করতে চাইছে। আর তাই কখনও মুসলমান আর কখনও বা খ্রীষ্টানের মত সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের উদ্দেশ্যে বিতর্কিত মন্তব্য করে তাঁদের অসহিষ্ণু করে তুলছেন আর পরে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ক্ষমা চাওয়ার ‘নাটক’ করছেন! ২০১৯ এর লোকসভা নির্বাচনেই এর যোগ্য জবাব নাকি পেয়ে যাবেন গেরুয়া শিবিরের নেতারা বলে মন্তব্য বিরোধীদের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!