এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > বিধানসভায় বাজিমাতে মোদী-শাহের মাস্টারস্ট্রোক? বঙ্গ-বিজেপি এবার শুধুই মুকুল-ময়? বাড়ছে জল্পনা

বিধানসভায় বাজিমাতে মোদী-শাহের মাস্টারস্ট্রোক? বঙ্গ-বিজেপি এবার শুধুই মুকুল-ময়? বাড়ছে জল্পনা



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – 2021 এর বিধানসভা নির্বাচনের আগে বিজেপিতে গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব কার্যত প্রকাশ্যে চলে আসছে। মুকুল রায় তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগদানের পর থেকেই তার সঙ্গে দিলীপ ঘোষের দ্বন্দ্ব তৈরি হয়েছে বলে দাবি করতে শুরু করেছিল একাংশ। সম্প্রতি বিজেপিতে কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি দায়িত্ব পেয়েছেন মুকুল রায়। আর তারপর থেকে নিজের মত করে গুটি সাজাতে শুরু করেছেন তিনি।

তবে মুকুল রায় বড় দায়িত্ব পেলেও, তাতে যে দিলীপ ঘোষ এবং তার অনুগামীরা খুব একটা খুশি নন। তাই দিলীপ ঘোষ থেকে শুরু করে রাহুল সিনহা প্রায় সকলেই ব্যাকফুটে রয়েছে। সেই জায়গায় থেকে একা হাতে সমস্ত দিক সামলাতে দেখা যাচ্ছে মুকুল রায়কে। যার ফলে একাংশ মনে করছেন, 2021 এর বিধানসভা নির্বাচনের আগে মুকুল রায় বিজেপি অন্যতম সেনাপতি হচ্ছেন। তাই তার কাঁধের ওপর ভর করেই বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব বাংলার নির্বাচনী বৈতরণী পার হতে তৎপর হয়ে উঠেছে।

জানা গেছে, দুর্গাপূজা উৎসব থেকে শুরু করে বিভিন্ন রাজনৈতিক কর্মসূচি, সমস্ত কিছুতেই প্রথম সারিতে দেখা যাচ্ছে মুকুল রায়কে। বর্তমানে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ‌। তাই সেভাবে কোনো কর্মসূচিতে দেখা যাচ্ছে না তাঁকে। অন্যদিকে রাহুল সিনহার মত নেতা কিছুটা হলেও দলের ওপর ক্ষুব্ধ। কেননা তাকে কেন্দ্রীয় সম্পাদক পদ থেকে সরিয়ে দিয়ে সেই জায়গায় দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে অনুপম হাজরাকে।

যার ফলে রাহুল সিনহা প্রকাশ্যেই ক্ষোভ প্রকাশ করতে শুরু করেছেন। স্বাভাবিকভাবেই তিনি তার রাজনৈতিক ভবিষ্যৎ নিয়ে কি অবস্থান স্পষ্ট করবেন, তা এখনও কারও অজানা নয়। তাই এই পরিস্থিতিতে আগামী বিধানসভা নির্বাচনের আগে মুকুল রায়ের হাত দিয়েই বাংলার বিজেপির পরিস্থিতিকে আরও চাঙ্গা করতে চাইছেন নরেন্দ্র মোদী এবং অমিত শাহ বলে দাবি করছেন বিশেষজ্ঞরা। তাই সমস্ত কর্মসূচিতেই কার্যত প্রথম সারিতে দেখা যাচ্ছে সেই মুকুল রায়কে।


ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

অনেকে বলছেন, বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব খুব ভাল করেই জানেন, বাংলায় তৃণমূলের ঘর ভাঙতে মুকুল রায়ের ভূমিকা অনস্বীকার্য। গত লোকসভা নির্বাচনের আগে এবং পরে যেভাবে তৃণমূলের নেতা কর্মী, সাংসদ, বিধায়ক গেরুয়া শিবিরে যোগদান করিয়েছেন তিনি, তাতে বিজেপির গুরুত্ব অনেকটাই বৃদ্ধি পেয়েছে। তাই সামনে যখন বিধানসভা নির্বাচন, তখন সেই মুকুল রায়কে আরও গুরুত্ব দিতে চাইছে ভারতীয় জনতা পার্টি।

সেদিক থেকে দিলীপ ঘোষ বা রাহুল সিনহার মত নেতাদের সামনের সারিতে দেখা যাচ্ছে না। যার ফলে অনেকে বলছেন, বিজেপির সর্বভারতীয় চাইছেন বাংলায় পরিবর্তন আনতে সাংগঠনিক ব্যক্তিত্বদের সামনের সারিতে নিয়ে আসার জন্য। তাই তিনি খুব ভালো করেই জানেন, মুকুল রায় দক্ষ সাংগঠনিক ব্যক্তিত্ব দিয়ে বুথের সংগঠনকে চাঙ্গা করতে সক্ষম। স্বাভাবিকভাবেই সেই জায়গায় এখন মুকুল রায়কে সমস্ত দিকের দায়িত্ব দেওয়া হচ্ছে।

তবে মুকুল রায়কে যদি একতরফাভাবে সমস্ত দায়িত্ব দেওয়া হয়, তাহলে দিলীপ ঘোষ বা রাহুল সিনহার মত হেভিওয়েট নেতাদের গোষ্ঠীরা বিক্ষুব্ধ হয়ে উঠতে পারেন বলেও আশঙ্কা করছেন একাংশ। তবে বিজেপির অনেকে বলছেন, এরকম কোনো সম্ভাবনা নেই। কারণ এখন সকলের একটাই লক্ষ্য, রাজ্যে পরিবর্তন। তাই তৃণমূলকে সরাতে দলের মধ্যে কোনো ক্ষোভ বিক্ষোভ থাকবে না। সকলে একযোগে কাজ করবেন। সব মিলিয়ে যত দিন যাচ্ছে, ততই বিজেপিতে গুরুত্ব বৃদ্ধি পাচ্ছে মুকুল রায়ের বলে দাবি রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!