এখন পড়ছেন
হোম > রাজনীতি > তৃণমূল > বিজেপির ইশতেহার প্রকাশ হতেই সোচ্চার অভিষেক, টুইট করে জানালেন প্রতিবাদ!

বিজেপির ইশতেহার প্রকাশ হতেই সোচ্চার অভিষেক, টুইট করে জানালেন প্রতিবাদ!



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – নির্বাচনী লড়াই যখন কার্যত জমে উঠেছে, ঠিক তখনই রবিবার নির্বাচনী ইশতেহার প্রকাশ করে কার্যত চমক দিয়েছে ভারতীয় জনতা পার্টি। সমাজের সকল স্তরের মানুষের জন্য তাদের ইস্তেহার বলে দাবি করেছেন বিজেপির সর্বভারতীয় চাণক্য তথা কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। কলকাতায় তার হাত ধরে বিজেপির পক্ষ থেকে এই ইশতেহার প্রকাশ করা হয়েছে।

স্বাভাবিক ভাবেই গেরুয়া শিবির এই ইশতেহার প্রকাশ করতে না করতেই এবার তৃণমূলের পক্ষ থেকে কড়া ভাষায় আক্রমণ করার প্রক্রিয়া শুরু হয়ে গেল। এদিন বিজেপি এই ইশতেহার প্রকাশ করার পরেই টুইটে প্রতিবাদ জানাতে দেখা গেল তৃণমূল যুব কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সভাপতি তথা সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে।

সূত্রের খবর, রবিবার বিজেপির “সংকল্পপত্র” প্রকাশ করেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। আর তারপরই এই গোটা বিষয়টি সোচ্চার হোন তৃণমূলের অলিখিত সেকেন্ড-ইন-কমান্ড অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। একটি টুইট করে তিনি লেখেন, “বাংলায় ভোটের জন্য গুজরাটির হাতে মিথ্যায় ভরা ইশতেহার প্রকাশিত হল। 294 টি কেন্দ্রে প্রার্থী খুঁজে পায় না একটা দল। এই ধরনের অনুষ্ঠানের জন্য রাজ্যের নেতাও নেই।”

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

অর্থাৎ বিজেপি যতই তাদের ইশতেহারে চমকপ্রদক কথা বলুক না কেন, এক্ষেত্রে বাংলার ইস্তেহার প্রকাশের জন্য গুজরাটের বাসিন্দা তথা কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে কেন আনা হল! সেই বিষয়টি তুলে ধরে এদিন গেরুয়া শিবিরের উদ্দেশ্যে প্রশ্ন ছুড়ে দিয়েছেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। এক্ষেত্রে তৃণমূলের পক্ষ থেকে প্রতিনিয়ত বিজেপিকে কটাক্ষ করা হয়, তাদের সঠিক মুখ নেই। আর বিজেপির ইশতেহার প্রকাশের পর টুইটে সেই কথাই তুলে ধরে গেরুয়া শিবিরকে আরও একবার কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়ে দিলেন ডায়মন্ড হারবারের তৃণমূল সাংসদ বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

একাংশ বলছেন, বিজেপির পক্ষ থেকে ইশতেহারে যে সমস্ত কথা তুলে ধরা হয়েছে, তাতে তৃণমূল কিছুটা হলেও চাপে পড়েছে। সমাজের সর্বস্তরের মানুষের উন্নয়নের কথা বলে রীতিমত ইশতেহার প্রকাশের দিক থেকেও ঘাসফুল শিবিরকে চাপে ফেলে দিয়েছে ভারতীয় জনতা পার্টি। আর এই পরিস্থিতিতে সেই গোটা বিষয়ে বাংলার কোনো নেতা ইশতেহার প্রকাশ করতে কেন পারলেন না ?

সেই কথা তুলে ধরে বিজেপির বিরুদ্ধে বাংলা বিদ্বেষী তকমা আরও একবার সাটিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করলেন তৃণমূল যুব কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সভাপতি বলে দাবি করছেন একাংশ। অর্থাৎ এক্ষেত্রে বাংলার আবেগের কথা তুলে ধরে বিজেপির বাংলার কোনো নেতা নেই বলে সোচ্চার হলেন তিনি। সব মিলিয়ে ইশতেহার প্রকাশের সাথে সাথেই বিজেপিকে অন্য আঙ্গিকে আক্রমণ করে রীতিমত শোরগোল তুলে দিলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!