এখন পড়ছেন
হোম > রাজনীতি > কংগ্রেস > বাম-কংগ্রেস জোট চূড়ান্ত, মিলল অনুমোদন!

বাম-কংগ্রেস জোট চূড়ান্ত, মিলল অনুমোদন!



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – গত 2016 সালে তারা একসাথে জোট করে নির্বাচনে লড়লেও, 2019 সালের লোকসভা নির্বাচনে আর তা সম্ভব হয়নি। বেশকিছু আসলে মতানৈক্যের কারণে দুই দল জোট না করার ফলে কার্যত পর্যুদস্ত হতে হয়েছিল হাত শিবির এবং কাস্তে হাতুড়ি শিবিরকে। তবে সাম্প্রতিক সময়ে যখন বিজেপি এবং তৃণমূল নিজ নিজ আঙ্গিকে প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছে, তখন বাম এবং কংগ্রেস জোটের ব্যাপারে কি পদক্ষেপ গ্রহণ করে, তার দিকে নজর ছিল সকলেরই।

আদৌ তারা জোট করে লড়বেন, নাকি পৃথকভাবে লড়বেন, তা নিয়ে ব্যাপক গুঞ্জন সৃষ্টি হয়। অবশেষে এই ব্যাপারে নিজেদের অবস্থান স্পষ্ট করল কংগ্রেস। সূত্রের খবর, বৃহস্পতিবার টুইটে প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি তথা সাংসদ অধীর রঞ্জন চৌধুরী স্পষ্ট ভাষায় জানিয়ে দিয়েছেন, আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে বাম দলগুলোর সঙ্গে জোট করেই লড়াই করবে কংগ্রেস। ইতিমধ্যেই আনুষ্ঠানিকভাবে সেই জোটের ব্যাপারে অনুমোদন দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

জানা যায়, গত সপ্তাহে সিপিএমের কেন্দ্রীয় কমিটির পক্ষ থেকে বাংলার নেতৃত্বকে কংগ্রেসের সঙ্গে জোটের ব্যাপারে অনুমোদন দিয়ে দেওয়া হয়েছে। মূলত এবারের নির্বাচনে বিজেপি এবং তৃণমূল এই দুই রাজনৈতিক দলকে কুপোকাত করতে জোটবদ্ধ ভাবে লড়াইয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছে কংগ্রেস এবং বামফ্রন্ট। গত 2011 সালের পর বামেরা রাজ্যের ক্ষমতাচ্যুত হলে দিনকে দিন তাদের সংগঠন দুর্বল হয়ে পড়তে শুরু করে।

কংগ্রেসের সঙ্গে মতাদর্শগতভাবে তাদের বিরোধিতা থাকলেও দুই দলের পরিস্থিতি শোচনীয় হয়ে যাওয়ায় গত 2016 সাল থেকে জোটবদ্ধ হয়ে লড়াই করার উদ্যোগ নিতে দেখা যায় তাদের। তবে 2019 সালের লোকসভা নির্বাচনে এই দুই দলের মধ্যে জোট সম্ভব হয়নি। কিন্তু একদিকে যখন বিজেপির প্রভাব বাড়ছে এবং অন্যদিকে তৃণমূল আবার ক্ষমতায় আসার জন্য প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছে, তখন এই দুই রাজনৈতিক দলকে কুপোকাত করতে তাদের দুই দলের জোট যে অত্যন্ত জরুরি, তা অনুভব করেছিল দুই দলের নেতারাই।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

আর তাই এবার আর সময় নষ্ট না করে সেই জোটের ব্যাপারে নিজেদের অবস্থান স্পষ্ট করে দিলেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর রঞ্জন চৌধুরী। বিশ্লেষকরা বলছেন, জোটের ব্যাপার এই যে দুই দলের কেন্দ্রীয় নেতারাই সবুজ সংকেত দিয়ে দিয়েছে তা স্পষ্ট হয়ে গেল। কিন্তু অতীতে লোকসভা নির্বাচনের সময় বিভিন্ন জায়গায় প্রার্থী দেওয়া নিয়ে এই দুই রাজনৈতিক দলের মধ্যে মতানৈক্য তৈরি হওয়ার কারণে শেষ পর্যন্ত সেই জোট ভেস্তে গিয়েছিল।

স্বাভাবিকভাবেই এই প্রবণতা যদি এবার তৈরি হয়, তাহলে তা নিয়ে সমস্যা আরও প্রকট হতে পারে। সেক্ষেত্রে জোটের ব্যাপারে দুই পা এগিয়েও চার পা পিছিয়ে যেতে হতে পারে কংগ্রেস এবং বামফ্রন্টকে। তবে কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের সীলমোহর থাকার কারণে সেই সমস্যা আসবে না বলেই মনে করছেন একাংশ। সব মিলিয়ে গোটা পরিস্থিতি কোথায় গিয়ে দাঁড়ায়, সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!