এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > বিজেপি শাসিত রাজ্যে নিয়োগ কেলেঙ্কারি, গ্রেপ্তার সাংসদ-কন্যা সহ ১৯

বিজেপি শাসিত রাজ্যে নিয়োগ কেলেঙ্কারি, গ্রেপ্তার সাংসদ-কন্যা সহ ১৯



অসম সিভিল সার্ভিসে নিয়োগ সংক্রান্ত কেলেঙ্কারীর জেরে গেরুয়া শিবিরের একাধিক নেতা মন্ত্রীর নাম প্রকাশ্যে এলো। জানা দীর্ঘ এই নামের তালিকায় রয়েছেন বহু বিজেপি সাংসদ , বিধায়ক এবং তাঁদের পরিবারের সদস্যেরা।  অসম পাবলিক সার্ভিস কমিশনে টাকার বদলে চাকরির এই কেলেঙ্কারিতে তেজপুরের বিজেপি সাংসদের মেয়ে-সহ ১৯ জন , রাজ্যের এক বিজেপি বিধায়কের ভাইঝি কে গ্রেফতার করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার ধৃত সকলেই আদালতে পেশ করা হবে।ডিব্রুগড় পুলিশের পক্ষ থেকে ধৃতদের হাতের লেখা পরীক্ষার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

সেই মতন বৃহস্পতিবার অসম স্পেশাল ব্রাঞ্চের সদর দফতর গুয়াহাটির কাহেলিপাড়ায় তাদের হাতের লেখার পরীক্ষা নেওয়া হবে। কারণ  অভিযুক্তদের উত্তরপত্রের ফরেনসিক পরীক্ষা করে অনিয়মের প্রমাণ পাওয়ার পরেই গ্রেফতারির সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এই ঘটনা প্রসঙ্গে ডিব্রুগড়ের পুলিশ সুপার গৌতম বড়ুয়া জানান যে, অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে নিয়োগ প্রক্রিয়ায় দুর্নীতির প্রমাণ পাওয়া গিয়েছে। ফরেনসিক পরীক্ষাতেও অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে জালিয়াতির প্রমাণ পাওয়া গিয়েছে। তিনি আরও জানিয়েছেন যে কয়েকজন পরীক্ষার্থী একাধিক ভুয়ো উত্তরপত্র জমা দিয়েছিলেন।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

 এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

উল্লেখ্য  অসমের কম্বাইন্ড কম্পিটিটিভ এগজাম-১৪-তে এই দুর্নীতি ঘটেছিলো। এই পরীক্ষায় অভিযুক্তরা সকলেই পরীক্ষার্থী ছিলেন। ২০১৬ সালে তাঁদের নিয়োগ হয়। অভিযুক্তরা অসম সিভিল সার্ভিস কমিশনের অফিসারদের প্রচুর টাকা ঘুষ দিয়েছিল বলে অভিযোগ উঠেছে। গ্রেফতার হওয়া অভিযুক্তদের তালিকায় রয়েছেন ১৩ জন সিভিল সার্ভিস অফিসার, এছাড়াও অসম পুলিশ সার্ভিস এবং অ্যালায়েড সার্ভিস থেকে ৩ জন করে রয়েছেন। অভিযুক্ত সিভিল সার্ভিস অফিসাররা হলেন, উৎপল ভুঁইয়া, বর্ণালী দাস, সুশোভন দাস, ধ্রুবজ্যোতি চক্রবর্তী, মঞ্জুর ইলাহি লস্কর,  মুন মজুমদার, মুস্তফা আহমেদ বারভুঁইয়া, মহম্মদ সইবুর রহমান বারভুঁইয়া, মনিকা তেরনপি, গণেশচন্দ্র দাস, শ্রাবন্তী সেনগুপ্ত, দীপশিখা ফুকন, লীনাকৃষ্ণ কাকতি। অসম পুলিশ সার্ভিসের অফিসাররা হলেন, গুলসান দাওলাগপু, পল্লবী শর্মা( বিজেপি সাংসদ আরপি শর্মার মেয়ে) এবং ভার্গব ফুকন।

বাকি অফিসারা হলেন, সুরঞ্জিতা হাজারিকা, ঋতুরাজ নিয়োগ এবং নিপনকুমার পাঠন। গ্রেফতার হওয়া সিভিল সার্ভিস অফিসার মনিকা তেরনপি অসমের বিজেপি বিধায়ক জয়রাম এংলং-এর ভাইঝি বলে জানা গিয়েছে। যদিও অসমের বিজেপি সাংসদ আরপি শর্মা তাঁর মেয়ের নাম এই তালিকায় অন্তর্ভুক্তির জন্যে বিরোধীদের চক্রান্তের ছায়া দেখতে পাচ্ছেন। তাঁর মতে আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের প্রাক্কালের দলের এবং তাঁর ভাবমূর্তি নষ্ট করার লক্ষ্যেই তাঁর মেয়েকে অভিযুক্ত ঠাহর করা হয়েছে।

 

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!