এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগে বড়সড় দুর্নীতির ‘প্রমান’ সহ অভিযোগ আদালতে

প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগে বড়সড় দুর্নীতির ‘প্রমান’ সহ অভিযোগ আদালতে



প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগে বড়সড় দুর্নীতির অভিযোগ এনে আদালতের দ্বারস্থ হলো টেটে অনুত্তীর্ণ এক পরীক্ষার্থী৷ ওই পরীক্ষার্থীর নাম ত্রিদিব বাগ। এদিন তিনি অভিযোগ আনেন যে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের পরীক্ষায় ডাহা ফেল করেও দিব্যি চাকরি করছেন এক তরুণী। পাশাপাশি তিনি দাবি করেন প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ ইস্যুতে বড়সড় দুর্নীতি যে হয়েছে, এ ঘটনা তারই প্রমাণ। ২০১৪ সালের প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগে প্রায় ২২ লাখ চাকরিপ্রার্থী পরীক্ষা দিয়েছিল। প্রথম দফায় জেলাভিত্তিক নিয়োগের পর দ্বিতীয় দফায় চলতি বছরের ৪ ডিসেম্বর হুগলি জেলার ৬৮ জনকে নিয়োগ করে জেলা প্রাথমিক স্কুল সংসদ। ত্রিদিব বাবুর দাবি, ওই তালিকায় নাম ওঠে আরামবাগের বাসিন্দা পল্লবী মান্নার৷ সিঙ্গুরের বেড়াবেড়িয়ার মধুসূদন প্রাইমারি বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক হিসেবে বর্তমানে তিনি কর্মরত। কিন্তু ওই তরুণী প্রাইমারির টেট পরীক্ষায় ফেল করেছিলেন৷ যদিও শাসকদলের নেতা নেত্রীরা বা শিক্ষামন্ত্রীর কাছ থেকে এই নিয়ে কোনো প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি। বিষয়টি নিয়ে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে আদালত। বিরোধীরা অবশ্য সুর চড়াতে শুরু করে দিয়েছে এই নিয়ে।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!