এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > পুড়ল বিজেপির দলীয় পতাকা, বিক্ষোভ-অবরোধে উত্তাল কালিয়াগঞ্জ, ক্রমশ চড়ছে উত্তেজনার পারদ

পুড়ল বিজেপির দলীয় পতাকা, বিক্ষোভ-অবরোধে উত্তাল কালিয়াগঞ্জ, ক্রমশ চড়ছে উত্তেজনার পারদ



 

হাতে আর মাত্র কিছুদিন বাকি। তারপরেই কালিয়াগঞ্জ বিধানসভা উপনির্বাচন। প্রশাসন থেকে শুরু করে সমস্ত রাজনৈতিক দল, প্রায় সকলেই চাইছে সুষ্ঠুভাবেই হোক এই নির্বাচন। কিন্তু বাংলায় নির্বাচন সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হবে, এমন ধারণা প্রায় কম লোকেরই আছে। তবে তিন বিধানসভা কেন্দ্রের উপনির্বাচন শান্তিপূর্ণ হবে হবে বলেই মনে করেছিল একাংশ।

কিন্তু এবার কালিয়াগঞ্জ বিধানসভা উপনির্বাচনের আগে বিজেপির দলীয় পতাকা পোড়ানোকে কেন্দ্র করে রণক্ষেত্র হয়ে উঠল এলাকা। জানা গেছে, গত শুক্রবার গভীর রাতে কালিয়াগঞ্জের বীরঘইয়ের সড়াই গ্রামে বিজেপির নির্বাচনী প্রচার এর পতাকা পুড়িয়ে দেয় কিছু দুষ্কৃতী।

এদিকে শনিবার সকালে বিজেপি নেতা কর্মীদের নজরে সেই পোড়া পতাকা এলে ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেন গেরুয়া শিবিরের কর্মী সমর্থকরা। খবর পেয়ে এলাকায় ছুটে আসেন উত্তর দিনাজপুর জেলা বিজেপির সভাপতি নির্মল দাম, সাধারণ সম্পাদক বিশ্বজিৎ লাহিড়ী সহ অন্যান্য নেতৃত্বরা। আর এরপরই দলীয় পতাকা এইভাবে কেন পোড়ানো হল!

সেই প্রশ্ন তুলে সকাল আটটা থেকে রুপাহারে জাতীয় সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন বিজেপির নেতা কর্মীরা। আর বিজেপির এই জাতীয় সড়ক অবরোধের ফলে এলাকায় ব্যাপক যানজটের সৃষ্টি হয়। অফিস কাছারি থেকে নিত্যযাত্রীরা প্রবল দূর্ভোগে পড়েন। পরে পুলিশের হস্তক্ষেপে এগারোটা নাগাদ সেই অবরোধ উঠে যায়। আর নির্বাচনের আগে এই ভাবে বিজেপির পতাকা পুড়িয়ে ফেলায় এলাকায় তীব্র চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে। ইতিমধ্যেই এই ব্যাপারে তৃণমূলের দিকে অভিযোগের আঙুল তুলেছে গেরুয়া শিবির।

ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

এদিন এই প্রসঙ্গে উত্তর দিনাজপুর জেলা বিজেপির সভাপতি নির্মল দাম বলেন, “তৃণমূল এলাকায় অশান্তি পাকানোর ছক করছে। তাদের আশ্রিত দুষ্কৃতীরা আমাদের দলীয় পতাকা পুড়িয়েছে। এনিয়ে আমরা মানুষের দরবারে যাব।” একইভাবে উপনির্বাচনের আগে পরিকল্পনামাফিক তৃণমূল এখানে অশান্তি পাকাতে চাইছে বলে জানান উত্তর দিনাজপুর জেলা বিজেপির সাধারণ সম্পাদক বিশ্বজিৎ লাহিড়ী।

তবে তৃণমূলের তরফে বিজেপির তোলা এই অভিযোগকে সম্পূর্ণরূপে অস্বীকার করা হয়েছে। এদিন এই প্রসঙ্গে তৃণমূলের রাজ্য সম্পাদক অসীম ঘোষ বলেন, “বিজেপি নিজেরাই ষড়যন্ত্র করে মানুষকে বিভ্রান্ত করার চেষ্টা করছে। এলাকার মানুষ নির্বাচনে এর জবাব দেবেন‌। তৃণমূল এসব নোংরা কাজকর্মে থাকে না।”

রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকরা বলছেন, কালিয়াগঞ্জ বিধানসভা উপনির্বাচনের আগে যেভাবে বিজেপির দলীয় পতাকা পুড়ল এবং একই কেন্দ্র করে যেভাবে বিজেপি তৃণমূলের দিকে অভিযোগের আঙুল তুলল, তাতে তৃণমূল নির্বাচনের আগে কিছুটা হলেও অসুবিধায় পড়তে পারে বলে মত রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!