এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > বাংলায় ভরাডুবির পর এবার পাঞ্জাব, গুজরাট, উত্তরপ্রদেশ নিয়ে তীব্র সঙ্কটে গেরুয়া শিবির?

বাংলায় ভরাডুবির পর এবার পাঞ্জাব, গুজরাট, উত্তরপ্রদেশ নিয়ে তীব্র সঙ্কটে গেরুয়া শিবির?



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট –  2021 সালের বিধানসভা নির্বাচনে বাংলা দখল সবথেকে বড় লক্ষ্য ছিল ভারতীয় জনতা পার্টির কাছে। তারা বাংলাকে এতটাই পাখির চোখ করে নিয়েছিল যে, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী থেকে শুরু করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের মত শীর্ষস্তরের হাইপ্রোফাইল বিজেপি নেতারা প্রতিনিয়ত বাংলায় এসে ঘাঁটি গেড়ে পড়েছিলেন। যার ফলে একাংশ কার্যত নিশ্চিত হয়ে পড়েছিল, প্রধানমন্ত্রী থেকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী যখন বাংলায় এসে দাবি করছেন, তারা সরকার গড়বে, তখন তাঁদের কাছে নিশ্চয়ই এই যুক্তি দেওয়ার পেছনে কোনো কারণ রয়েছে।

তাই বাংলায় এবার পরিবর্তন নিশ্চিত বলে আশা প্রকাশ করতে শুরু করেছিলেন গেরুয়া শিবিরের নেতা-কর্মীরা। কিন্তু ফলাফল প্রকাশের পর দেখা গেছে বিজেপি 200 আসনের কথা বললেও বাস্তবে 77 এর বেশি আসন তারা দখল করতে পারেনি। কোনোরকমে রাজ্য বিধানসভায় বিরোধী দলের জায়গা দখল করেছে গেরুয়া শিবির। এদিকে বাংলায় বিজেপির ভরাডুবি হওয়ার পরেই এবার পাঞ্জাব, গুজরাট এবং উত্তরপ্রদেশ নিয়ে চিন্তা বাড়তে শুরু করল পদ্মফুল শিবিরের নেতাদের।

একাংশ বলছেন, আগামী বছরেই উত্তরপ্রদেশ এবং পাঞ্জাবে নির্বাচন রয়েছে। এর আগে নির্বাচনের সময় এই উত্তরপ্রদেশ এবং পাঞ্জাবে বিজেপি জোট শরিকদের সাথে নিয়ে লড়াই করেছিল। কিন্তু এখন পাঞ্জাবে বিজেপির কোনো জোট শরিক নেই। অন্যদিকে কিছুদিন আগেই পঞ্চায়েত ভোটে উত্তরপ্রদেশে ব্যাপক ভরাডুবি হয়েছে ভারতীয় জনতা পার্টির। স্বাভাবিক ভাবেই আগামী বছরের নির্বাচনে বিজেপির শক্ত ঘাঁটি হিসেবে পরিচিত উত্তরপ্রদেশে বিজেপির পাশে থাকতে অন্য কোনো জোট শরিক কতটা ইচ্ছা প্রকাশ করবে, তা নিয়ে সংশয় তৈরি হয়েছে দলের অন্দরে।

একইভাবে গুজরাট নিয়েও চিন্তা বাড়ছে ভারতীয় জনতা পার্টির। বর্তমানে করোনা ভাইরাসের সংকটকালে যেভাবে সেখানে করোনা ভাইরাস বাড়তে শুরু করেছে, তাতে বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলোর পক্ষ থেকে গুজরাটের শাসক দল বিজেপির দিকে ছুড়ে দেওয়া হয়েছে প্রশ্ন। কেন কেন্দ্রীয় সরকারের হেভিওয়েট মন্ত্রী থেকে শুরু করে প্রধানমন্ত্রী স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীরা এই সমস্ত রাজ্যের দিকে নজর দিচ্ছে না, তা নিয়ে কটাক্ষ ছুড়ে দিয়েছে বিরোধীরা।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

শুধু তাই নয়, ভোটের সময় তাদের দেখা গেলেও বাস্তবে প্রধানমন্ত্রী এবং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কেন করোনা প্রতিরোধ করতে ঠিকমতো সাহায্য করছেন না, তা নিয়েও সোচ্চার হচ্ছে কংগ্রেস। আর এই পরিস্থিতিতে বাংলায় ভরাডুবির পর এই তিন রাজ্যের ফলাফল আগামী দিনে কি হতে চলেছে, তা নিয়ে রীতিমত সন্দিহান ভারতীয় জনতা পার্টি।

পর্যবেক্ষকরা বলছেন, বাংলায় এবার তৃণমূলের বিরুদ্ধে কিছুটা হলেও প্রতিষ্ঠানবিরোধী হাওয়া কাজ করেছিল। যার ফলে মানুষের মনে বিজেপির দিকে আকৃষ্ট হওয়ার প্রবণতা লক্ষ্য করা গিয়েছিল। কিন্তু ভোটবাক্সে বিজেপির প্রতি ভরসা রাখেননি সাধারণ মানুষ। যেখানে তৃতীয়বারের জন্য বিপুল সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে তৃণমূল ক্ষমতায় এসেছে, তাতে গেরুয়া শিবির আরও ব্যাকফুটে পড়ে গিয়েছে।

তবে এবার বাংলার ভরাডুবির পর পাঞ্জাব, গুজরাট এবং উত্তরপ্রদেশ নিয়ে কার্যত চিন্তা বাড়ছে গেরুয়া শিবিরের। এখন এই সমস্ত রাজ্যের বিজেপি তাদের ভোটব্যাঙ্ক শক্তিশালী করতে কতটা সক্ষম হয়, সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!