এখন পড়ছেন
হোম > অন্যান্য > অস্ট্রেলিয়া সফরের দল ঘোষণা হতেই টীম ইন্ডিয়ার গুরুত্বপূর্ণ সদস্য করোনা আক্রান্ত, অনিশ্চিত সফর?

অস্ট্রেলিয়া সফরের দল ঘোষণা হতেই টীম ইন্ডিয়ার গুরুত্বপূর্ণ সদস্য করোনা আক্রান্ত, অনিশ্চিত সফর?



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – সম্প্রতি চলছে আইপিএল ম্যাচ। আইপিএলের পরেই রয়েছে অস্ট্রেলিয়া সফর। সে উদ্দেশ্যে দুবাই হয়ে অস্ট্রেলিয়া যাওয়ার পূর্বেই করোনা আক্রান্ত হলেন জাতীয় ক্রিকেট দলের একজন সাপোর্ট স্টাফ। গত রবিবার তাঁর বিমানে দুবাই চলে যাবার কথা ছিল। কিন্তু করোনা সংক্রামিত হওয়ার কারণে তাঁকে ১৪ দিনের জন্য পাঠানো হলো কোয়ারেন্টাইনে। করোনা মুক্ত হওয়ার পরই তিনি দুবাই যেতে পারবেন বলে জানানো হয়েছে।

করোনা সংক্রামিত এই স্টাফের নাম গোপন রেখে ক্রিকেট বোর্ডের জনৈক সদস্য জানালেন যে, করোনা আক্রান্ত এই সাপোর্ট স্টাফ মেম্বারকে কোয়ারান্টিনে পাঠানো হয়েছে। করোনা মুক্ত হলে তিনি দুবাইতে দলের সঙ্গে যোগ দিতে পারবেন। অন্যদিকে জাতীয় ক্রিকেট দলের হেড কোচ রবি শাস্ত্রী, ব্যাটিং কোচ বিক্রম রাঠোর, বোলিং কোচ ভরত অরুণ, ফিল্ডিং কোচ আর শ্রীধর, ম্যানেজার গিরিশ ডংরে সকলেই দুবাইতে জৈব সুরক্ষা বলয়ে আছেন। ক্রিকেটার চেতেশ্বর পূজারা, হনুমা বিহারীও আছেন তাঁদের সঙ্গে। দুবাই থেকেই অস্ট্রেলিয়া সফরের সমস্ত গুরুত্বপূর্ণ পরিকল্পনা তাঁরা নেবেন বলে জানা গেছে।


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

আইপিএল শেষ হলে এক বিশেষ চার্টার্ড বিমান করে অস্ট্রেলিয়া যাওয়ার পরিকল্পনা নিয়েছে ভারতীয় ক্রিকেট দল ও ক্রিকেট দলের সাপোর্ট স্টাফরা। করোনা সংক্রমণ কালে এটিই ভারতের প্রথম আন্তর্জাতিক সিরিজ হতে চলেছে। যে সফর দুমাস ব্যাপী চলবে। ৪ টি টেস্ট, ৩ টি করে টি ২০ ও একদিনের ম্যাচ থাকবে এই সফরে।

প্রসঙ্গত, বেশকিছু ক্রিকেটার ক্রিকেট বোর্ডের কাছে জানতে চেয়েছিলেন যে, অস্ট্রেলিয়া সফরে তাঁরা স্ত্রী ও পরিবারের অন্যান্য সদস্যকে নিয়ে যেতে পারবেন কিনা? বোর্ডের পক্ষ থেকে এ বিষয়ে বিস্তারিত কিছু এখনো জানানো হয়নি। আইপিএলে বেশকিছু ক্রিকেট তারকা স্ত্রীদের সঙ্গে নিয়ে গিয়েছিলেন। তবে, পরিবারের সদস্যদের ৬ দিনের কোয়ারেন্টাইন শেষ করে তবেই তাঁদের ক্রিকেটারদের সামনে আসার সুযোগ দেয়া হয়েছিল।

অস্ট্রেলিয়া সফরে তাঁদের সেই সুযোগ মিলবে কিনা সে বিষয়ে যথেষ্ট সংশয় রয়েছে। কারণ, কোয়ারেন্টাইন নিয়ম বিষয়ে অস্ট্রেলিয়া যথেষ্ট কড়া। এ কারণে অস্ট্রেলিয়ায় ক্রিকেট সফরের আয়োজন করতেও যথেষ্ট চিন্তাভাবনা করতে হয়েছিল। তবে আশার কথা এটাই যে, ক্রিকেটাররা দুমাস ধরে আছেন জৈব সুরক্ষ বলয়ে। সে কারণে তাঁদের পরিবারের সদস্যদের তাঁরা অস্ট্রেলিয়া নিয়ে যেতে পারবেন বলে তাঁরা আশাবাদী।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!