এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > রায়গঞ্জ সহ উত্তরবঙ্গে বিজেপির সংগঠন বাড়াতে আসরে বাবুল সুপ্রিয়

রায়গঞ্জ সহ উত্তরবঙ্গে বিজেপির সংগঠন বাড়াতে আসরে বাবুল সুপ্রিয়

Priyo Bandhu Media


পঞ্চায়েত নির্বাচনকে সামনে রেখে জেলায় জেলায় শাসকদলের ‘বদলার রাজনীতির’ প্রতিবাদে সভা ও আন্দোলনে নেমেছে বিজেপি। সেই মত একের পর এক জেলায় সভা করছেন বিজেপির নেতা-নেত্রীরা। বীরভূম-পুরুলিয়ার পর উত্তরের দলীয় কর্মীদের মধ্যে আসন্ন পঞ্চায়েত নির্বাচনে শাসক বিরোধী কর্মসূচিকে আরও স্পষ্ট করতে এবং উত্তরবঙ্গে বিজেপির সংগঠনকে আরো মজবুত করতে এবার আসরে নামছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়। আগামী ২৯ ডিসেম্বর রায়গঞ্জের চণ্ডিতলা ময়দানে প্রকাশ্য সভায় যোগ দেবেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ও বিজেপির তারকা সাংসদ বাবুল সুপ্রিয়। এর আগে মুকুল রায় ও দিলীপ ঘোষকে দেখা গেছে প্রকাশ্যে সমাবেশে শাসক শিবিরকে তীব্র আক্রমন করতে। এবার সেই পথেই পা বাড়াতে চলেছেন বাবুল সুপ্রিয়ও বলে জানা যাচ্ছে। দলীয় সূত্রে জানা গেছে, এই সভায় উপস্থিত থাকবেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ ও জয় বন্দ্যোপাধ্যায়। বিজেপি জানিয়েছে, রাজ্যের সমস্ত জেলার মতো এই জেলাতেও তাঁরা জন জাগরণ যাত্রা কর্মসূচি নিয়েছেন। বিজেপির জেলা সভাপতি নির্মল দাস জানিয়েছেন, রাজ্যজুড়ে শাসক দলের সন্ত্রাস চলছে, গণতন্ত্র বিপন্ন। তারই প্রতিবাদে জেলাতেও জন জাগরণ যাত্রা কর্মসূচি নিয়েছে বিজেপি।
তবে বিজেপির এই শাসক বিরোধী আন্দোলন নতুন নয়। সবং উপনির্বাচনের আগে থেকেই ‘বদলার রাজনীতির’ বিরোধিতায় সরব হয়েছে গেরুয়া শিবির। একদিকে যখন শাসক শিবিরের বক্তব্য ২০১৯ এ বাংলা থেকে মুছে দিতে হবে বিজেপিকে, তখন অন্যদিকে শাসক দলের একের পর এক নেতার বিরুদ্ধে প্রকাশ্যে ‘হাটেহাঁড়ি’ ভাঙার হুমকি দিয়েছেন মুকুল রায়। তবে আসন্ন পঞ্চায়েত ভোটের আগে যেভাবে প্রচারে নেমেছে বিজেপি এর আগে বাংলার রাজনীতিতে বিজেপির এই ভূমিকা দেখা যায়নি বলেই মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!