এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > ভোট বড় বালাই! বিধানসভার আগে রাস্তায় নেমে ট্রাফিক পুলিশের কাজ করলেন হেভিওয়েট তৃণমূলী মন্ত্রী

ভোট বড় বালাই! বিধানসভার আগে রাস্তায় নেমে ট্রাফিক পুলিশের কাজ করলেন হেভিওয়েট তৃণমূলী মন্ত্রী



আপনাদের সুবিধার্থে খবরের শেষে বিধানসভা ২০২১ উপলক্ষে আমাদের করা সর্বশেষ সমীক্ষার প্রতিটির লিঙ্ক দেওয়া আছে।

আপনার মতামত জানান -

প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট –সামনেই বিধানসভা নির্বাচন। তার আগে মানুষের কাছে পৌঁছে যেতে এখন জনদরদি হতে দেখা যাচ্ছে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতা-নেত্রীদের। এবারের 2021 এর বিধানসভা নির্বাচন কিছুটা আলাদা। এতদিন বামফ্রন্টের বিরুদ্ধে লড়াই করে আসতে হয়েছে তৃণমূল কংগ্রেসকে। কিন্তু এবার বিজেপির সাথে তাদের লড়াই হবে বলে দাবি করছেন বিশেষজ্ঞরা। যত দিন যাচ্ছে, ততই বিজেপি বাংলাকে পাখির চোখ করে নানা রননীতি তৈরি করতে শুরু করেছে। আর এই পরিস্থিতিতে এবার মানুষের কাছে পৌঁছে যাওয়ার জন্য রীতিমত মন্ত্রীমশাইকে দেখতে দেখা গেল রাস্তায়।

যেখানে রাস্তায় নেমে মানুষের অসুবিধা না হয়ড় তার জন্য ট্রাফিক সামলাতে দেখা গেল রামপুরহাটের তৃণমূল বিধায়ক তথা কৃষিমন্ত্রী আশিস বন্দোপাধ্যায়কে। বস্তুত, লকডাউন পর্বে কিছুটা হলেও যানজট কমলেও, আবার শহর সচল হওয়ার সাথে সাথেই এই রামপুরহাট শহরে ব্যাপক যানজট তৈরি হয়েছে। বৃহস্পতিবার সেই যানজটে রীতিমতো নাকাল হয়ে পড়েন সাধারণ মানুষ। আর সেই সময় সেই রাস্তা দিয়ে যাওয়ার সময় মানুষের দুর্ভোগ দেখে হঠাৎ করেই গাড়ি থেকে নেমে পড়েন তৃণমূল বিধায়ক তথা মন্ত্রী আশিস বন্দ্যোপাধ্যায়। যেখানে রাস্তায় যানজট থেকে যাতে সাধারণ মানুষ মুক্তি পান, তার জন্য ট্রাফিক পর্যন্ত সামলাতে দেখা যায় মন্ত্রী মহোদয়কে।

আর নিত্যযাত্রী থেকে শুরু করে অফিস যাত্রী সকলেই মন্ত্রীকে এই অবস্থায় দেখে রীতিমত তার প্রতি সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিতে শুরু করেন। যেভাবে একজন মন্ত্রী রাস্তায় নেমে ট্রাফিক ব্যবস্থাকে সামাল দিতে শুরু করলেন, তা দেখে রীতিমত মন্ত্রীর প্রশংসা করতে শুরু করেন সাধারণ মানুষ।

অনেকেই বলেন, জনপ্রতিনিধি তো এরকমই চাই। যিনি মানুষের সুখ-দুঃখে মানুষের পাশে থাকবেন। প্রত্যেকেরই দাবি, এবার অন্তত শহরকে যানজট মুক্ত করতে পার্কিং জোন করা হোক এলাকায়। কেননা প্রায় দীর্ঘদিন ধরে এই সমস্যা রয়েছে। তাই অচিরেই যাতে সেই সমস্যার সমাধান হয়, তার জন্য অনেকেই দাবি জানাতে শুরু করেন। তবে সাধারণ মানুষকে অসুবিধায় পড়তে দেখে যেভাবে মন্ত্রী রাস্তায় নেমে ট্রাফিক ব্যবস্থাকে সামাল দিলেন, তাতে খুশি সকলেই।

আপনার মতামত জানান -

এদিন এই প্রসঙ্গে রামপুরহাটের তৃণমূল বিধায়ক তথা মন্ত্রী আশিস বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, “স্টেটব্যাংক থেকে শুরু হয়ে গোটা রাস্তাটায় এত যানজট আর তাতে আটকে পড়া মানুষের কষ্ট দেখে আমি রাস্তায় নেমে থাকতে পারলাম না। কিছুই নয়, যদি ট্রাফিক পুলিশ কিছুটা নিয়ন্ত্রণ করে, তাহলে এই জট তৈরি হয় না। তাই ট্রাফিক পুলিশের দায়িত্ব থাকা আধিকারিকদের ধমক দিয়ে বলেছি, আপনারা কি শুধু থানায় বসে থাকবেন! খুব শীঘ্রই পুলিশ প্রশাসনের কর্তাদের সঙ্গে শহরের যানজট নিয়ে সামগ্রিক আলোচনার মাধ্যমে সমস্যার সমাধানের পথ খোঁজা হবে।”

অনেকেই বলতে শুরু করেছেন, সামনেই বিধানসভা নির্বাচন। তার আগে গুরুতর সমস্যা সমাধানের জন্য মন্ত্রীকে এদিন রাস্তায় নামতে দেখা গেল। অর্থাৎ প্রতিদিন যেভাবে নিত্যযাত্রীরা এই যানজটের কারণে স্বচক্ষে দেখে রীতিমত অবাক হয়ে গেলেন মন্ত্রী আশিস বন্দ্যোপাধ্যায়। তাই পরিস্থিতি মোকাবিলার জন্য রীতিমত রাস্তায় নেমে গোটা সমাধানের আশ্বাস দিতে দেখা গেল তাকে। কিন্তু কবে এই সমস্যার সমাধান হবে, কবে মানুষ এই বন্দীদশা থেকে মুক্তি পায়, সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

আপনার মতামত জানান -


দেশে যে কোনো দিন ব্যান হয়ে যেতে পারে হোয়াটস্যাপ। তাই এখন থেকে আমরা শুধুমাত্র টেলিগ্রাম ও সিগন্যাল অ্যাপে। প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার নিউজ নিয়মিতভাবে পেতে যোগ দিন –

টেলিগ্রাম গ্রূপটাচ করুন এখানে

সিগন্যাল গ্রূপটাচ করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

একনজরে দেখে নিন আমাদের সর্বশেষ বিধানসভা ২০২১ ওপিনিয়ন পোল –

# মুর্শিদাবাদ জেলার ওপিনিয়ন পোল – দ্বিতীয় পর্ব – 

# মুর্শিদাবাদ জেলার ওপিনিয়ন পোল – প্রথম পর্ব – 

# মালদহ জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# উত্তর দিনাজপুরে জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# জলপাইগুড়ি ও কালিম্পঙ জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# আলিপুরদুয়ার ও দার্জিলিং জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# কুচবিহার জেলার ওপিনিয়ন পোল –

আপনার মতামত জানান -
আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!