এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > ঘরের ছেলেদের ঘরে ফেরাতে মারিয়া,শেষ চেষ্টায় বিজেপি নেতৃত্ত্ব

ঘরের ছেলেদের ঘরে ফেরাতে মারিয়া,শেষ চেষ্টায় বিজেপি নেতৃত্ত্ব



সঙ্গ ছাড়ছে সব বড় শরিক, আবার তাদের ঘরে ফেরানোর শেষ চেষ্টায় বিজেপি নেতৃত্ত্ব।
এনডিএ জোট থেকে তেলেগু দেশম পার্টি নাম প্রত্যাহার করে নেওয়ার পর বিজেপির কেন্দ্রীয় সংগঠন কার্যত নড়েচড়ে বসেছে। জোট শক্তিকে আবার ও মজবুত করার লক্ষ্যে শুক্রবার মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফড়নবিশ মুম্বইয়ের একটি রিসর্টে শিবসেনা সাংসদ তথা কেন্দ্রীয়মন্ত্রী অনন্ত গীতের সঙ্গে ক্লোস্‌ড ডোর বৈঠক করলেন। পূর্ব উল্লিখিত দুই নেতা ছাড়া ও এদিনের বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন মহারাষ্ট্রের প্রদেশ বিজেপি সভাপতি রাওসাহেব দানভে। সূতের খবর অনুসারে ফড়নবিশ এবং দানভে , গীতেকে বোঝানোর চেষ্টা করেন যাতে অনাস্থা প্রস্তাব আনা হলে ভোটাভুটির সময় শিবসেনা যেন কেন্দ্রীয় সরকারের সাথে থাকে। যদিও শিবসেনা এখনও স্থির করেনি আদৌ তারা অনাস্থায় কেন্দ্রকে সমর্থন করবে কিনা। উল্লেখ্য লোকসভায় ৫৪৩ আসনের মধ্যে বিজেপির নিজের সাংসদই আছে ২৭৪ জন। টিডিপি সরে যাওয়ায় ১৬ জন সাংসদ কমে গিয়ে এখন শরিকদের মিলিয়ে এনডিএ-র মোট সাংসদ সংখ্যা হচ্ছে ৩১৫ জন। শিবসেনার রয়েছে ১৮ জন সাংসদ। বৃহস্পতিবার শিবসেনা নিজেদের মুখপত্র সামনায় লিখেছে, “২০১৪-য় ২৮২টি আসন জেতার পর গত চার বছরে ৯টি লোকসভা কেন্দ্রের উপনির্বাচনে হেরেছে বিজেপি। এমনকি গোবলয়েও বিজেপির শক্ত ঘাঁটি গোরখপুর এবং ফুলপুরও হাতছাড়া হয়ে গিয়েছে। ২০১৯-এ বিজেপির আসন সংখ্যা কমবে। “

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!