এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > মালদা-মুর্শিদাবাদ-বীরভূম > “মোদী যদি এখান থেকে আটখানা সিট পায়, আমি রাজনীতি করবো না, আমি রাজনীতি ছেড়ে দেব।” – দাবি করলেন অনুব্রত মণ্ডল

“মোদী যদি এখান থেকে আটখানা সিট পায়, আমি রাজনীতি করবো না, আমি রাজনীতি ছেড়ে দেব।” – দাবি করলেন অনুব্রত মণ্ডল



বঙ্গ রাজনীতিতে বরাবরই বিতর্কিত চরিত্র হিসেবে পরিচিত বীরভূম জেলা তৃণমূল সভাপতি তথা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রিয় অনুব্রত মণ্ডল ওরফে কেষ্ট। সম্প্রতি সকলকে নকুলদানা খাওয়ানোর দাওয়াই দিয়ে বিতর্কে জড়িয়ে পড়েছিলেন এই হেভিওয়েট নেতা। আর এবার রাজনীতি থেকেই সরে দাঁড়ানোর কথা শোনা গেল তার মুখে। আর খোদ অনুব্রত মন্ডলের মুখ থেকে এহেন কথা শুনে আশ্চর্য গোটা রাজনৈতিক মহল।


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

কেন “মমতা দিদি অন্তপ্রাণ” বলে পরিচিত সেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রিয় কেষ্ট হঠাৎ রাজনীতির অঙ্গন থেকে সরে দাঁড়ানোর কথা ঘোষণা করলেন! সূত্রের খবর, এদিন হাঁসনের নির্বাচনী জনসভা থেকে বিরোধীদের উদ্দেশ্যে কার্যত চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়ে অনুব্রত মণ্ডল বলেন, “আমাকে কেউ বা কারা বলছিল পশ্চিমবাংলা থেকে বিজেপি নাকি আটখানা সিট পাবে, মোদী যদি এখান থেকে আটটি সিট পায়, তাহলে আমি রাজনীতি করা ছেড়ে দেব। আর রাজনীতি করব না। সকলকে বলছি বাংলায় তৃণমূল কংগ্রেস 42 এর মধ্যে 42 টি আসনই দখল করবে।”

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, সম্প্রতি নিয়েলসেনের সমীক্ষায় রাজ্যে তৃণমূলের ভোটে কমা এবং বিজেপির উত্থানের ইঙ্গিত দেওয়া হয়। আর সেখানেই আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি এই রাজ্য থেকে 8 টি আসন পাবে বলে উল্লেখ করা হয়। আর এদিনের এই নির্বাচনী জনসভা থেকে সেই পরোক্ষে নাম না করে নিয়েলসেনের সমীক্ষাকেই কটাক্ষ করলেন অনুব্রত মণ্ডল বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা।


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

অন্যদিকে এদিনের সভায় থেকে নকুলদানা জলের পর বিরোধীদের লেবু জল খাওয়ানোর তত্ত্ব সামনে আনেন বীরভূম জেলা তৃণমূল সভাপতি। নাম করে বাম প্রার্থী রামচন্দ্র ডোমের উদ্দেশ্যে অনুব্রত মণ্ডল বলেন,”ওনার বয়স হচ্ছে। অসুস্থ হয়ে পড়ছেন। ওনাকে বোলপুর লোকসভার জন্য লেবু জল খাওয়াতে হবে। হোঁচট খেয়ে পড়ে গেলে তো ওনাকে আর পাওয়া যাবে না। তাহলে আবার ভোটটা পিছিয়ে যাবে। তাই ওনার সুস্থ থাকার জন্য লেবু জল খাওয়ানো দরকার।”

বিশেষজ্ঞদের মতে, এর আগে গুড় বাতাসা, চড়াম চড়াম ঢাক এবং নকুল দানা খাওয়ানোর কথা বললে বিরোধীরা অনুব্রত মণ্ডলের বক্তব্যের মধ্যে প্রচ্ছন্ন হুমকি রয়েছে বলে অভিযোগ তুলে নির্বাচন কমিশনের দ্বারস্থ হয়েছিল। এমনকি নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে এই ধরনের মন্তব্য থেকে তিনি যাতে বিরত থাকেন তার জন্যও শোকজ করা হয়েছিল বীরভূমের তৃণমূল নেতাকে।

কিন্তু এবার ফের নকুলদানার পর বিরোধী প্রার্থীর উদ্দেশ্যে লেবু জল খাওয়ানোর বার্তা দিয়ে বীরভূম জেলা তৃণমূল সভাপতি ঠিক কী ধরনের প্রচ্ছন্ন হুমকি দিলেন এবং অনুব্রত মণ্ডলের লেবু জল খাওয়ানোর পরিপেক্ষিতে বিরোধীরা আদৌ নির্বাচন কমিশনে যায় কিনা এখন তার দিকেই নজর সকলের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!