এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > আর্থিক অনুদান নিয়ে রাজ্যের একগুচ্ছ অভিযোগের মধ্যেই এবার কেন্দ্রীয় সরকার বাড়িয়ে দিল সাহায্যের হাত

আর্থিক অনুদান নিয়ে রাজ্যের একগুচ্ছ অভিযোগের মধ্যেই এবার কেন্দ্রীয় সরকার বাড়িয়ে দিল সাহায্যের হাত



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – দীর্ঘদিন যাবৎ কেন্দ্রের বিরুদ্ধে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় অভিযোগ জানিয়ে আসছেন, রাজ্যের প্রাপ্য বকেয়া টাকা কেন্দ্র কোনোভাবেই দিচ্ছেনা বলে। এমনকি আম্ফান এবং ইয়াসের মোকাবিলায় ক্ষতিপূরণের অর্থও নগণ্য বলে দাবি করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। পাশাপাশি জিএসটির বকেয়া  টাকা নিয়ে সম্প্রতি সরব হয়েছিলেন রাজ্যের অর্থমন্ত্রী অমিত মিত্র।

তিনি রীতিমতো চিঠি লিখে এ সংক্রান্ত যাবতীয় অভিযোগ জানিয়েছিলেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামনের কাছে। বুধবার কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রকের পক্ষ থেকে চলতি আর্থিক বছরের রাজস্ব ঘাটতি বাবদ বেশকিছু রাজ্যকে কেন্দ্রীয় অনুদান দেওয়া হল। যার মধ্যে পশ্চিমবঙ্গ অন্যতম।

সূত্রের খবর,17 টি রাজ্যকে সাহায্য দেবার কথা ভাবা হয়েছে। সেক্ষেত্রে কেন্দ্রের পক্ষ থেকে মোট অনুদান বাবদ ধার্য করা হয়েছে 9 হাজার 871 কোটি টাকা। চলতি অর্থবছরে রাজস্ব ঘাটতি অনুযায়ী শীর্ষে রয়েছে কেরল এবং তারপরেই রয়েছে পশ্চিমবঙ্গ। তৃতীয় স্থানে রয়েছে অন্ধ্রপ্রদেশ। এই তিন রাজ্যের রাজস্ব ঘাটতি যথাক্রমে 4972 কোটি, 4401 কোটি এবং 4314 কোটি টাকা। তৃতীয় কিস্তি দেবার পর প্রথম 3 মাসে মোট 29 হাজার 613 কোটি টাকা রাজ্যগুলির জন্য বরাদ্দ করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

যেসব রাজ্যকে অনুদানের তালিকায় রাখা হয়েছে, সেগুলি হল- অন্ধপ্রদেশ, অসম, হরিয়ানা, হিমাচল প্রদেশ, কর্ণাটক, কেরল, মণিপুর, মেঘালয়, মিজোরাম, নাগাল্যান্ড, পাঞ্জাব, রাজস্থান, সিকিম, তামিলনাড়ু, ত্রিপুরা, উত্তরাখণ্ড এবং পশ্চিমবঙ্গ। প্রসঙ্গত জানা যায়, সংবিধানের 275 ধারা অনুযায়ী বিভিন্ন রাজ্যের রাজস্ব ঘাটতি দেখে সেই ঘাটতি মিটিয়ে দেয় কেন্দ্রীয় সরকার। সেক্ষেত্রে বড়োসড়ো অনুদান দেওয়া হয় রাজ্যগুলিকে। তবে একেবারে না, বরং মাসে মাসে টাকা দিয়ে এই ঘাটতি মেটানোর সুপারিশ করা হয়েছে অর্থ কমিশনের পক্ষ থেকে। প্রসঙ্গত, পঞ্চদশ অর্থ কমিশনের তরফ থেকে 2021-22 আর্থিক বছরে 17 টি রাজ্যকে আর্থিক অনুদান দেওয়ার সুপারিশ করা হয়েছে।

সেক্ষেত্রে প্রতিটি রাজ্যকে বারোটি কিস্তিতে টাকা দেওয়া হবে বলে জানা গিয়েছে। মোট 1 লাখ 18 হাজার 452 কোটি টাকা রাজস্ব ঘাটতি হয়েছে। আর সেই ঘাটতি পূরণের জন্য কেন্দ্রীয় সরকার এবার পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। প্রসঙ্গত, প্রত্যেকটি রাজ্যের রাজস্ব আদায় এবং ব্যয় বরাদ্দ ঘাটতি দেখে অর্থ কমিশন বিবেচনা করে কোন রাজ্য কত অনুদান পাবে এবং রাজ্যের নামও সুপারিশ করে। প্রসঙ্গত রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের একাংশ মনে করছেন, রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যেভাবে প্রতিনিয়ত কেন্দ্রের বিরুদ্ধে আর্থিক সাহায্য না করার অভিযোগ জানিয়ে আসছেন, এবার রাজস্ব খাতে ক্ষতিপূরণ দিয়ে সেই অভিযোগ এককথায় অনেকটাই খণ্ডন করল কেন্দ্রীয় সরকার।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!