এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > বাড়ছে না ভাড়া, বাড়ছে ডিজেলের দাম! উধাও বহু বাস! করোনা আবহে চূড়ান্ত হয়রানি সাধারণ মানুষের!

বাড়ছে না ভাড়া, বাড়ছে ডিজেলের দাম! উধাও বহু বাস! করোনা আবহে চূড়ান্ত হয়রানি সাধারণ মানুষের!



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – করোনা সংক্রমনের শুরু থেকেই দেশজুড়ে শুরু হয়েছিল লকডাউন। এই মুহূর্তে লকডাউন পঞ্চম দফায় কিন্তু তার পাশাপাশি শুরু হয়ে গেছে আনলক ওয়ান। এই আনলক ওয়ান পরিস্থিতিতে এবার ধীরে ধীরে সাধারণ মানুষ স্বাভাবিকভাবে চলাচল শুরু করেছে পথে। খুলে গেছে প্রচুর অফিস কাছারি বহু জায়গায়। সারাদেশের সাথে সাথে এ রাজ্যের ছবিও প্রায় এক। অফিস খোলার সাথে সাথেই সাধারণ মানুষ ভিড় বাড়িয়েছে রাস্তায়। কিন্তু এখনো পর্যন্ত ট্রেন চলাচল শুরু হয়নি। তাই সাধারণ মানুষকে নির্ভর করতে হচ্ছে বাস-মিনিবাস এর ওপর।

অন্যদিকে শোনা যাচ্ছে, রাস্তাতেও সঠিক মাত্রায় পরিবহণ মিলছে না। যাও মিলছে, তাতে দেখা যাচ্ছে উপর্যুপরি ভিড়। মানা হচ্ছে না করোনা নিষেধাজ্ঞা। এই অবস্থায় বাস মিনিবাস মালিকরাও পড়েছেন বিপদে বলে জানা যাচ্ছে। কারণ টানা 16 দিন ধরে ডিজেলের দাম বেড়ে চলেছে। সোমবার কলকাতায় এক লিটার ডিজেলের দাম বেড়ে দাঁড়ালো 74 টাকার বেশী। ভাড়া বৃদ্ধি নিয়ে ইতিমধ্যেই বেসরকারি পরিবহণ সংস্থা থেকে দাবী জানানো হচ্ছিল।

কিন্তু এবার যেভাবে জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধি হচ্ছে, তাতে পরিস্থিতি সামাল দিতে রীতিমতো হিমশিম খেতে হচ্ছে বাস-মিনিবাস মালিকদের। বেসরকারি বাস মালিকরা ইতিমধ্যে জানিয়েছেন, এই মুহূর্তে তাঁদের নিজেদের টাকা খরচ করেই বাস চালাতে হচ্ছে। কিন্তু জ্বালানির মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে রাজ্য এবং কেন্দ্রের পক্ষ থেকে কোনো প্রতিক্রিয়া পাওয়া যাচ্ছেনা। আশঙ্কা প্রকাশ করা হচ্ছে, এই অবস্থা দীর্ঘদিন চললে পরিবহণ শিল্প জোরদার ধাক্কা খাবে। সূত্রের খবর, সোমবার সকাল থেকে কলকাতা এবং শহরতলীর বুকে বেসরকারি বাসের সংখ্যা অত্যন্ত কম দেখা গেছে।

মিনি বাসের সংখ্যাও নগণ্য। যতই বেলা বেড়েছে, গাড়ির সংখ্যাও ততোই কমেছে। অন্যদিকে বাস মিনিবাসের মালিকদের পক্ষ থেকে অভিযোগ জানানো হয়েছে। তাঁদের অভিযোগ, এতদিন পর্যন্ত করোনা পরিস্থিতিতে যতগুলি আসন ততগুলি যাত্রী নিয়ে পরিবহণ চালু করতে গিয়ে যথেষ্ট ক্ষতির মুখে পড়তে হয়েছে। তার ওপরে গত 16 দিনে যেভাবে প্রতি লিটার ডিজেলের দাম বেড়ে চলেছে, তা নিয়ে রাজ্য বা কেন্দ্র কেউ কোন মন্তব্য করছে না।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

এদিন বাস মালিক সংগঠনগুলি একযোগে জানিয়েছে, শুধুমাত্র কলকাতার তিনটি বা চারটি ট্রিপে বাস চালানো হয়, তাহলে মোটামুটি 50 থেকে 55 লিটার তেল লাগে। সে ক্ষেত্রে ডিজেলের দাম বেড়ে যাওয়ায় প্রতিদিন অতিরিক্ত আরো 500 টাকা তেল খরচ হচ্ছে। কিছুদিন আগে থেকেই রেগুলেটরি কমিটির সঙ্গে বৈঠকে বসেছিল বাস-মিনিবাস সংগঠনগুলো ভাড়া বৃদ্ধির জন্য। এ প্রসঙ্গে জয়েন্ট কাউন্সিল অব বাস সিন্ডিকেটের সাধারণ সম্পাদক তপন বন্দ্যোপাধ্যায় বাস কম চলার ঘটনাটি মেনে নেন বলে জানা গেছে।

এ প্রসঙ্গে তিনি জানান, যেভাবে বর্তমানে বাস চালানোর খরচ বাড়ছে, তাতে নিজেদের পকেট থেকে টাকা দিয়ে দীর্ঘদিন বাস চালানো সম্ভব নয়। ইতিমধ্যে কর্মচারীদের বেতন থেকে জ্বালানী সমস্ত খরচ বেড়ে গেছে। যদি সবকিছু দেখা হয়, তাহলে ভাড়া বৃদ্ধির বিষয়টি মোটেই অযৌক্তিক বলে মনে হবে না। অন্যদিকে সরকারি-বেসরকারি সমস্ত অফিস এই মুহূর্তে খুলে গেছে। যার ফলে নিত্যযাত্রীকে প্রতিনিয়ত পথে নামতে হচ্ছে। সামাল দিতে হচ্ছে সঠিক সময়ে অফিসে পৌঁছে যাবার ব্যাপারটি।

অন্যদিকে এখনো পর্যন্ত রাজ্যজুড়ে লোকাল ট্রেন চলাচল শুরু হয়নি। সে কথা মাথায় রেখে অবশ্য বিশেষজ্ঞদের মতে, বর্তমানে ট্রেন চলছে না বলে রাস্তায় বাস এবং মিনিবাসের ওপর উপর্যুপরি চাপ বৃদ্ধি পেয়েছে। তবে রাজ্যে লোকাল ট্রেন চলা শুরু হলে এই চাপ অনেকাংশেই কমে যাবে বলে মনে করা হচ্ছে। আপাতত যতদিন লকডাউন আছে ততদিন বাস-মিনিবাস এর উপরেই ভরসা। আর সে ক্ষেত্রে বাস-মিনিবাস এর ভাড়া বৃদ্ধির বিষয়টি এই মুহূর্তে সবার আগে থাকবে সে কথা বলাই বাহুল্য।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!