এখন পড়ছেন
হোম > রাজনীতি > তৃণমূল > বিধানসভার লক্ষ্যে প্রশান্ত কিশোরের নতুন ‘ধাক্কা’ বিজেপিকে! ক্রমশ ঘুম উড়ছে মুকুল-দিলীপদের?

বিধানসভার লক্ষ্যে প্রশান্ত কিশোরের নতুন ‘ধাক্কা’ বিজেপিকে! ক্রমশ ঘুম উড়ছে মুকুল-দিলীপদের?



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – 2021 এর বিধানসভা নির্বাচনের আগে এবার ডিজিটাল ক্যাম্পেইনের ওপর ভরসা রেখে এগিয়ে যেতে শুরু করেছে তৃণমূল কংগ্রেস। ইতিমধ্যেই সেই ডিজিটাল ক্যাম্পেইনের মাধ্যমে তৃণমূল যাতে সাফল্য পায়, তার জন্য ফর্মুলা বাতলে দিয়েছেন প্রশান্ত কিশোর। আর ডিজিটাল অভিযানের তিন দিনের মাথায় বড় সাফল্য পাওয়া গেল। জানা গেছে, প্রশান্ত কিশোরের ভাবনায় তৃণমূল সম্প্রতি যে ডিজিটাল লড়াইয়ে নেমেছে, সেখানে মাত্র 3 দিনে সাড়া দিয়েছেন প্রায় 5 লক্ষ মানুষ। স্বাভাবিকভাবেই মাত্র তিন দিনের মধ্যে প্রায় 5 লক্ষ মানুষ তৃণমূলের এই কর্মসূচিতে সারা দেওয়ায় এখন শাসকদল অনেকটাই উজ্জীবিত।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, তৃণমূলের এই নতুন কর্মসূচির নাম দেওয়া হয়েছে “বিজেপি থেকে নিজেকে নিরাপদ রাখুন।” যেখানে ক্লিক করলেই আপনি বিজেপি থেকে নিজেকে সুরক্ষিত রাখতে পারবেন বলে জানানো হচ্ছে। ইতিমধ্যেই এই কর্মসূচির সাফল্য ধরে রাখতে একটি ওয়েবসাইট খোলা হয়েছে। যার নাম দেওয়া হয়েছে, “সেফ বেঙ্গল ফর্ম বিজেপি।” তবে তৃণমূলের কেউ কল্পনাও করতে পারেননি যে, এই কর্মসূচিতে মাত্র তিনদিনের মধ্যে এত সংখ্যক মানুষের সমর্থন পাওয়া যাবে। কিন্তু প্রায় 5 লক্ষ মানুষের সমর্থন দেখে তৃণমূল এখন অনেকটাই উজ্জীবিত। তাদের দাবি, এই কর্মসূচিতে মানুষের সমর্থন বুঝিয়ে দিচ্ছে যে, আগামী বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপি বাংলায় খুব একটা ভালো ফল করতে পারবে না।

ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, গত লোকসভা নির্বাচনের পর তৃণমূলের দায়িত্ব নিয়েছিলেন প্রশান্ত কিশোর। যেখানে “দিদিকে বলো” কর্মসূচি থেকে শুরু করে “বাংলার গর্ব মমতার” মত জনসংযোগ কর্মসূচি এনে তৃণমূল নেতাকর্মীদের ময়দানে নামিয়ে দেন তিনি। মানুষের সঙ্গে জনসংযোগ যে সাফল্য পাওয়ার অন্যতম মূল মন্ত্র, তা বুঝিয়ে দেন প্রশান্ত কিশোর। সেই মত করেই তৃণমূল কংগ্রেস মানুষের কাছে পৌঁছে যেতে শুরু করেছিল। সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজেদের বিস্তৃতি ঘটাতে “বিজেপি থেকে নিরাপদে রাখুন” এই ভাবনা এনেছিলেন প্রশান্ত কিশোর। আর সেই ভাবনাতে প্রায় পাঁচ লক্ষ মানুষ তিন দিনের মধ্যে সমর্থন করে দেওয়ায় রীতিমত স্বস্তিতে ঘাসফুল শিবির।

তৃণমূলের দাবি, বিজেপি বিভাজন, স্বৈরাতন্ত্র, ধ্বংসের রাজনীতি করছে। প্রান্তিক মহিলাদের ওপর হিংসায় প্ররোচনা দিচ্ছে। বিজেপির এই ধরনের কৌশলের বিরুদ্ধে বাংলা। বাংলার জনগণ চায় শান্তি। তারা বিভাজন চায় না। তাই বিজেপি থেকে সুরক্ষিত থাকাই শ্রেয়। সব মিলিয়ে বিধানসভা নির্বাচনের আগে প্রশান্ত কিশোরের নয়া ফর্মুলায় সাফল্য পেয়ে এখন অনেকটাই উজ্জীবিত তৃণমূল কংগ্রেস। তবে আগামীদিনে ভোটবাক্সে তৃনমূল এর ফসল কতটা নিজেদের ঘরে তুলতে পারে, সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!