এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > বিজেপি বিরোধিতার নামে দেশবিরোধী মন্তব্য? রাগে- লজ্জায় দল ছাড়ছেন একের পর এক প্রভাবশালী নেতা!

বিজেপি বিরোধিতার নামে দেশবিরোধী মন্তব্য? রাগে- লজ্জায় দল ছাড়ছেন একের পর এক প্রভাবশালী নেতা!



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট –  এবার বিজেপির বিরোধিতা করতে গিয়ে দেশ বিরোধীতার অভিযোগ উঠল কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মেহেবুবা মুফতির বিরুদ্ধে। স্বাভাবিকভাবেই এই ঘটনার প্রতিবাদ করে দল ছাড়তে চলেছেন পিডিপির অনেক সদস্য। যে ঘটনায় কার্যত অস্বস্তিতে পড়েছেন সেই মেহেবুবা মুফতি। বস্তুত, দীর্ঘ 14 মাস গৃহবন্দি থাকার পর গত 13 ই অক্টোবর মুক্তি পেয়েছেন কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী।

আর তারপরেই ভূস্বর্গে 370 ধারা ফেরানোর পক্ষে সওয়াল করতে দেখা গেছে। শুধু তাই নয়, কাশ্মীরের পতাকা ফেরানোর দাবি জানিয়ে ভারতের পতাকা তারা মানবেন না বলেও জেহাদ ঘোষণা করেছেন মেহেবুবা মুফতি। স্বাভাবিকভাবেই বিজেপির বিরোধিতা করতে গিয়ে যেভাবে তিনি ভারতের বিরোধিতা করলেন, তা নিয়ে তার দলের অনেক সদস্যই এবার প্রশ্ন তুলে দলত্যাগ করতে চলেছেন।

সূত্রের খবর, ইতিমধ্যেই পিডিপি প্রধান তথা কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মেহেবুবা মুফতিকে একটি চিঠি পাঠিয়েছেন টিএস বাজওয়া, বেদ মহাজন এবং হুসেন এ ওয়াফা। যেখানে দলত্যাগ করার কারণ হিসেবে তারা স্পষ্ট ভাষায় জানিয়ে দিয়েছেন যে, মেহেবুবা মুফতির কিছু কাজকর্ম এবং কথাবার্তার জন্য তারা অপ্রস্তুত হয়ে পড়ছেন। বিশেষ করে দেশপ্রেমে আঘাত লাগতে শুরু করেছে। যা যথেষ্ট অস্বস্তিকর। তাই তারা দলত্যাগ করার মত পদ্ধতিকে বেছে নিয়েছেন।

একাংশ বলছেন, মেহেবুবা মুফতি কিছুদিন আগে জেহাদ ঘোষণা করে দেশের পতাকা অমান্য করার কথা বলেছেন। অর্থাৎ কাশ্মীরের জন্য যদি পৃথক পতাকা  দেওয়া না হয়, তাহলে তারা ভারতের পতাকা মানবেন না বলে রীতিমতো জেহাদ ঘোষণা করেছিলেন এই নেত্রী। আর এর পরেই গোটা দেশজুড়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছিল, ভারতের মধ্যে বাস করে একজন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী কি এই ধরনের মন্তব্য করতে পারেন?


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

এটা কি দেশ বিরোধী কাজ নয়! তবে তার এই মন্তব্যের জন্যে যে তাকে অনেকটাই কসুর করতে হবে, তা হয়তো কল্পনা করেননি মেহেবুবা মুফতি। অবশেষে এইরকম ভারতবিরোধী মন্তব্যের জন্য এবার তাকে বড়সড় ক্ষতির সম্মুখীন হতে হল। তার দলের তিন নেতার এইভাবে দলত্যাগ নিঃসন্দেহে মেহেবুবা মুফতির ভাবমূর্তিকে প্রশ্নচিহ্নের মুখে ঠেলে দিল বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

অনেকেরই প্রশ্ন, দেশে শাসক-বিরোধী তরজা থাকবে। রাজনীতি থাকবে। একে অপরকে কটাক্ষ, আক্রমণ সমস্ত কিছুই থাকবে। কিন্তু তার জন্য যে দেশে আমরা বসবাস করছি, সেই দেশের পতাকাকে অমান্য করার কথা বলা কি ঠিক? যদিও বা এই কথা অন্য কারও মুখে মানায়। কিন্তু খোদ দেশের একজন জনপ্রতিনিধি এই ধরনের কথা বলবেন, তা আদৌ মানা যে সত্যিই কষ্টকর, তা মুহুর্তের মধ্যে বুঝিয়ে দিলেন সেই মেহেবুবা মুফতির দলের সদস্যরা। যার ফলে এখন অনেকটাই উজ্জীবিত হয়ে মেহেবুবা মুফতিকে কটাক্ষ করতে শুরু করেছে ভারতীয় জনতা পার্টি।

এদিন এই প্রসঙ্গে জম্মু-কাশ্মীরের বিজেপি সভাপতি রবীন্দর রানা বলেন, “জম্মু-কাশ্মীরের প্রতিটি মানুষ তেরঙ্গাকে ভালোবাসে। তাই সকাল থেকে শ্রীনগরের প্রতিটি রাস্তায় তেরেঙ্গা নিয়ে মিছিল হচ্ছে।” সব মিলিয়ে মেহেবুবা মুফতির বিতর্কিত মন্তব্যের জেরে এবার তার দল থেকে যেভাবে নেতাকর্মীদের বেরিয়ে আসতে দেখা যাচ্ছে, তাতে তিনি যে অনেকটাই অস্বস্তিতে পড়ে গেলেন, সেই ব্যাপারে নিশ্চিত বিশেষজ্ঞরা।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!