এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > অডিও ক্লিপ নিয়ে তৃণমূল বিজেপির অভিযোগ, পাল্টা অভিযোগের ভিত্তিতে ব্যাপক টানাপোড়েন শুরু

অডিও ক্লিপ নিয়ে তৃণমূল বিজেপির অভিযোগ, পাল্টা অভিযোগের ভিত্তিতে ব্যাপক টানাপোড়েন শুরু



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – চতুর্থ দফার নির্বাচনে শীতলকুচি জোড়াপাটকিতে কেন্দ্রীয় বাহিনীর গুলিতে প্রাণ হারিয়েছিলেন চারজন। আর তাই নিয়ে ক্রমাগত রাজনৈতিক চাপানউতোর বৃদ্ধি পেয়েছে। নির্বাচনী আবহে এই চাপানউতোর যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা গ্রহণ করেছে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। ইতিমধ্যেই শীতলকুচির ঘটোনা নিয়ে বেশ কিছু ভিডিও প্রকাশ্যে আসে এবং দাবি করা হয়, শীতলকুচিতে কেন্দ্রীয় বাহিনী গুলি চালায় বিনা প্ররোচনায়। যদিও সেইসব ভিডিও যাচাই করে দেখেনি প্রিয় বন্ধু মিডিয়া। আর এবার গতকালই চাঞ্চল্যকরভাবে প্রকাশ পেয়েছে শীতলকুচিতে গুলিচালনার পর মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং কোচবিহার জেলা তৃণমূল সভাপতি পার্থপ্রতিম রায়ের একটি অডিও ক্লিপ।

সেটিও প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার তরফ থেকে যাচাই করা হয়নি। তবে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং কোচবিহার জেলা তৃণমূল সভাপতির কথোপকথন সামনে আসার পর খুব স্বাভাবিকভাবেই তৃণমূলের পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ফোন ট্যাপ করা হচ্ছে। অন্যদিকে আজকে নির্বাচন কমিশনে ঐ অডিও ক্লিপ নিয়ে বিজেপির তরফ থেকে তৃণমূল নেত্রীর বিরুদ্ধে নালিশ জানানো হয় এবং দাবি করা হয়, এই অডিও ক্লিপ ছড়ানোর পেছনে তৃণমূলের পরিকল্পনা রয়েছে। আর এই নিয়ে নতুন করে শুরু হয়েছে তীব্র চাঞ্চল্য রাজনৈতিক মহলে। বিজেপির দাবি, নির্বাচনে ফায়দা তোলার জন্য ইচ্ছাকৃতভাবে অডিও ক্লিপ ভাইরাল করেছে তৃণমূল।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

অন্যদিকে শুক্রবার এই অডিও ক্লিপটি ফাঁস করা হয় বিজেপির তরফ থেকেই। বিজেপির তরফ থেকে দাবি করা হয়, অডিওতে যে মহিলা কন্ঠ শোনা যাচ্ছে সেটি তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের। তিনি কেন্দ্রীয় বাহিনীর গুলিতে নিহত 4 ব্যক্তির মৃত্যু নিয়ে ফোনে আলোচনা করছিলেন একটি পুরুষ কন্ঠের সাথে, যেটি বিজেপি দাবি করে কোচবিহার জেলা তৃণমূল সভাপতি পার্থপ্রতিম রায়ের বলে। এই অডিও ক্লিপটি প্রকাশ করেন বিজেপির সর্বভারতীয় আইটি সেল এর প্রধান অমিত মালব্য। তৃণমূল কার্যত বিজেপির অভিযোগ সত্য বলে মেনে নেয় প্রাকারান্তরে গতকাল। কিন্তু তৃণমূলের পক্ষ থেকে পাল্টা অভিযোগ তোলা হয়, মুখ্যমন্ত্রীর ফোনে আড়িপাতা হচ্ছে বলে।

কিন্তু বিজেপির পক্ষ থেকে নির্বাচন কমিশনের দপ্তরে গিয়ে হঠাৎ করেই তৃণমূলের অভিযোগ উড়িয়ে দিয়ে বিজেপি নেতা তথা তারকেশ্বর আসনের প্রার্থী স্বপন দাশগুপ্ত পাল্টা অভিযোগ করেন অডিও ক্লিপটি যাদের কথোপকথনের ওপর ভিত্তি করে সেই মুখ্যমন্ত্রী এবং তৃণমূল নেতার মধ্যে যে কেউ একজন এটি প্রকাশ করেছেন। একইসঙ্গে স্বপন দাশগুপ্তর দাবি, ইচ্ছাকৃতভাবে অডিও ক্লিপটি ভাইরাল করা হয়েছে, যাতে নির্বাচনে ফায়দা তোলা যায় অডিও টেপ এর মাধ্যমে। বিশেষজ্ঞদের মতে, পঞ্চম দফার নির্বাচনে এই অডিও ক্লিপ নিয়ে অভিযোগ পাল্টা অভিযোগের ভিত্তিতে খুব স্বাভাবিকভাবেই শুরু হয়েছে রাজনৈতিক জলঘোলা। অন্যদিকে এই অডিও টেপের ভিত্তিতে নির্বাচন কমিশন নতুন কোনো পদক্ষেপ গ্রহণ করেন কিনা তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে, সেদিকে কড়া নজর রয়েছে রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!