এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > মালদা-মুর্শিদাবাদ-বীরভূম > বাংলা থেকে NIA-এর হাতে আরও এক আলকায়দা জঙ্গি! সঙ্গে চাপ বাড়িয়ে উঠে এল মাদ্রাসা যোগ! জেনে নিন

বাংলা থেকে NIA-এর হাতে আরও এক আলকায়দা জঙ্গি! সঙ্গে চাপ বাড়িয়ে উঠে এল মাদ্রাসা যোগ! জেনে নিন



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – গত সপ্তাহে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা এনআইএর তৎপরতায় পশ্চিমবঙ্গের মুর্শিদাবাদ থেকে ছয়জন ও কেরালার এর্নাকুলাম থেকে তিন জন আল-কায়েদা জঙ্গিকে গ্রেপ্তার করা সম্ভব হয়। এরপর জঙ্গী সন্দেহে ধৃতদের জেরা করে এনআইএর আধিকারিকরা জানতে পেরেছেন যে, মাদ্রাসার আড়ালে একাধিক কার্যকলাপ চালাতো এই ধৃতেরা। এরপর থেকেই মুর্শিদাবাদ জেলার বাংলাদেশ সীমান্তের মাদ্রাসাগুলোর উপড়ে বিশেষভাবে নজর রাখতে শুরু কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা এনআইএ। গত শুক্রবার এনআইএ ও রাজ্য পুলিশের এসটিএফের যৌথ অভিযানে মুর্শিদাবাদের জলঙ্গি থেকে ২১ বছর বয়স্ক শামিম আনসারিকে অস্রসহ গ্রেফতার করা হয়েছে।

মুর্শিদাবাদ থেকে ধৃত ৬ জন আল-কায়েদা জঙ্গীর সঙ্গে সেও কাজ করতে বলে জানতে পেরেছিলেন তদন্তকারী আধিকারিকরা। তাঁরা আরো জানতে পেরেছিলেন যে দু’বছর আগে শামিম আনসারিকে জঙ্গী ক্রিয়াকলাপে নিয়োজিত করেছিল জঙ্গী সংগঠন আল কায়দা। পেশায় রাজমিস্ত্রি শামিমের কাজ ছিল মাদ্রাসায় আগত তরুণ ছাত্র-ছাত্রীদের মগজ ধোলাই করে তাদেরকে জঙ্গিপনা ও জেহাদে উদ্বুদ্ধ করা। জঙ্গিদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপেও যথেষ্ট আনাগোনা ছিল তার। এ কথা সে নিজেই স্বীকার করেছে জেরার মুখে পড়ে।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

শামিম আনসারিকে গ্রেপ্তারের পর বাংলা থেকে জঙ্গী সন্দেহে ধৃতদের সংখ্যা আরো একজন বেড়ে গিয়ে ৭ এ পৌঁছলো। এতটা বড় ও ব্যাপক জঙ্গী চক্রের সন্ধান মেলার পর আরো জোরদার তল্লাশি নিতে শুরু করেছে এনআইএ। এ কারণে পশ্চিমবঙ্গের ও কেরলের ব্যাপক সন্দেহভাজন এলাকাগুলি ছাড়াও পশ্চিমবঙ্গের আরও কিছু মাদ্রাসাগুলোর উপরে নজরদারি চালাচ্ছে এনআইএ। এ প্রসঙ্গে সন্দেহভাজনদের ধরপাকড় চলছে। সূত্রের খবর শামিমের পাশাপাশি আরো তিনজন সন্দেহভাজনকে সংস্থার গোয়েন্দারা আটক করেছেন। এদের সঙ্গে চলছে জেরা। তবে এরা আল-কায়েদা জঙ্গি সংগঠন বা অন্য কোন জঙ্গি সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত কিনা সে বিষয়ে নিশ্চিত হতে পারেননি আধিকারিকেরা।

সম্প্রতি জঙ্গী সন্দেহে ধৃত শামিম আনসারিকে মুর্শিদাবাদ সিজিএম আদালতে পেশ করে তাকে নিজেদের ট্রানজিট রিমান্ডে নিয়েছে এনআইএ। মুর্শিদাবাদ থেকে ধৃত আরও ৬ জন জঙ্গির সঙ্গে তাকে এক সঙ্গে বসিয়ে বিভিন্ন বিষয়ে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করার পরিকল্পনা নিয়েছে এনআইএ। সূত্রের খবর, আজ তাকে দিল্লি নেবার পরিকল্পনা আছে এনআইএর। সেখানে এনআইএ আদালতে তাকে পেশ করার পরিকল্পনা আছে।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!