এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > উত্তরবঙ্গ > বিজেপিতে বড়সড় ভাঙ্গন ধরিয়ে রাজ্যের হেভিওয়েট মন্ত্রী পরবর্তী মেয়র মুখ জল্পনা বাড়িয়ে দিলেন

বিজেপিতে বড়সড় ভাঙ্গন ধরিয়ে রাজ্যের হেভিওয়েট মন্ত্রী পরবর্তী মেয়র মুখ জল্পনা বাড়িয়ে দিলেন



গত লোকসভা নির্বাচনে উত্তরবঙ্গে তৃণমূল দৈনদশার শিকার হয়েছিল। আটটি লোকসভা কেন্দ্রের মধ্যে সাতটিতেই পরাজিত হতে হয়েছে ঘাসফুল শিবিরকে। কিন্তু বর্তমানে লোকসভা নির্বাচনের ফলাফল প্রকাশের পর উত্তরবঙ্গের মহানন্দা দিয়ে অনেক জল বয়ে গেছে। ফলে রাজনৈতিক অবস্থারও অনেক পরিবর্তন ঘটেছে। বিজেপির বিরুদ্ধে নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন ইস্যুতে বর্তমানে জোর প্রচার চালাচ্ছে তৃণমূল কংগ্রেস। যার ফলে কিছুটা হলেও বেকায়দায় পড়েছে ভারতীয় জনতা পার্টি।

আর এই পরিস্থিতিতে এবার বিজেপির কালঘাম ছুটিয়ে উত্তরবঙ্গে গেরুয়া শিবিরে ভাঙ্গন ধরিয়ে দিলেন তৃণমূলের হেভিওয়েট মন্ত্রী গৌতম দেব। সূত্রের খবর, এদিন তৃণমূলের জেলা কার্যালয়ের ডাবগ্রাম 1 গ্রাম পঞ্চায়েতের বিজেপির বিরোধী দলনেতা দীনেশ মণ্ডল তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দেন। আর তার হাতে দলীয় পতাকা তুলে দেন উত্তরবঙ্গের তৃণমূলের কোর কমিটির চেয়ারম্যান তথা রাজ্যের পর্যটন মন্ত্রী গৌতম দেব। আর বিজেপির ঘরের লোককে নিজেদের দলে নিয়ে এসে এদিন গৌতমবাবু শিলিগুড়িতে বিজেপিকে বড়সড় চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিলেন বলেই মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা।

এদিন এই প্রসঙ্গে তৃণমূলের হেভিওয়েট মন্ত্রী গৌতম দেব বলেন, “পৌরসভা নির্বাচনের আগে অনেক চমক অপেক্ষা করছে। বিরোধী দলের একাধিক হেভিওয়েট কাউন্সিলার আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছেন। তাদের মধ্যে কয়েকজন শীঘ্রই আমাদের দলে যোগ দেবেন।

শুধু তাই নয়, নতুন মুখও আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ করেছে। একজন কলেজ শিক্ষিকার সঙ্গেও যোগাযোগ হয়েছে। তবে পৌরসভা ভোটের আগে সংগঠনকে সাজিয়ে তুলতে উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। চলতি মাসের কুড়ি তারিখের মধ্যে দলের পূর্ণাঙ্গ দার্জিলিং জেলা কমিটি গঠন করা হবে। ইতিমধ্যে আমরা রাস্তায় নেমে পড়েছি। মানুষের কাছে গিয়ে এনআরসি হলে কি সমস্যা হতে পারে, তা বোঝানোর চেষ্টা করছি।” তবে লোকসভায় তৃণমূল যেভাবে উত্তরবঙ্গে পর্যুদস্ত হয়েছিল, পৌরসভায় যদি তৃণমূলকে ভালো ফল করতে হয়, তাহলে তো ভালো মুখের প্রয়োজন।


দেশে যে কোনো দিন ব্যান হয়ে যেতে পারে হোয়াটস্যাপ। তাই এখন থেকে আমরা শুধুমাত্র টেলিগ্রাম ও সিগন্যাল অ্যাপে। প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার নিউজ নিয়মিতভাবে পেতে যোগ দিন –

টেলিগ্রাম গ্রূপটাচ করুন এখানে

সিগন্যাল গ্রূপটাচ করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

সেদিক থেকে পৌরসভা নির্বাচনে শিলিগুড়ি পৌরসভায় ভালো ফল করতে, তৃণমূলের প্রধান মুখ কে? রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের একাংশ বলেছিলেন, শিলিগুড়ি পৌরসভায় বামেদেরকে সরিয়ে ক্ষমতায় আসবার জন্য তৃণমূলের প্রধান মুখ রাজ্যের পর্যটন মন্ত্রী গৌতম দেব? কিন্তু সত্যিই কি তাই! এদিন এই প্রসঙ্গে জল্পনাকে কিছুটা দীর্ঘায়িত করে গৌতমবাবু বলেন, “ভোটে লড়ার ক্ষেত্রে ব্যক্তিগতভাবে কোনো সিদ্ধান্ত আমার নেই। দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় চাইলে আমি শিলিগুড়ি পৌরসভা নির্বাচনে লড়ব। যদি আমাকে দল অন্য কোনো কাজ নির্দিষ্ট করে দেয়, তবে সেটাই করব। গত পৌরসভা ভোটে দল নির্বাচন পরিচালনার দায়িত্ব দিয়েছিল। সেটাই পালন করেছি। শিলিগুড়ি পৌরসভায় প্রার্থী হতে আমার কোনো বাধা নেই। দল বললেই আমি দাঁড়াব।”

বিশেষজ্ঞদের একাংশ বলছেন, পরোক্ষে গৌতম দেব একথা বলে প্রমাণ করে দিলেন যে, শিলিগুড়ি পৌরসভায় প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার জন্য তার যথেষ্ট ইচ্ছা রয়েছে। কিন্তু তিনি প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে চাইলেও, এখন তৃণমূল কংগ্রেস শিলিগুড়ি পৌরসভা নির্বাচনের বৈতরণী পার হওয়ার জন্য কার ওপরে ভরসা রাখে! সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!