এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > বিজেপিতে যোগদানে সংশয়ের সাথেই আরো বড় ধাক্কা মুকুল শিবিরে

বিজেপিতে যোগদানে সংশয়ের সাথেই আরো বড় ধাক্কা মুকুল শিবিরে



তৃণমূল কংগ্রেস ত্যাগের পর বিজেপিতে যাবেন না নিজের দল খুলে বিজেপির সমর্থনে ভবিষ্যতের রাস্তা হাঁটবেন, এখনো ঠিক করে উঠতে পারেননি একদা তৃণমূলের অঘোষিত দুনম্বর মুকুল রায়। এর মাঝেই খবর, বড় ধাক্কা খেলেন তিনি।কলকাতার এক নিউজ পোর্টালে প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, মুকুল রায়ের গর্বের সংখ্যালঘু ভোটব্যাংকের তথা সংখ্যালঘু ঘনিষ্ঠ নেতার কাছ থেকেই এলো এই অপ্রত্যাশিত ধাক্কা। বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, মুকুল রায় নিজে সরাসরি বিজেপিতে যোগ দিতে ইচ্ছুক। আর তাই তাঁর একদা ঘনিষ্ঠ নেতা ওয়াজেজুল হক তৃণমূল কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক তথা রাজ্য সভাপতি সুব্রত বক্সীর সঙ্গে বৈঠক করে তাঁর নেতৃত্ত্বাধীন বঙ্গীয় সংখ্যালঘু মঞ্চকে তৃণমূলের সংখ্যালঘু সেলের সঙ্গে মিশিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।
যদিও ওই একই খবরে প্রকাশিত, ওয়াজেজুল হক এই মিশিয়ে দেওয়ার কথা অস্বীকার করেছেন।তাঁর মতে তিনি বা তাঁর সংগঠন সবসময় তৃণমূলের সর্বময় নেত্রী মমতা বান্দ্যোপাধ্যাকে আদর্শ করেই পথ চলেছেন।যেহেতু একসময় মুকুল বাবু দলের অঘোষিত দু নম্বর ছিলেন তাই তাঁর সাথে ঘনিষ্ঠ ভাবে কাজ করেছেন। কিন্তু বর্তমানে মুকুলবাবু আর তৃণমূল কংগ্রেসে নেই বলে সুব্রত বক্সী বা তৃণমূলের সংখ্যালঘু সেলের প্রেসিডেন্ট হাজি নুরুল হকের সাথে আলোচনা করে আগামী কর্মসূচি নির্ধারণ করবেন। কিন্তু রাজনৈতিক মহলের ধারণা, বিজেপির সাথে ঘনিষ্ঠতা বাড়ানোতেই মুকুলবাবু তাঁর সাধের সংখ্যালঘু ভোটব্যাংকের কাছে এইভাবে মুখ ফিরিয়ে নেওয়া পাচ্ছেন, ফলে আগামীদিনে তাঁর পথ চলা আরো দুর্গম হচ্ছে বলায় বাহুল্য। যদিও এই খবরের সূত্র হিসাবে ওই নিউজ পোর্টালে কিছু উল্লেখ নেই, প্রিয়বন্ধু বাংলাও এই খবরের সত্যতা যাচাই করে দেখতে পারে নি। এই প্রবন্ধ সম্পূর্ণভাবে ওই পোর্টালে প্রকাশিত খবরের উপর ভিত্তি করে করা, কোনোভাবেই রাজনৈতিক উদ্দেশ্য প্রনোদিত নয়, এই প্রবন্ধ কোনো ব্যক্তি বা রাজনৈতিক দলের সম্মানহানির উদ্দেশ্যেও রচিত নয়।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!