এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > একুশে জুলাই এর আগেই জল্পনা বাড়িয়ে বড়সড় রদবদল বিজেপিতে

একুশে জুলাই এর আগেই জল্পনা বাড়িয়ে বড়সড় রদবদল বিজেপিতে



রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসের শহীদ দিবস পালনের মাত্র কয়েক ঘন্টা আগেই গেরুয়া শিবিরের জেলা নেতৃত্বের আমুল পরিবর্তন। রাজ্যের বেশ কয়েকটি জেলার মোট ৮ টি লোকসভা নির্বাচনী কেন্দ্রের বিজেপি দলীয় সভাপতির পরিবর্তন হলো। দলের রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ এদিন একটি প্রেস রিলিজ করে এই প্রসঙ্গে বিস্তারিত জানালেন।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

 এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

সেই সূত্রে জানা গিয়েছে উত্তরবঙ্গের শিলিগুড়িতে বর্তমান সভাপতি প্রবীণ আগরওয়ালএর পরিবর্তে সভাপতি হলেন অভিজিৎ রায়চৌধুরী। উত্তর দিনাজপুরে নতুন জেলা সভাপতি হলেন শংকর চক্রবর্তী। এর আগে ছিলেন নির্মল দাম। কোচবিহারে কোচবিহারে নিখিল রঞ্জন দের জায়গায় এলেন মালতি রাভা। শ্রীরামপুরে ভাস্কর ভট্টাচার্যের পরিবর্তে এলেন নতুন জেলা সভাপতি সুমন ঘোষ। মালদায় সুব্রত কুণ্ডুর পরিবর্তে সভাপতি পদের দায়িত্ব পেলেন সঞ্জিত মিশ্র। বসিরহাটে প্রদীপ ব্যানার্জির পরিবর্তে দায়িত্ব পেলেন গণেশ ঘোষ। কাঁথিতে সোমনাথ রায়ের জায়গায় নতুন সভাপতির দায়িত্ব পেলেন তপন মাইতি। আর আরামবাগে বিজেপি সভাপতির পদের দায়িত্বভার পেলেন বিমান ঘোষ।

রাত পোহালেই একুশে জুলাই তৃণমূলের অন্দরে এখন জোরদার প্রস্তুতি চলছে। কিন্তু জল্পনা বাড়িয়ে এদিন বিজেপির অন্দরে বড়সড় রদবদল করা হলো সাংগঠনিক ক্ষেত্রে। বিজেপি থেকে একুশে জুলাই তৃণমূলে অনেক নেতা-নেত্রীর যেতে চলেছেন এমনটা বারবার সংবাদ মাধ্যমে শোনা গেছে। আর একুশে জুলাই এর আগেই বিজেপির অন্তরে এই রদবদল নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে রাজনৈতিক মহলের। তাদের প্রশ্ন শুধু সাংগঠনিক শক্তি বৃদ্ধির জন্যই নাকি অন্য কোন কারণেই এই তড়িঘড়ি রদবদল?

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!