এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > পুলিশের মদতে বাইরে থেকে লোক এনে সংঘর্ষে মদত দেওয়া হচ্ছে! তেলিনিপাড়া নিয়ে বিস্ফোরক অর্জুন!

পুলিশের মদতে বাইরে থেকে লোক এনে সংঘর্ষে মদত দেওয়া হচ্ছে! তেলিনিপাড়া নিয়ে বিস্ফোরক অর্জুন!



একদিকে করোনা ভাইরাস, আর তার মাঝে বিভিন্ন এলাকায় গোষ্ঠী সংঘর্ষ নিয়ে ক্রমশ উত্তপ্ত হয়ে উঠছে পশ্চিমবঙ্গ। যদিও শান্তি স্থাপন করতে রীতিমত তৎপর পুলিশ প্রশাসন। তবে এই বিক্ষিপ্ত গন্ডগোল এবং অশান্তির ঘটনায় বারবার বিঘ্নিত হচ্ছে রাজ্যের শান্তি। ইতিমধ্যেই হুগলির তেলিনিপাড়ার গোষ্ঠী সংঘর্ষ রীতিমত ভাবাতে শুরু করেছে সকলকে। বিরোধীদের পক্ষ থেকে রাজ্যের আইন শৃঙ্খলা ভেঙে পড়েছে বলে প্রশাসনকে কড়া ভাষায় আক্রমণ করা হচ্ছে।

অন্যদিকে পাল্টা রাজ্যের প্রশাসনিক প্রধান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নাম না করে এই ব্যাপারে ভারতীয় জনতা পার্টিকে কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়েছেন। আর এমত পরিস্থিতিতে এবার তেলিনিপাড়া নিয়ে বিস্ফোরক মন্তব্য করলেন ব্যারাকপুরের বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিংহ। যেখানে পুলিশের মদতে বাইরে থেকে লোক এনে সংঘর্ষে মদত দেওয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ আনলেন তিনি। সূত্রের খবর, এদিন এই প্রসঙ্গে রাজ্য প্রশাসনকে কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়ে ব্যারাকপুরের বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিংহ রীতিমত বিস্ফোরণ ঘটালেন এদিন।


ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

তিনি বলেন, “তেলিপাড়ায় পুলিশ দাঁড়িয়ে থেকে লুট করাচ্ছে। একটি বিশেষ সম্প্রদায়কে সুরক্ষা দিতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। পুলিশের মদতে বাইরে থেকে লোক এনে সংঘর্ষের মদত হচ্ছে।” আর যেখানে রাজ্যের প্রশাসনিক প্রধান বলছেন পুলিশ প্রশাসন অত্যন্ত সক্রিয় অশান্তিকে স্তব্ধ করতে, সেখানে বিজেপির এই হেভিওয়েট সাংসদ যেভাবে তেলিনিপাড়ার গন্ডগোলে পুলিশি মদতের কথা তুলে ধরলেন, তা নিঃসন্দেহে শোরগোল ফেলে দিল রাজনৈতিক মহলে।

এদিন অর্জুন সিং কার্যত হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, “প্রশাসন যদি কোনো কথা না শোনে, তাহলে বাধ্য হয়ে সেখানে যেতে হবে। মানুষের পাশে দাঁড়াতে হবে। কারণ সেখানে মানুষের ওপর যেভাবে হামলা করা হচ্ছে, তাতে জনপ্রতিনিধি হয়ে আমরা চুপ করে বসে থাকব না।” রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা বলছেন, করোনা ভয়াবহতার মাঝে তেলিনিপাড়ার এই গোষ্ঠী সংঘর্ষ নিঃসন্দেহে রাজ্য প্রশাসনকে চাপে রেখেছে।

তাই এমতাবস্থায় সেই রাজ্য প্রশাসনের অস্বস্তি বাড়িয়ে দিয়ে অর্জুন সিংহ যেভাবে পুলিশি মদতে গন্ডগোল হচ্ছে বলে দাবি করলেন, তাতে অস্বস্তি বাড়বে রাজ্য প্রশাসনের বলে মত ওয়াকিবহাল মহলের। প্রসঙ্গত, ইতিমধ্যেই তেলেনিপাড়ার ঘটনা নিয়ে রাজ্য সরকারের উপর চাপ বাড়িয়ে বিজেপির এক প্রতিনিধিদল রাজ্যপালের সঙ্গে দেখা করেছেন। ডিএম অফিসের সামনে বসেছেন বিজেপি সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায় ও অর্জুন সিংহ। এখন কবে শান্ত হয় তেলিনিপাড়া, সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!