এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > আরও একবার আইনি জটিলতার মুখোমুখি প্রাক্তন বিজেপি নেতা, ত্রিমুখী সম্পর্কের জেরেই কি এই পরিণতি? জোর চর্চা

আরও একবার আইনি জটিলতার মুখোমুখি প্রাক্তন বিজেপি নেতা, ত্রিমুখী সম্পর্কের জেরেই কি এই পরিণতি? জোর চর্চা



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – রাজনৈতিক জগতে দীর্ঘদিন ধরে জলঘোলা চলছে রত্না চট্টোপাধ্যায়, শোভন চট্টোপাধ্যায়, বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়ের সম্পর্ক নিয়ে। কিছুদিন আগেই শোভন চট্টোপাধ্যায় এসএসকেএম হাসপাতালে ভর্তি থাকাকালীন এই ত্রয়ীর সম্পর্কের টানাপোড়েন সামনে আসে। আর এবার গতকাল বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় নিজের ফেসবুক প্রোফাইলের নাম এবং ছবি বদল করার পর আবার নতুন মোড়। এবার শোভন চট্টোপাধ্যায় জড়িয়ে পড়লেন আইনি জটিলতায়। জানা গিয়েছে, তাঁর বিরুদ্ধে উচ্ছেদের নোটিশ পাঠিয়েছেন তাঁরই শ্যালক শুভাশীষ দাস। প্রসঙ্গত, দীর্ঘদিন ধরেই গোলপার্ক মোড়ে একটি ফ্ল্যাটে শোভন চট্টোপাধ্যায় থাকেন।

জানা গিয়েছে, সেই ফ্ল্যাট খালি করার জন্য নোটিশ পাঠানো হয় তাঁর শ্যালকের পক্ষ থেকে। অভিযোগ করা হয়েছে, বেআইনীভাবে এই ফ্ল্যাটটি দীর্ঘদিন ধরে দখল করে সেখানে বসবাস করছেন শোভন চট্টোপাধ্যায়। প্রসঙ্গত গুঞ্জন শোনা যায়, এই ফ্ল্যাটে শোভন চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে রয়েছেন বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়ও। আর সেই সূত্রেই 7 দিনের মধ্যে এই ফ্ল্যাট খালি করে দেবার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এ প্রসঙ্গে শুভাশীস দাস ওরফে রত্না চট্টোপাধ্যায়ের ভাইয়ের দাবি, টেনেন্সি অ্যাক্ট অনুযায়ী কোনো চুক্তি ছিল না শোভন চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

আর তাই বেআইনিভাবে দখল করার অভিযোগ জারি করা হয়েছে। ফ্ল্যাট খালি না হলে শোভন চট্টোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে মামলাও যে হবে, তারও হুঁশিয়ারি দিয়েছেন শুভাশীসবাবু। অন্যদিকে নোটিশ পাওয়ার বিষয়টি ইতিমধ্যেই নিশ্চিত করেছেন শোভন চট্টোপাধ্যায়। তবে পাল্টা তিনি জানিয়েছেন, গোলপার্কের ফ্ল্যাটটিতে তিনি কোনমতেই বেআইনিভাবে থাকেন না। সেখানে থাকার যাবতীয় নথিপত্র তিনি নিজের কাছেই রেখেছেন। খুব স্বাভাবিকভাবেই প্রশ্ন উঠেছে, মঙ্গলবার রাতে বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় তাঁর ফেসবুক প্রোফাইলে ছবি পাল্টে দিয়ে করে দিয়েছেন শোভন এবং বৈশাখীর একসাথে যুগলের হাসিমুখ ছবি এবং নাম পাল্টে করে দিয়েছেন বৈশাখী শোভন বন্দ্যোপাধ্যায়।

খুব স্বাভাবিকভাবেই তারপরেই এই উচ্ছেদের নোটিশ, যা নতুন করে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। এই দুটি ঘটনার সঙ্গে মিল খোঁজার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে রাজনৈতিক মহলের অনেকেই। অন্যদিকে রত্না চট্টোপাধ্যায় এবং শোভন চট্টোপাধ্যায়ের মধ্যে কিন্তু এখনও বিবাহবিচ্ছেদ হয়নি, তা নিয়েও চলছে টানাপোড়েন। সব মিলিয়ে শোভন-বৈশাখী-রত্না এই তিন চরিত্র হঠাৎ করেই আলোড়ন ফেলে দিয়েছেন। আপাতত শোভন চট্টোপাধ্যায় এই আইনি জটিলতা কিভাবে সামাল দেন সেটাই দেখার।

আপনার মতামত জানান -

ট্যাগড
Top
error: Content is protected !!