এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > উচ্চপদস্থ অফিসারদের খাবার পরিবেশন করিয়ে তীব্র বিতর্কে বিজেপি মন্ত্রী

উচ্চপদস্থ অফিসারদের খাবার পরিবেশন করিয়ে তীব্র বিতর্কে বিজেপি মন্ত্রী



খাবার এনে দাও এমন কথা উচ্চারণের চোখের নিমেষে কেউ খাবার এনে হাজির করছেন। পরক্ষণেই আবার অন্য নির্দেশ পেলে সেই মত সেবা হাজির করছেন। হুকুম কর্তা অন্য কেউ নয় উত্তরপ্রদেশ রাজ্য সরকারের এক মন্ত্রী। তার হুকুম পালনকারী  ঐ রাজ্যেরই উচ্চ পদস্থ সরকারী আধিকারিকেরা। প্রসঙ্গতঃ সম্প্রতি রাজ্যের একটি সরকারী বৈঠকে সরকারী অধিকর্তাদের খাবার পরিবেশন করার নির্দেশ দিচ্ছেন এক বিজেপি সরকারের এক মন্ত্রী । আর নির্দেশ পেয়ে মুখে মুখে খাবার জোগাচ্ছেন সরকারী আধিকারিকেরা। এমন একটি ভিডিও সোস্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

 এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

তারপরেই  উত্তরপ্রদেশের কো-অপারেটিভ মন্ত্রী মুকুট বেহারি ভর্মা সরকারী আধিকারকিদের দিয়ে খাবার পরিবেশনকে কেন্দ্র করে রাজ্য তথা কেন্দ্রীয় মহলে এক নতুন বিতর্কের সূত্রপাত হলো। উল্লেখ্য ভাইরাল হওয়া ঐ ভিডিও তে দেখা যাচ্ছে কানপুরের সার্কিট হাউসে সরকারি আধিকারিকদের উপস্থিতিতে অ্যাডিশনার ডেভেলপমেন্ট অফিসার (এডিও) সত্যেন্দ্র কুমার মিশ্র ও সত্যম শিখর নামে দুই আধিকারিক মন্ত্রীকে সকালের প্রাতঃরাশ ও খাবার পরিবেশন করছেন। এছাড়া মন্ত্রী যা যা চাইছেন সেই সব খাবার তাঁর মুখের সামনে গিয়ে ধরছেন। এছাড়া আরও দুই এডিও সুশীল কুমার সিং ও ফুলচন্দ্রা নামে দুই আধিকারিককে রান্নাঘর থেকে খাবার মন্ত্রীর ঘরে পৌঁছে দেওয়ার নির্দেশ দিচ্ছেন। আরও দুই সরকারী আধিকারিককে সার্কিট হাউসে আসা অতিথিদের আপ্যায়নের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে । পরে এই ঘটনা প্রসঙ্গে মন্ত্রী মুকুট বেহারি ভর্মা ‘কে প্রশ্ন করা হলে তিনি জানালেন রামেশ গুপ্তা নামক জনৈক কানপুর দেহাতের অ্যাসিন্ট্যান্ট রেজিস্টার সরকারী আধিকারিকদের এই দায়িত্ব বুঝিয়ে দিয়েছিলেন । এমন কাজের কথা জানাজানি হওয়ার পরে  তাঁকে সাসপেন্ড করা হয়েছে।

 

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!