এখন পড়ছেন
হোম > রাজনীতি > তৃণমূল > বিগ ব্রেকিং – আজই কি ঘাসফুলে ফুটতে চলেছে মুকুল? জল্পনা চরমে!

বিগ ব্রেকিং – আজই কি ঘাসফুলে ফুটতে চলেছে মুকুল? জল্পনা চরমে!



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট –  অবশেষে কি আবার ঘরের ছেলে ঘরে ফিরে আসতে চলেছে? মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের একসময়কার বিশ্বস্ত সঙ্গী ছিলেন তিনি। কিন্তু 2017 সালে তৃণমূল কংগ্রেস ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন মুকুল রায়। কেউ স্বপ্নেও কল্পনা করতে পারেননি, তিনি মমতা বন্দোপাধ্যায়ের সঙ্গ ত্যাগ করতে পারেন। কিন্তু বিজেপিতে যোগদান করে একের পর এক নেতা ভাঙ্গানো থেকে শুরু করে লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূলের অস্বস্তি বাড়িয়ে দেওয়া, সবকিছুর মূলে ছিলেন বঙ্গ বিজেপির চাণক্য।

এমনকি 2021 সালের বিধানসভা নির্বাচনে তৃণমূলকে ক্ষমতাচ্যুত করবেন, এটাই তার প্রধান লক্ষ্য করে জানিয়ে দিয়েছিলেন মুকুল রায়। তবে তার সেই লক্ষ্য পূরণ হয়নি‌। বেশ কিছুদিন ধরেই মুকুল রায়কে নিয়ে জল্পনা ক্রমশ দানা বাঁধতে শুরু করেছিল। আর এবার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সংসর্গ ত্যাগ করা মুকুল রায় আবার ফিরে আসতে চলেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে।

সূত্রের খবর, আজই তৃণমূল ভবনে গিয়ে পাকাপাকিভাবে ঘাসফুল শিবিরে নাম রাখতে পারেন মুকুল রায়। যেখানে তার সঙ্গে তৃণমূলে যোগ দিতে পারেন তার পুত্র শুভ্রাংশু রায়ও। স্বাভাবিক ভাবেই বঙ্গ রাজনীতিতে এই জল্পনা চাউর হতেই রীতিমত শোরগোল পড়ে গিয়েছে। জানা গেছে, আজ শুক্রবার পুত্র শুভ্রাংশু রায় সহ নিজের একাধিক ঘনিষ্ঠদের নিয়ে একটি বৈঠক শুরু করেছেন মুকুল রায়। ভবিষ্যৎ পরিকল্পনার জন্যই তার এই বৈঠক বলে খবর।

আর সেই বৈঠক শেষে তিনি সরাসরি চলে যেতে পারেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে দেখা করতে। আর তারপরই তৃণমূল ভবনে পৌঁছে যেতে পারেন তৃণমূলের প্রাক্তন সেকেন্ড-ইন-কমান্ড। বিশ্লেষকরা বলছেন, মুকুল রায় যে বিজেপির সঙ্গে দূরত্ব বাড়াচ্ছেন, তা কদিন ধরেই খবর পাওয়া গিয়েছিল। বিজেপিতে যোগদান করার পর তার হাত ধরে লোকসভা নির্বাচনে ভারতীয় জনতা পার্টি ব্যাপক সাফল্য পাওয়ার পরেও তাকে ঠিকমত গুরুত্ব দেওয়া হয়নি।

সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি করা হয়েছিল মুকুল রায়কে। পরবর্তীতে বিধানসভা নির্বাচনের দায়িত্ব তার হাতে দেওয়া হবে বলে মনে করেছিলেন তার অনুগামীরা। কিন্তু শেষ পর্যন্ত দিলীপ ঘোষের নেতৃত্বে বাংলার বিধানসভা নির্বাচনে লড়াই করে ভারতীয় জনতা পার্টি। শুধু তাই নয়, কৃষ্ণনগর উত্তর বিধানসভা কেন্দ্র থেকে জয়লাভ করলেও মুকুল রায়কে বিরোধী দলনেতার পদ দেওয়া হয়নি।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

আর এই পরিস্থিতিতে ক্রমাগত দলের সঙ্গে তার দূরত্ব এবং তার সহধর্মিণী অসুস্থ হয়ে পড়ার পর দিলীপ ঘোষ দেখতে গেলেও, সেই ব্যাপারে নিরুত্তর ছিলেন মুকুলবাবু। অন্যদিকে মুকুল রায়ের সহধর্মিনী কৃষ্ণা রায়কে দেখতে হাসপাতালে ছুটে গিয়েছিলেন তৃণমূলের সেকেন্ড-ইন-কমান্ড অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। স্বাভাবিক ভাবেই এই পরিস্থিতিতে জল্পনা ক্রমশ বাড়তে শুরু করে। আর এবার নিজের ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা ঠিক করতে সেই মুকুল রায়ের বৈঠক রীতিমত তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

একাংশ বলছেন, বিধানসভা নির্বাচনের পর বিজেপিতে ভোটের আগে যারা নাম লিখিয়েছিলেন, তারা আবার তৃণমূলের ফেরার ব্যাপারে ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন। তবে তৃণমূল কংগ্রেস এই ব্যাপারে তাদের অবস্থান জানায়নি। সম্প্রতি মুকুল রায়কে নিয়ে যখন জল্পনা তৈরি হয়, তখন সুর নরম করতে দেখা যায় তৃণমূল সাংসদ সৌগত রায়কে।

আর এই পরিস্থিতিতে মুকুলবাবু যদি তৃণমূল কংগ্রেসে ফেরার ইচ্ছা প্রকাশ করেন, তাহলে তাকে অতি সহজেই শাসক দলের পক্ষ থেকে গ্রহণ করে নেওয়া হবে বলে মনে করা হয়েছিল। আর এর মাঝেই শুক্রবার খবরের শিরোনামে উঠে আসল সেই মুকুল রায়ের দলবদলের জল্পনা। সল্টলেকের বাড়িতে ইতিমধ্যেই বৈঠক শুরু করেছেন বঙ্গ রাজনীতির চাণক্য। আর সেই বৈঠক শেষে তার পরবর্তী পদক্ষেপ কী হয়, যে তৃণমূল ভবনে থেকে 2017 সাল পর্যন্ত দল পরিচালনা করতে দেখা গেছে মুকুল রায়কে, বিজেপি ত্যাগ করে আবার সেই তৃণমূল ভবনেই পা বাড়ান কিনা রায়সাহেব, সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!