এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > বাংলা দখল করতে এই অন্যায় পদক্ষেপ নিয়েছে কেন্দ্র সরকার, বড়সড় অভিযোগ মুখ্যমন্ত্রীর

বাংলা দখল করতে এই অন্যায় পদক্ষেপ নিয়েছে কেন্দ্র সরকার, বড়সড় অভিযোগ মুখ্যমন্ত্রীর



 

2014 সালে বিজেপি সরকার আসার পর এবং নরেন্দ্র মোদী প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর থেকেই বারে বারে বাক স্বাধীনতা হরণ হচ্ছে বলে মন্তব্য করতে দেখা গেছে তৃণমূল নেত্রী তথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। অতীতে তিনি কেন্দ্রের বিরুদ্ধে ফোনে আড়িপাতার অভিযোগও তুলেছেন। আর এবার ফের এই ব্যাপারে বিস্ফোরক অভিযোগ করলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

সূত্রের খবর, শনিবার দইঘাটে ছটপুজোয় অংশ নিতে গিয়ে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন মুখ্যমন্ত্রী। আর সেখানেই কেন্দ্রের নির্দেশে তার ফোন এবং হোয়াটসঅ্যাপে আড়িপাতা হচ্ছে বলে অভিযোগ করেন তিনি।এদিন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বলেন, “আমার ফোন ট্যাপ হচ্ছে। আমার কাছে খবর আছে। কি পাবে ফোন ট্যাপ করে! সরকারই তো আমার ফোন ট্যাপ করছে।”

ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

আর এরপরই ভারতীয় সংবিধানের 41 নম্বর ধারার কথা তুলে ধরে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, “ভারতীয় সংবিধানের 41 নম্বর ধারা অনুযায়ী আমাদের প্রত্যেকের মত প্রকাশের স্বাধীনতা রয়েছে। কিন্তু আমরা কি স্বাধীনতা পাচ্ছি! কেউ কথা বললেই তা শুনে ফেলছে। আগে তো হোয়াটসঅ্যাপ সেভ ছিল। এখন তো তাও খোলা যায়। ল্যান্ডফোন, মোবাইল, হোয়াটসঅ্যাপে জাসুসি চলছে। এটা সিরিয়াস বিষয়। ব্যক্তি স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ করা হচ্ছে।”

তবে শুধু তার মোবাইল নয়, রাজ্যের একাধিক মন্ত্রী, আমলা, বিচারপতি, আইনজীবী, সাংবাদিকদের ফোন এবং হোয়াটসঅ্যাপেও আড়িপাতার অভিযোগ করেন তিনি। এদিন এই প্রসঙ্গে ইজরায়েলের সংস্থা এনএসওকে কাঠগড়ায় তুলে বাংলার মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “এটা ফ্যাক্ট যে ইজরায়েলের সংস্থা ফোন ট্যাপ করার ওই সফটওয়্যার কেন্দ্রকে দিয়েছে। এর সঙ্গে দুটি রাজ্য সরকারও যুক্ত আছে। তাদের নাম বলব না। কিন্তু তাদের মধ্যে একটি বিজেপি সরকার। এভাবে হোয়াটসঅ্যাপ ফাস করার জন্য একটা বিশেষ গাড়ি ব্যবহার করা হচ্ছে। গাড়ি যেখানে যাচ্ছে, সেখানে 10 কিলোমিটারের মধ্যে যে কারো ইচ্ছে ফোন কিংবা হোয়াটসঅ্যাপ থেকে তথ্য নিয়ে নিচ্ছে।”

বিশেষজ্ঞদের মতে, এদিন ফোন ট্যাপ করার অভিযোগ তুলে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ফের নিজের কেন্দ্রবিরোধী মনোভাবকেই বহাল রাখলেন।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!