এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > বাবুল সুপ্রিয়কে ‘হেনস্থা’ করে ‘বিপাকে’ তৃণমূল সাংসদ

বাবুল সুপ্রিয়কে ‘হেনস্থা’ করে ‘বিপাকে’ তৃণমূল সাংসদ



একটি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলে রাজনৈতিক বিতর্কে অংশগ্রহণ করে প্রবল বিবাদ বাধে কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয় ও করিমপুরের তৃণমূল বিধায়ক মহুয়া মৈত্রের মধ্যে। তাঁর বিরুদ্ধে ‘অসম্মানজনক’ শব্দ প্রয়োগ করার অভিযোগে বাবুল সুপ্রিয়র বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করেন মহুয়া মৈত্র। এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে বাবুল সুপ্রিয়কে হাজিরা দিতে বলা হয়। ‘অহেতুক হেনস্থা’ করার জন্য বাবুল সুপ্রিয় লোকসভার অধ্যেক্ষের কাছে অভিযোগ জানান। ফলে ঘটনার তদন্তের জন্য রায়াপতি সম্ভাশিব রাও এর নেতৃত্ত্বে লোকসভার একটি কমিটি গঠিত হয়। গত ৫ ডিসেম্বর রাজ্যের স্বরাষ্ট্র সচিব অত্রি ভট্টাচার্য ও কলকাতার পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমারকে ডেকে পাঠায় লোকসভার সেই কমিটি। সূত্রের খবর, কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রীর সঙ্গে যথাযথ ব্যবহার না করায় সেই সাংসদীয় কমিটির কাছে রীতিমত ধমক খেতে হয় তাঁদের।

কিছুদিন আগেই এই ব্যাপারে বাবুল সুপ্রিয়র মতামত শোনার জন্য তাঁকে সেই কমিটি তলব করে। সেখানেই তৃণমূল কংগ্রেসের সাংসদ চৌধুরী মোহন জাটুয়ার সঙ্গে তীব্র বাদানুবাদ শুরু হয় বাবুল সুপ্রিয়র। তৃণমূল সংসদের স্পষ্ট অভিযোগ, বাবুল সুপ্রিয়র কোনও অভিযোগই গ্রহণযোগ্য নয়, তাঁর বিরুদ্ধে থানায় হওয়া অভিযোগ এড়িয়ে উনি কমিটির কাছে এসেছেন। বাবুল সুপ্রিয় মহুয়া মৈত্রের অভিযোগ নিয়ে প্রসঙ্গে কমিটিকে কিছু বলেননি, উল্টে সাংসদ হিসেবে কী ভাবে তাঁকে বার বার হেনস্থা করা হচ্ছে তার বিবরণ দেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে তৃণমূল সাংসদকে সমর্থন করেন টিআরএসের এক সাংসদ। কিন্তু অধিকাংশ সদস্যই বাবুল সুপ্রিয়র পাশে দাঁড়ান। কমিটির সদস্য হয়ে কি করে ‘বিচারপ্রার্থীর’ সঙ্গে তর্কাতর্কিতে জড়িয়ে যান, সেই প্রশ্নও ওঠে। কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রীর অভিযোগকে মান্যতা দিয়ে এটাও কি এক ধরনের ‘হেনস্থা’ সেই প্রশ্নও ঘুরপাক খেতে থাকে। তবে এই নিয়ে কমিটি কি সিদ্ধান্ত নেবে সে সম্পর্কে এখনো কোনো স্পষ্ট দিশা পাওয়া যায়নি। কমিটির চেয়ারম্যান রায়াপতি সম্ভাশিব রাও ফের আলোচনায় বসে সিদ্ধান্ত নেওয়ার কথা জানিয়েছেন। তবে সামগ্রিক ঘটনায় বাবুল সুপ্রিয় নিজে তো বটেই, অন্যান্য বিজেপি সাংসদরাও যথেষ্ট ক্ষুব্ধ বলেই জানা গেছে, এর পরিপ্রেক্ষিতে তৃণমূল সংসদের বিরুদ্ধে কিছু ‘ব্যবস্থা’ নেওয়া হয় কিনা সেদিকেই তাকিয়ে এখন রাজনৈতিক মহল।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!