এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > কংগ্রেসের প্রতি নরম মনোভাব দেখিয়ে বিজেপির বিরুদ্ধে “ক্ষমতার অপব্যবহারের” অভিযোগ এনে অস্বস্তি বাড়াল এনডিএ শরিক

কংগ্রেসের প্রতি নরম মনোভাব দেখিয়ে বিজেপির বিরুদ্ধে “ক্ষমতার অপব্যবহারের” অভিযোগ এনে অস্বস্তি বাড়াল এনডিএ শরিক



লোকসভা ভোটের দিন যত এগিয়ে আসছে ততই যেন অস্বস্তি বাড়তে শুরু করেছে বিজেপির। আর এবারে কেন্দ্রের বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে এই অগুস্থা ওয়েস্টল্যান্ড কেলেঙ্কারিতে ক্ষমতার অপব্যবহার করার অভিযোগ এনে সরব হল কেন্দ্রের এনডিএ সরকারেরই জোট শরিক শিবসেনা। এতদিন দেশের অন্যান্য বিরোধী দলগুলো কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে সিবিআই দিয়ে বিরোধী দলগুলিকে হেনস্থা করার অভিযোগ তুলত।

এদিন সেই কেন্দ্রের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলে সরব হল শিবসেনাও। তাদের অভিযোগ, লোকসভা ভোটের আগে কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সভাপতি রাহুল গান্ধী এবং সোনিয়া গান্ধীকে ব্যাকফুটে ফেলতেই কেন্দ্রের পক্ষ থেকে সরকারি এজেন্সিগুলোকে দিয়ে বিরোধীদের প্রতি চাপ সৃষ্টি করা হচ্ছে।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, সম্প্রতি কেন্দ্রের এনফর্সমেন্ট ডিরেক্টর জানিয়ে দিয়েছে যে, এই অগুস্থা ওয়েস্টল্যান্ড কপ্টার কেলেঙ্কারি মামলায় গ্রেফতার হওয়া মূল মধ্যস্থতাকারী ক্রিশ্চিয়ান মিচেল জেরায় মিসেস গান্ধী এবং রাহুলের কথা স্বীকার করে নিয়েছেন।

 

ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

সূত্রের খবর, এনডিএর জোট শরিক শিবসেনা তাঁদের মুখপাত্রে দাবি করেছে যে, এই মিচেলকে যখন দুবাই থেকে গ্রেফতার করা হয়েছিল তখন দেশের পাঁচ রাজ্যের বিধানসভা ভোট দরজায় কড়া নাড়ছিল। আর তখন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীই এই অগুস্তা মামলায় মধ্যস্থতাকারীর নাম বলেছিলেন। আর এখানেই শিবসেনার অভিযোগ যে, 5 রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচনে পরাজয়ের ভয়েই প্রধানমন্ত্রী এই মিচেলের নাম বলে দিয়েছিলেন।

পাশাপাশি মধ্যস্থতাকারী হিসেবে মিচেলকে জেরা করার আগেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির তরফে অগুস্তা কেলেঙ্কারি মামলায় কংগ্রেসের গান্ধী পরিবারের দিকে অভিযোগ তোলায় গেরুয়া শিবিরের উদ্দেশ্যে তীব্র কটাক্ষ শানিয়েছেন কেন্দ্রের শরিক শিবসেনা।

এমনকি 2014 সালে ক্ষমতায় আসার আগে রাম মন্দিরের প্রতিশ্রুতি দিয়েও এখন সেই প্রতিশ্রুতি পূরণ করতে না পারায় এই অগুস্তা কপ্টার কেলেঙ্কারির মতো বিষয়কে এনে 2019 এর লোকসভা ভোটের বৈতরণী পার হতে চাইছে কেন্দ্রের বিজেপি সরকার বলেও অভিযোগ করেছেন শিবসেনা নেতারা।

এদিকে শিবসেনার দলীয় মুখপাত্র সামনায় অগুস্তা কপ্টার কেলেঙ্কারিতে বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ এবং অন্যান্য নেতাদের ক্লিনচিট দেওয়ার বিষয়টিও সামনে আনা হয়। রাজনৈতিক মহলের মতে, সামনেই লোকসভা নির্বাচন। আর সেই লোকসভা নির্বাচনের আগে এই কেন্দ্রের এনডিএ সরকারের জোট শরিক শিবসেনাও বিজেপির ওপর অনাস্থা প্রকাশ করে গেরুয়া শিবিরের বিরুদ্ধেই লড়ার ইঙ্গিত দিলেন।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!