এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > বাড়িতে বসে হোয়াটস্যাপ করেই পেয়ে যান যাবতীয় প্রয়োজনীয় জিনিস! বড়সড় পদক্ষেপ রিলায়েন্স জিওর!

বাড়িতে বসে হোয়াটস্যাপ করেই পেয়ে যান যাবতীয় প্রয়োজনীয় জিনিস! বড়সড় পদক্ষেপ রিলায়েন্স জিওর!



রিলায়েন্স জিও টেলিকম ইতিমধ্যে ভারতে একটা বিশাল নাম করেছে তা নিঃসন্দেহে সত্যি। আর এবার রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড অন্য ক্ষেত্রে আসছে ব্যবসা বাড়াতে। বাজারে গিয়ে এখন আর জিনিসপত্র কেনার দরকার খুব একটা পড়েনা। কারণ বাড়িতেই ই-কমার্স সাইট গুলোর মাধ্যমে এক নিমেষে হাজির হয়ে যায় শাকসবজি থেকে মশলাপাতি এমনকি প্রয়োজনীয় সমস্ত দ্রব্যাদি। এবার ঘরে ঘরে জিনিস পৌঁছে দেওয়ার দৌড়ে নেমে পরল রিলায়েন্স জিও।

বাজারে আসছে তাঁদের নতুন ইকমার্স প্লাটফর্ম জিও মার্ট। করোনা পরিস্থিতি সামাল দিতে দেশজুড়ে চলছে লকডাউন পরিস্থিতি। এই মুহূর্তে সবাই গৃহবন্দি। তার মধ্যে ছোট ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের জন্য অনলাইনে ব্যবসা করার মাধ্যম তৈরি করছে রিলায়েন্স বলে জানা গেছে। এক্ষেত্রে কেন্দ্রের শিল্পোন্নয়ন এবং অভ্যন্তরীণ বাণিজ্য দপ্তর এবং ছোট ব্যবসায়ীদের সংগঠন কনফেডারেশন অফ অল ইন্ডিয়া ট্রেডার্স এর পক্ষ থেকে ছোট ব্যবসায়ীদের জন্য নতুন প্ল্যাটফর্ম তৈরি করছে বলে জানা যাচ্ছে।

আগেও রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রির পক্ষ থেকে দেশের সমস্ত ছোট মুদিখানাগুলিকে একসাথে আনার চেষ্টা চালানো হচ্ছিল। এবার নতুন করে সেই পরিকল্পনার অঙ্গ হিসাবে বাজারে এল জিওমার্ট। নতুন প্লাটফর্মের মাধ্যমে সাধারণ মানুষকে পরিষেবা দেওয়ার জন্য ইতিমধ্যেই দুটি নাম্বার দেওয়া হয়েছে জিওর তরফ থেকে। নাম্বার দুটি হলো 88500 ও 08000। এই নাম্বার দুটি থেকে গ্রাহকদের কাছে একটি লিংক আসবে এবং সেই লিংকের মাধ্যমে প্রয়োজনীয় নির্দেশ মেনে জিনিসপত্রের অর্ডার দিতে হবে।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

এর জন্য নির্ধারিত সময় দেওয়া হবে 30 মিনিট। এরপর নির্দিষ্ট দোকানে লিস্ট অনলাইনের মাধ্যমে চলে যাবে এবং ডেলিভারির জন্য মাল তৈরি হওয়ার পর আবারও গ্রাহকদের কাছে মেসেজ আসবে। তখন নির্দিষ্ট দোকানে গিয়ে অর্ডারের জিনিস নিয়ে আসতে হবে। অন্যদিকে খাদ্য থেকে ওষুধ প্রভৃতি অত্যাবশ্যকীয় জরুরি পণ্য মানুষের হাতে তুলে দেওয়ার জন্য এবার কেন্দ্রের কাছে আবেদন জানিয়েছে আমাজন এবং ফ্লিপকার্ট এর মতন দেশব্যাপী সক্রিয় ইকমার্স ওয়েবসাইটগুলি।

তাঁদের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, করোনা পরিস্থিতিতে সমস্ত রকম সাবধানতা অবলম্বন করা হবে তাঁদের পক্ষ থেকে। ফলে সংক্রমণের কোন উদ্বেগ থাকবে না।  বিশেষজ্ঞদের মতে, এতদিন পর্যন্ত অ্যামাজন ফ্লিপকার্রসহ যেসব কোম্পানি ই-কমার্স ব্যবসায় একচ্ছত্র আধিপত্য করে গেছে, এবার তাঁদেরকে টেক্কা দিতে নতুন প্ল্যাটফর্ম রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড অন্তর্গত জিও মার্ট পরিষেবা আসতে চলেছে।

সূত্রের খবর, বর্তমানে মুম্বাইতে শুধু এই পরিষেবা চালু হচ্ছে। ধীরে ধীরে গোটা দেশেই কয়েক দিনের মধ্যেই পরিষেবা চালু হয়ে যাবে। অন্যদিকে টেলিকম ব্যবসায় সাফল্যের পর এবার ই কমার্স সাইটের নতুন ব্যবসার প্রতি যথেষ্ট আশাবাদী রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ বলে জানা গেছে।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!