এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > মারধর ও শ্লীলতাহানির অভিযোগ প্রাক্তন সংসদ ও বিজেপি নেতার বিরুদ্ধে,জোর শোরগোল

মারধর ও শ্লীলতাহানির অভিযোগ প্রাক্তন সংসদ ও বিজেপি নেতার বিরুদ্ধে,জোর শোরগোল



 

প্রাক্তন সাংসদ এবং বিজেপি নেতা অনুপম হাজরার বিরুদ্ধে মারধর এবং বান্ধবীর শ্লীলতাহানির উঠল। অভিযোগ, কসবার বাসিন্দা সুরেশ রায় শহরের একটি প্রসিদ্ধ পানশালায় গিয়েছিলেন এবং সেখানেই বিজেপি নেতা অনুপম হাজরা এবং তার সঙ্গীরা সুরেশবাবুকে মারধর করেন। শুধু তাই নয়, তার বান্ধবীর শ্রীলতাহানি পর্যন্ত করা হয়। এই বিষয়ে শেক্সপিয়ার সরণি থানায় অভিযোগ করা হয়েছে সুরেশ রায়ের পক্ষ থেকে। তবে এই অভিযোগ সম্পূর্ণরূপে অস্বীকার করেছেন প্রাক্তন সাংসদ তথা বঙ্গ বিজেপির অন্যতম নেতা অনুপম হাজরা।

এই বিষয়ে তিনি বলেন, “ওই রাতে এক বন্ধুর জন্মদিন উপলক্ষে একটি পানশালায় গিয়েছিলাম। সেখানে আমার এক নিরাপত্তারক্ষী দেখতে পান একজন মোবাইলে আমার ভিডিও করছে।” পাশাপাশি অনুপমবাবুর পক্ষ থেকে বলা হয়, “আমার নিরাপত্তারক্ষী প্রথমে তাকে ভিডিও তুলতে না বলেন। কিন্তু ওই ব্যক্তি ভিডিও তুলে অন্য কাউকে পাঠানোর চেষ্টা করেন। সেই সময় তাকে আমার নিরাপত্তারক্ষী হাতেনাতে ধরে ফেলে।”

অনুপমবাবু বলেন, “এর পরে বিষয়টি পানশালা কর্তৃপক্ষের নজরে আনা হয়। পরে পানশালা কর্তৃপক্ষ তাকে বের করে দেয়।” কিন্তু সুরেশ রায়ের তরফ থেকে পাল্টা অভিযোগ করা হয়েছে, শনিবার রাতে তিনি তার বান্ধবীকে সঙ্গে নিয়ে হো চি মিন সরণীতে একটি নামজাদা পানশালায় গিয়েছিলেন। সেই সময় ওই পানশালার মধ্যে তিনি অনুপম হাজরাকে দেখতে পান। সুরেশবাবু অনুপম হাজরাকে চিনতেন‌। সেই কারণে তার সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে গিয়েছিলেন। তখন অনুপম হাজরা সঙ্গে ছবি তোলার ইচ্ছা প্রকাশ করেন সুরেশবাবু।

ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

কিন্তু সুরেশ রায়ের তরফ থেকে অভিযোগ করা হয়েছে, প্রথম অবস্থায় অনুপম হাজরা ছবি তোলার প্রস্তাবে রাজি করে হঠাৎ করেই তিনি মারধর শুরু করেন। এমনকি সুরেশ বাবুর হাতে থাকা মোবাইল ভেঙে দেওয়া হয়। পাশাপাশি তার গলায় থাকা সোনার চেইন ছিড়ে ফেলা হয়।

এই সময় বিজেপি নেতা অনুপম হাজরার সঙ্গে থাকা এক ব্যক্তি সমানে হুমকি দিতে থাকেন। এমনকি পানশালার বাইরে বেরিয়ে সুরেশবাবুর গাড়ির উপরে হামলা করে অনুপমের সঙ্গীরা। এমনটাই অভিযোগ করা হয়েছে কসবার বাসিন্দা সুরেশ রায়ের পক্ষ থেকে। ঘটনার পরেই সুরেশবাবু শেক্সপিয়ার সরণি থানাতে গিয়ে অভিযোগ দায়ের করেন অনুপম হাজরার বিরুদ্ধে।

স্থানীয় পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, অভিযোগের ভিত্তিতে বিজেপি নেতা অনুপম হাজরা বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধি 341, 322, 379 এবং 354 ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। তবে জানানো হয়েছে, গোটা বিষয় নিয়ে প্রাথমিক তদন্তে নামবে পুলিশ এবং সব রকম তথ্য সংগ্রহ করার কাজ শুরু করা হয়েছে।

বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন, অনুপম হাজরের বিরুদ্ধে যে অভিযোগ করা হয়েছে, তার প্রকৃত তদন্ত সাপেক্ষে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা উচিত। তবে ভারতীয় জনতা পার্টির অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ এই নেতার বিরুদ্ধে যেভাবে মারধর থেকে শুরু করে অন্যান্য অভিযোগ আনা হয়েছে, তা রীতিমতো চাঞ্চল্য সৃষ্টি করেছে রাজ্য রাজনীতির মধ্যে।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!