এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > বাংলায় তৃণমূলের ঘর গোছাতে গিয়ে নতুন আইনি সমস্যায় পড়তে পারেন প্রশান্ত কিশোর? জানুন বিস্তারিত

বাংলায় তৃণমূলের ঘর গোছাতে গিয়ে নতুন আইনি সমস্যায় পড়তে পারেন প্রশান্ত কিশোর? জানুন বিস্তারিত



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – সামনেই 2021 সালের বিধানসভা নির্বাচন। তার আগে তৃণমূল এখন তাদের রাজনৈতিক পরামর্শদাতা প্রশান্ত কিশোরের পরিকল্পনামত বিরোধী দলের কর্মী সমর্থক থেকে শুরু করে হেভিওয়েট নেতাদের নিজেদের দিকে টানতে ব্যস্ত। গত একুশে জুলাইয়ের সমাবেশ থেকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বার্তা দিয়েছিলেন, যারা যারা বিরোধী দলে আছেন, তারা যদি চান, তৃণমূলে ফিরে আসতে পারেন। আর এরপরই একাংশ মনে করেছিল, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের এই বার্তার পেছনে প্রশান্ত কিশোরের সূক্ষ্ম মস্তিষ্ক রয়েছে।

যার পরবর্তী সময়কালে দেখা যায়, বিরোধী দলের অনেক হেভিওয়েট নেতাদের কাছে প্রশান্ত কিশোরের টিমের পক্ষ থেকে প্রস্তাব দিতে শুরু করে যে, তারা যাতে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগদান করেন। বিরোধী দলের পক্ষ থেকে এই অভিযোগ ওঠার সাথে সাথেই কার্যত চাঞ্চল্য তৈরি হয় বাংলার রাজনৈতিক মহলে।


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

বিশেষ সূত্র মারফত খবর, সম্প্রতি রাজ্যের বিভিন্ন এলাকার প্রাক্তন বিধায়ক এবং মন্ত্রীদের সঙ্গে যোগাযোগ করতে শুরু করেছে প্রশান্ত কিশোরের টিম। যাকে খুব একটা ভালো চোখে নিচ্ছে না সিপিএমের শীর্ষ নেতৃত্ব।জানা গেছে, গতকাল রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী দেবেশ দাসের সঙ্গে টেলিফোনের মাধ্যমে যোগাযোগ করেছে প্রশান্ত কিশোরের টিম। যে ঘটনায় অত্যন্ত ক্ষুব্ধ বাম শিবির।

আর এভাবে তাদের দলের একের পর এক নেতা সহ প্রাক্তন মন্ত্রী এবং বিধায়কদের নিজেদের দিকে টানার জন্য প্রশান্ত কিশোরের টিম যে পরিকল্পনা করছে, তার বিরুদ্ধে এবার আইনানুগ ব্যবস্থা নিতে চলেছে সিপিআইএম। আর বিধানসভা নির্বাচনের আগে তৃণমূলের রাজনৈতিক পরামর্শদাতা বিরোধী দল ভাঙার এই পরিকল্পনা করে সাফল্য পেতে চাইলেও, যদি সিপিএমের পক্ষ থেকে এবার তাদের এই পরিকল্পনায় জল ঢেলে দিয়ে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হয়, তাহলে তৃণমূল এবং প্রশান্ত কিশোর ব্যাপক চাপে পড়বেন বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল।

এদিন এই প্রসঙ্গে কলকাতা সিপিএমের জেলা সম্পাদক কল্লোল মজুমদার বলেন, “সমস্ত বিষয়টি আমাদের নজরে রয়েছে। পিকের টিম কতদূর যোগাযোগ করতে পারে, তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে। গতকাল রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী দেবেশ দাসের সঙ্গে যোগাযোগ করে তার সঙ্গে বৈঠক মারফত এলাকার কাজের বিষয়ে জানতে চাওয়া হয়েছে।” এখন দেখার বিষয়, প্রশান্ত কিশোরের টিম বিরোধী দল ভাঙ্গানোর যে পরিকল্পনা শুরু করেছেন তা সাফল্য পায় কি না! তবে দল ভাঙায় তার যতটা সাফল্য পেত, তার থেকে সিপিএম যদি তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়, তাহলে তারা অনেক বেশি বিপাকে পড়বে তারা বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল। এখন গোটা পরিস্থিতি কোথায় গিয়ে দাঁড়ায়, সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!