এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > অভিষেক ব্যানার্জীর হাত ধরে বিজেপি ‘প্রার্থীকে’ দলে নিতে চলেছে তৃণমূল কংগ্রেস

অভিষেক ব্যানার্জীর হাত ধরে বিজেপি ‘প্রার্থীকে’ দলে নিতে চলেছে তৃণমূল কংগ্রেস



গতকদিনের গুঞ্জনকে মান্যতা দিয়ে এবার অবশেষে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দিতে চলেছেন মুকুল রায়ের খাসতালুক বীজপুরের বিজেপির ‘বিদ্রোহী’ নেত্রী আলোরানি সরকার। সূত্রের খবর সত্যি হলে তিনি ও বিজেপির আরো ছজন পদাধিকারী আজ তৃণমূল যুব কংগ্রেস সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের হাত থেকে দলীয় পতাকা নিয়ে আনুষ্ঠানিক ভাবে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দিতে পারেন। প্রসঙ্গত, আলোরানি সরকার ২০১৬ সালে বিজেপির টিকিটে বীজপুর থেকে মুকুল রায়ের পুত্র শুভ্রাংশু রায়ের বিরুদ্ধে প্রার্থী হয়েছিলেন। কিন্তু মুকুল রায় তৃণমূল কংগ্রেস ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিতেই তিনি কার্যত বিদ্রোহ ঘোষণা করে বসেন। একের পর এক বিস্ফোরক অভিযোগ আনেন মুকুল রায় ও তাঁর পুত্র শুভ্রাংশু রায়ের বিরুদ্ধে। এমনকি মুকুল বাবু ও তাঁর পুত্র আলোরানি দেবীর বাড়িতে ‘তোলাবাজ’ পাঠিয়ে ১৮ লক্ষ টাকা চেয়েছিলেন বলেও দাবি করেন তিনি।

কিন্তু মুকুলবাবু ও শুভ্রাংশু রায় দুজনের বিরুদ্ধে মুখ খুললেও, শুভ্রাংশু বাবু এখনো তৃণমূলেই আছেন। এমনকি রাজ্যের খাদ্যমন্ত্রী তথা উত্তর ২৪ পরগনা তৃণমূল কংগ্রেস জেলা সভাপতি জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকের সঙ্গে তিনিও উপস্থিত থাকতে পারেন আজকের যোগদান অনুষ্ঠানে। সেই প্রসঙ্গে আলোরানি দেবীর বক্তব্য, আমি বীজপুরের মানুষের পাশে থাকতে চেয়ে মুকুল রায়ের দুর্নীতির বিরুদ্ধে লড়াইয়ে সামিল হতেই রাজনীতিতে এসেছিলাম, নাম লিখিয়েছিলাম বিজেপিতে। সেই বিজেপি এখন মুকুল রায়দেরই আশ্রয় দিচ্ছে। তাই বিজেপি ছাড়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। মানুষের জন্য কাজ করতে চাই, সেই কারণেই তৃণমূল কংগ্রেসে ফিরলাম। মুকুল রায়দের মতো দুর্নীতিপরায়ণ রাজনীতিবিদদের বিরুদ্ধে লড়াই বলবত্‍ থাকবে। আমার কাছে মুকুল রায়ই ফ্যাক্টর। শুভ্রাংশু নয়, শুভ্রাংশুর সঙ্গে একসঙ্গে লড়াই করতে বা মঞ্চ শেয়ার করতে তার কোনও আপত্তি নেই, আসল লোক মুকুল রায়। তিনিই তো এখন বিজেপিতে। মুকুল রায় যে দলে রয়েছেন, সেই দলে থেকে একই মঞ্চ শেয়ার করার মানসিকতা নেই। তাই বিজেপি ত্যাগের সিদ্ধান্ত। দল নয়, আমার কাছে আদর্শই আগে, বীজপুরবাসীর কাছে আমি দায়বদ্ধ। তাঁদের জন্যই আমার এই লড়াই।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!