এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > উত্তরবঙ্গ > অর্পিতা ঘোষের কর্মীসভায় রাজীব ব্যানার্জি, দশরথ তিরকির প্রচারে মলয় ঘটক – ক্রমশ ঝড় তুলছে তৃণমূল

অর্পিতা ঘোষের কর্মীসভায় রাজীব ব্যানার্জি, দশরথ তিরকির প্রচারে মলয় ঘটক – ক্রমশ ঝড় তুলছে তৃণমূল



আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে বালুরঘাট লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূলের বিদায়ী সাংসদ অর্পিতা ঘোষকে ফের পুনরায় প্রার্থী করা নিয়ে জেলা তৃণমূল সভাপতি বিপ্লব মিত্র অনুগামীদের সঙ্গে সেই অর্পিতা দেবীর অনুগামীদের কোন্দল শুরু হলে শেষ পর্যন্ত রাজ্য নেতৃত্বের হস্তক্ষেপে সেই কোন্দল মিটলে এবার জেলায় এসে সেই বালুরঘাট লোকসভা কেন্দ্রের প্রার্থী অর্পিতা ঘোষকে জেতানোর জন্য বিপ্লব মিত্রকে সামনে রেখে নিজের প্রচার শুরু করলেন রাজ্যের হেভিওয়েট মন্ত্রী রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়।

সূত্রের খবর, বুধবার দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার গঙ্গারামপুরের সুকদেবপুরে বালুরঘাট লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী অর্পিতা ঘোষের সমর্থনে একটি কর্মী সভায় উপস্থিত হন রাজীব ব্যানার্জি। আর সেখানেই তিনি বলেন, “গত 2014 সালে বিপ্লব মিত্র অর্পিতাকে জিতিয়েছেন। পঞ্চায়েত, জেলাপরিষদেও তিনি দলকে জিতিয়েছেন। তাই এবারের লোকসভা নির্বাচনেও তিনি অর্পিতাকে জেতাবেন।”


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

অন্যদিকে এদিনের এই সভা থেকে রাজ্যের উন্নয়নের কথা তুলে ধরে বাম ও বিজেপিকে একযোগে কটাক্ষ করেন রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেন, “বামেরা 34 বছরে এই রাজ্যের মানুষকে শোষণ করে গিয়েছে। আমাদের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের রাজ্যে যে উন্নয়ন করেছেন তা আগামী 50 বছরে এসেও কোনো দল করতে পারবে না। তাই আপনাদের এবার ঠিক করতে হবে যে আপনারা উন্নয়ন চান না দুর্নীতি চান! দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে হলে বিজেপিকে ক্ষমতাচ্যুত করতেই হবে। তাই আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূলকে ভোট দিন।”

এদিকে বালুরঘাট লোকসভা কেন্দ্রের দলীয় প্রার্থী অর্পিতা ঘোষকে জেতাতে যখন সেখানে প্রচারে ব্যস্ত রাজ্যের হেভিওয়েট মন্ত্রী রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়, ঠিক তখনই আলিপুরদুয়ার লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী দশরথ তিরকের সমর্থনে কুমারগ্রাম ব্লকে দুটি জনসভা করেন রাজ্যের শ্রমমন্ত্রি মলয় ঘটক।

প্রথমে কুমারগ্রার চা বাগানে এবং পরে জয়ন্তী চা বাগানে দুটি জনসভা অনুষ্ঠিত হয়। আর এখানে মলয় ঘটকের সাথে উপস্থিত ছিলেন জেলা তৃণমূল সভাপতি মোহন শর্মা, জেলা পরিষদের সভাধিপতি তথা জেলা মহিলা তৃণমূল কংগ্রেসের সভানেত্রী শীলা দাস সরকার সহ অন্যান্যরা। সব মিলিয়ে এক দিকে বালুরঘাট লোকসভা কেন্দ্র আর অপরদিকে আলিপুরদুয়ার লোকসভা কেন্দ্র – উত্তরবঙ্গে হেভিওয়েট নেতা মন্ত্রীদের এনে জোর প্রচার শুরু করে দিল শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!