এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > বাজেটে দুঃসংবাদ পেতে পারেন কেন্দ্র সরকারি কর্মীরা

বাজেটে দুঃসংবাদ পেতে পারেন কেন্দ্র সরকারি কর্মীরা



গত এপ্রিলে‌ বসে সপ্তম পে কমিশন তাতে কেন্দ্রীয় সরকারের কর্মীদের সর্বনিম্ন বেতন ৭ হাজার বেড়ে হয় ১৮ হাজার। তবে নিচু তলার‌ কর্মীরা অবশ্য বেতন ১৮ থেকে ২৬ হাজার করার দাবি তোলে, তবে কেন্দ্র তাঁদের দাবি সবটা না মানলেও কিছুটা মেনে বেতন ২১ হাজার করার‌ জন্য কেন্দ্রীয় মন্ত্রী সভায় বিষয়টি নিয়ে আলোচনা হবে। গত বছরের ২৮‌জুন বিচারপতি এ‌ কে মাথুরের নেতৃত্বে সপ্তম পে ‌কমিশনে প্রস্তাব পেশ করা হয় লোকসভায়, তাতে ছাড়পত্র মিললে সরকারি‌ কর্মীদের নুন্যতম‌ বেতন হয় ১৮ হাজার ও সর্বাধিক হয় ২.৫ লক্ষ। কিছু কর্মী সংগঠন সর্বনিম্ন ও ‌সর্বাধিক ‌বেতনের মধ্যে ব্যবধান দেখিয়ে বেতন বৃদ্ধি করে ২৬ হাজার করার পাশাপাশি তাঁদের বেতন ৩.৬৮ গুন বৃদ্ধি‌ করার দাবি তুলে ১১ জুলাই থেকে অনির্দিষ্টকালের‌ জন্য ধর্মঘটের ডাক দেয়। পরে অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলির অশ্বাসে তাঁরা ধর্মঘট প্রত্যাহার করে। জেটলি ন্যাশানাল‌ অ্যানোমালি কমিটি তৈরি‌ করে ১৯ জুলাই রাজ্যসভায় এই প্রস্তাব দেবে ‌বলে সুত্রের খবর। সর্বশেষ তথ্য যে আগামী এপ্রিলেই সর্বনিম্ন বেতন বাড়ছে। যদিও সপ্তম পে‌ কমিশনের হারে বেতন বৃদ্ধি হয়েছে গত এপ্রিলে। তবে অন্তর্বর্তী কলের যে বকেয়া তা কেন্দ্র সরকার দেবে না বলে স্পষ্ট করে জানিয়ে দিয়েছে। এক বিশেষ সুত্রের খবর অর্থ দফতরের এক‌ কর্তা নাম ‌গোপন করে বলেন , ” এপ্রিলের‌ প্রথম‌ সপ্তাহেই অরুণ জেটলি বকেয়া‌ না দেওয়ার সিদ্ধান্ত কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভায় পেশ করবেন। আর সেই সিদ্ধান্তে ‌সিলমোহর পেয়ে গেলে অনেকটাল আশাহত হতে হবে কেন্দ্রীয় সরকারের নিম্নস্তরের কর্মীদের। তবে সেই সঙ্গে বেতন বৃদ্ধির খবরও‌ পাবেন তাঁরা।”

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!