এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > কে হতে চলেছেন বাংলায় বিজেপির মুখ? জানালেন কেন্দ্রীয় নেতা কৈলাস! জেনে নিন!

কে হতে চলেছেন বাংলায় বিজেপির মুখ? জানালেন কেন্দ্রীয় নেতা কৈলাস! জেনে নিন!



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট –2021 বিজেপির কাছে পশ্চিমবঙ্গ দখলের জন্য মহাসুযোগ। ইতিমধ্যেই বাংলার ক্ষমতা দখল করবার জন্য নানা পরিকল্পনা তৈরি করেছে ভারতীয় জনতা পার্টি। তবে তৃণমূল কংগ্রেসের মুখ যেখানে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, সেখানে বিরোধী দল বিজেপির মুখ কে হবে, তা নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে জল্পনা চলছে বঙ্গ রাজনীতিতে। বিজেপির পক্ষ থেকে বারবার জানানো হয়েছিল, সাংগঠনিক দল হিসেবে তারা আগেই কোনো মুখের কথা ঘোষণা করবে না‌। আগে জয়লাভ। পরে ঠিক হবে কে মুখ হবেন।

আর গেরুয়া শিবির যখন এই কথা বলছে, ঠিক তখনই নানা মহলে বিজেপির 2021 সালের মুখ নিয়ে নানা নাম ভেসে আসতে শুরু করে। যার মধ্যে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় থেকে শুরু করে বিজেপি সাংসদ স্বপন দাশগুপ্ত, দিলীপ ঘোষ, মুকুল রায়, তথাগত রায়ের মত নেতাদের নাম উঠে আসে। তবে সরকারিভাবে বিজেপির পক্ষ থেকে এই নিয়ে কোনো বিবৃতি দেওয়া হয়নি। কিন্তু তা সত্ত্বেও রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের মনে প্রশ্ন ছিল, এই সমস্ত মানুষদের মধ্যেই কেউ কি 2021 এ বিজেপির মুখ হতে চলেছে! তবে এবার সেই প্রশ্নে সম্পূর্ণরূপে জল ঢেলে দিলেন বিজেপির কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষক কৈলাস বিজয়বর্গীয়।

সূত্রের খবর, রবিবার একটি সংবাদমাধ্যমের তরফে বিজেপির সম্ভাব্য মুখ্যমন্ত্রী মুখ নিয়ে কৈলাস বিজয়বর্গীয়কে প্রশ্ন করা হয়। আর তখনই তিনি বলেন, “এখনও পর্যন্ত ঠিক আছে আমরা বিধানসভা ভোটের আগে কাউকে মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে তুলে ধরব না। বিধানসভায় 200 থেকে 230 টা আসনে জয় আমাদের লক্ষ্য। লোকসভার মতই এবার আমরা সফল হব। মুখ্যমন্ত্রী মুখ তুলে না ধরা সেক্ষেত্রে বাধা হবে না। সময় এর জবাব দেবে।” আর এখানেই একাংশের প্রশ্ন, হঠাৎ করে মুখ্যমন্ত্রী মুখ তুলে ধরা হবে না বলে কৈলাস বিজয়বর্গীয় কেন একথা বললেন?


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

অনেকে বলছেন, বর্তমানে বিজেপি 2021 এ ক্ষমতা দখলের জন্য লড়াই করলেও তাদের মধ্যে কিছুটা হলেও অন্তর্কোন্দল রয়েছে। যা চিন্তায় ফেলেছে ভারতীয় জনতা পার্টিকে। তাই এই পরিস্থিতিতে যদি নির্দিষ্ট কারও নাম নিয়ে তাকে মুখ্যমন্ত্রী মুখ করার কথা বলা হয়, তাহলে বিরোধী গোষ্ঠী ক্ষিপ্ত হতে পারে। সেদিক থেকে প্রভাব পড়তে পারে ভোটব্যাংকে। তাই সাংগঠনিক এবং শৃঙ্খলা পরায়ন দল হিসেবে পরিচিত গেরুয়া শিবির এখন তেমনভাবে কাউকে মুখ্যমন্ত্রী মুখ হিসেবে ঘোষণা না করে পশ্চিমবঙ্গের ক্ষমতা দখলের দিকেই সবথেকে বেশি জোর দিতে চাইছে।

একাংশের মতে, পশ্চিমবঙ্গের ক্ষমতা দখল বিজেপির কাছে দীর্ঘদিনের আশা এবং স্বপ্ন। সেদিক থেকে তারা যদি এই রাজ্যের ক্ষমতা দখল করে, তাহলে তারা এমন কাউকে মুখ্যমন্ত্রী করতে পারে, যিনি সমাজের বিশিষ্ট ব্যক্তি। ফলে সেই কথা যদি এখন ঘোষণা করে দেয় ভারতীয় জনতা পার্টি, তাহলে তা নিয়ে দলের অন্দরে সমস্যা দেখা দিতে পারে। তাই সেই সমস্ত থেকে নিজেদের দূরে রেখে এখন সংগঠনকে শক্তিশালী করে পশ্চিমবঙ্গে ভালো ফল করাই যে প্রধান লক্ষ্য, তা নিজের বক্তব্যের মধ্যে দিয়ে বুঝিয়ে দিলেন কৈলাস বিজয়বর্গীয়। তবে ভবিষ্যত নিয়ে “সময় উত্তর দেবে” বলে যে জল্পনা তৈরি করলেন বিজেপির এই কেন্দ্রীয় নেতা, তাতে আগামীতে এই ব্যাপারে ঠিক কোন কোন নাম উঠে আসে, সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!