এখন পড়ছেন
হোম > রাজনীতি > তৃণমূল > Big Breaking, এবার তৃণমূল ছাড়ছেন হেভিওয়েট নেত্রী, বড়সড় অস্বস্তিতে শাসকদল

Big Breaking, এবার তৃণমূল ছাড়ছেন হেভিওয়েট নেত্রী, বড়সড় অস্বস্তিতে শাসকদল



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – আগামী বিধানসভা নির্বাচনের প্রাক্কালে তৃণমূল কংগ্রেসে যে বারবার ভাঙ্গন চলছিল, সেই ভাঙ্গনের মাত্রাকে আরো বাড়িয়ে দিল তৃণমূলের প্রার্থী তালিকা প্রকাশ। এবারের প্রার্থী তালিকায় স্থান দেয়া হয়নি বহু বিধায়ককে। প্রার্থী তালিকা প্রকাশের পর থেকেই দলের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেছেন একাধিক বিধায়ক। প্রসঙ্গত, সাতগাছিয়ার বিধায়ক সোনালী গুহকে আগামী বিধানসভা নির্বাচনে প্রার্থী না করে তাঁর পরিবর্তে মোহন চন্দ্র নস্করকে প্রার্থী করা হয়েছে। এই ঘটনার পর কান্নায় ভেঙে পড়েছিলেন তৃণমূল নেত্রী সোনালী গুহ। এবার তৃণমূল ছাড়তে চলেছেন তিনি।

তৃণমূল ছেড়ে এবার বিজেপিতে যোগদান করতে চলেছেন তৃণমূলের হেভিওয়েট নেত্রী সোনালী গুহ। আগামীকাল প্রধানমন্ত্রীর জনসভায় বিজেপিতে যোগদান করতে চলেছেন তিনি। জানা গেছে, এ বিষয়ে বিজেপি নেতা মুকুল রায়ের সঙ্গে যোগাযোগ করেছেন তিনি। আজ সন্ধে ৭ টায় আবার তিনি সাক্ষাৎ করতে চলেছেন মুকুল রায়ের সঙ্গে। তিনি জানিয়েছেন যে, বিজেপির প্রার্থী হিসেবে নয়,দলে জায়গা পেলেই তিনি সন্তুষ্ট। অন্যদিকে, বিজেপি নেতা মুকুল রায় জানিয়েছেন যে, তাঁর বিষয় নিয়ে চিন্তাভাবনা করছে দল।

ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

প্রসঙ্গত, গতকাল রাতেই মুকুল রায়ের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছিলেন বিধায়ক সোনালী গুহ। তিনি ছাড়াও একাধিক নেতা-নেত্রী তাঁর সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। সোনালী গুহ জানিয়েছেন, আগামী নির্বাচনে প্রার্থী হতে চান না তিনি। তবে বিজেপির হয়ে নির্বাচনী প্রচারে অংশগ্রহণ করতে চান তিনি। বস্তুত, তৃণমূলের টিকিট না মেলায়, দলের প্রতি অপমানিত বোধ করেছেন তৃণমূল নেত্রী। মনে করেছেন, আর তাঁর উপরে ভরসা রাখছে না দল, দল থেকে তাঁকে তাই বাদ দেয়া হয়েছে।

গতকাল বিধানসভা নির্বাচনের প্রার্থী তালিকা থেকে তাঁর নাম বাদ দেওয়ার কথা জানতে পেরে কান্নায় ভেঙে পড়েছিল বিদায়ী বিধায়ক সোনালী গুহ। তিনি বলেছিলেন যে, মুখ্যমন্ত্রীর কাছ থেকে যে তিনি এটা পাবেন, তা তিনি ভাবতেও পারেননি। মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে তাঁর শুধু রাজনৈতিক নয়, পারিবারিক সম্পর্কও ছিল। এমনকি মুখ্যমন্ত্রীর বাড়িতে খুঁজলে, হয়তো তাঁর জামা, কাপড়ও পাওয়া যাবে। তাঁকে নিজের স্বামীর থেকেও বেশি সম্মান দিতেন তিনি। এবার তিনি একটা বড়সড় পদক্ষেপ নিতে চলেছেন।

 

 

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!