এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > নতুন অবতারে অনুব্রত, হঠাৎ কি হলো ,জল্পনা রাজনৈতিকমহলে

নতুন অবতারে অনুব্রত, হঠাৎ কি হলো ,জল্পনা রাজনৈতিকমহলে



“এমএলএ-গিরি করলে চলবে না ।কাজ করতে হবে।”-সোমবার রামপুরহাটে দলের সভা থেকে এই ভাষাতেই হুঁশিয়ারি দেন অনুব্রত মন্ডল। পাশাপাশি দলীয় সভায় জেলার বাসিন্দাদের নিজের ফোন নম্বর দিয়ে তিনি বলেন, যেকোনো রকমের সমস্যা কিংবা অভিযোগ জানাতে সরাসরি যোগাযোগ করা যাবে তাঁর নিজস্ব নম্বরে।

অনুব্রত মণ্ডলের দলের বিধায়ক সহ অন্যান্য স্তরের নেতাদের হুঁশিয়ারি করার এই নতুন পদ্ধতি নিয়ে অবাক জেলার মানুষ থেকে রাজনৈতিক মহল। এরআগে দলীয় কর্মীদের উদ্দেশ্যে কিংবা বিরোধীদের উদ্দেশ্যে যখনই কোনো মন্ত্যব্য করেছেন রাজনৈতিক মহলে বিতর্কের সৃষ্টি হয়েছে। এদিনের দলীয় সভায় অনুব্রত-র বার্তা ছিল সম্পুর্ন অন্য ভঙ্গিতে ।এমনটাই মনে করছে রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকরা। এদিনের সভা থেকে তিনি দলের বিধায়ক সহ সকল স্তরের কর্মীদের উদ্দেশ্য বক্তব্য রাখেন । তিনি বলেন, দলের অঞ্চল সভাপতি ,বুথ সভাপতি সংগঠন বাড়াতে যেভাবে পরিশ্রম করেন ঠিক একই ভাবে কাজ করতে হবে বিধায়কদেরও। বিধায়ক বলে কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না । এর পাশাপাশি জেলা পর্যবেক্ষকদের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন । দলের বুথ সম্মেলনগুলিতে মহিলা কর্মীদের গড় অনুপস্থিতি নিয়েও উদ্বেগ প্রকাশ করেন।পাশাপাশি রাজ্যে আবাস যোজনা ঘিরে একাধিক দুর্নীতি নিয়েও জেলাবাসীকে সতর্ক করেন তিনি। আবাস যোজনায় দুর্নীতি আটকাতে টাকা দিতে বারণ করেন তৃনমূলের বীরভূম জেলা সভাপতি।
সব মিলিয়ে অনুব্রত মণ্ডলের এতা কি নতুন প্রচার পরিকল্পনা নাকি পূর্বের ঘটনা থেকে শিক্ষা নিয়ে নিজেকে সংযত করার চেষ্টা পরবর্তী দিনে তা দেখার ।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!