এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > উত্তরবঙ্গ > বিধানসভার আগে বড়সড় মাস্টারস্ট্রোক অভিষেকের! বিজেপিকে মাত দিতে নয়া চাল যুবরাজের!

বিধানসভার আগে বড়সড় মাস্টারস্ট্রোক অভিষেকের! বিজেপিকে মাত দিতে নয়া চাল যুবরাজের!



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – হাতে আর কয়েকটা মাস বাকি। তারপরেই 2021 এর বিধানসভা নির্বাচন। 2016 র বিধানসভা নির্বাচনে তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে তেমন ভাবে কোনো বিরোধী দল না থাকলেও, 2021 অতটা সহজ নয়। গত লোকসভা নির্বাচনে 18 টি আসন পাওয়া বিজেপি এখন তৃণমূলের ঘাড়ে ক্রমাগত নিশ্বাস ফেলছে।

আর এই পরিস্থিতিতে “বাংলার যুবশক্তি” নামে নতুন একটি কর্মসূচি এনেছেন তৃণমূল যুব কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সভাপতি তথা সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। যেখানে অংশ নেওয়া প্রত্যেকটি যুব ভাইদের দশটি করে পরিবারের দায়িত্ব নেওয়ার কথা বলেছেন তিনি। জানা যায়, শনিবার এই ব্যাপারে নিজের ফেসবুক পেজ থেকে একটি লাইভ করেন তৃণমূল যুব কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।

যেখানে বাংলার যুবশক্তি বিধানসভা নির্বাচনের আগে বাংলার 50 লক্ষ মানুষের কাছে পৌঁছাবে বলে জানিয়ে দেন তিনি। তবে এই কর্মসূচি যে শুধুমাত্র তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মী সমর্থকরাই করতে পারবে, তা নয়। বাংলার যুবশক্তি কর্মসূচিতে যেকোন দলের যে কোনো কর্মী অংশগ্রহণ করতে পারবে বলেও জানিয়ে দিয়েছেন তৃণমূল যুব কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সভাপতি।

এদিন তিনি বলেন, “প্রতি যুব যোদ্ধা দশটি করে পরিবারের দায়িত্ব নিন। ওষুধ, দোকান সহ প্রয়োজনীয় নানা ব্যাপারে সাহায্য করুন পরিবারগুলোকে। দশটি পরিবার নিয়ে হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ করুন। এই গ্রুপে একটি পোর্টালেরৈর সঙ্গে যুক্ত থাকবে। যে পোর্টাল তদারকি করব আমি। দুদিন নয়, আগামী কয়েক মাস তাদের দায়িত্ব নিতে হবে। তৃণমূল নয়, বিজেপি, কংগ্রেস, সিপিএম যে কোনো পার্টির সঙ্গে থেকেই যুক্ত থাকা যাবে বাংলা যুবশক্তিতে। বাংলার যুবশক্তি কোনো রাজনৈতিক কর্মসূচি নয়। করোনা, আমপান পরিস্থিতিতে মানুষের পাশে দাঁড়ানোই লক্ষ্য।”

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

আর অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের এই মন্তব্যে এখন তীব্র গুঞ্জন তৈরি হয়েছে গোটা বাংলা জুড়ে। অনেকে বলছেন, বাংলার যুবশক্তি কর্মসূচি বিধানসভা নির্বাচনের আগে এনে সরাসরি মানুষের মন জয় করার চেষ্টা করছে তৃণমূল কংগ্রেস। তাই মুখে এই কর্মসূচিতে সকল রাজনৈতিক দলের কর্মীরা অংশগ্রহণ করতে পারবে বললেও, যেহেতু অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় এই কর্মসূচি চালু করছেন, তাই এর সঙ্গে যে রাজনৈতিক কোনো উদ্দেশ্য রয়েছে, সেই ব্যাপারে নিশ্চিত বিশেষজ্ঞরা।

তাদের মতে, সামনে বিধানসভা নির্বাচন। তাই তৃণমূল কংগ্রেস এখন মানুষের কাছে আরো বেশি করে পৌঁছবার জন্য প্রত্যেক যুব যোদ্ধার মাধ্যমে দশটি পরিবারের দায়িত্ব নিয়ে সেই পরিবারগুলোর ভোটব্যাঙ্ক নিজেদের দিকে নিয়ে এসে সুনিশ্চিত করতে চাইছে নিজেদের জনসমর্থন। এদিন এই প্রসঙ্গে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় আরও বলেন, “বহু মনীষী বাংলার মাটিতে জন্মেছেন। তারা যুব সম্প্রদায়কে দায়িত্ব নিতে বলেছেন। কারণ তারাই পারেন দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে। সেই কথায় অনুপ্রাণিত হয়ে যুব শক্তিকে এগিয়ে আসতে আহ্বান জানানো হচ্ছে‌। একজোট হয়ে লড়াই করলেই এই বিপদ কেটে যাবে।”

অন্যদিকে কেউ যদি এই কর্মসূচির মধ্য দিয়ে ভালো কাজ করেন, তাহলে তিনি নিজের জায়গা থাকতেও বিন্দুমাত্র ভাববেন না বলে জানিয়ে দিয়েছেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকরা বলছেন, বাংলার যুবশক্তি কর্মসূচির মধ্য দিয়ে 50 লক্ষ পরিবারের কাছে পৌঁছানোর টার্গেট নিয়ে তৃণমূল এবার জোরকদমে ময়দানে নেমে পড়বে। কারণ তারা ভালোমতোই জানে, 2021 তাদের কাছে খুব একটা সহজ নয়।

তাই এইরকম একটি সামাজিক কর্মসূচির নাম দিয়ে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় যুবদের ভরসাস্থল যেমন তৃণমূল কংগ্রেসকে করতে চাইছে, ঠিক তেমনই মানুষের কাছেও তৃণমূল কংগ্রেসকে নতুনভাবে 2021 তুলে ধরার চেষ্টা করছেন তিনি। সবমিলিয়ে এখন এই বাংলার যুবশক্তি কর্মসূচি কতটা সার্থক রূপ পায়, তার দিকেই নজর থাকবে সকলের।

আপনার মতামত জানান -

ট্যাগড
Top
error: Content is protected !!