এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > অনুব্রতকে ‘অশিক্ষিত’ ও ‘অক্সিজেনের’ খোটা দিয়ে তীব্র প্রতিবাদ কবি মন্দাক্রান্তা সেনের

অনুব্রতকে ‘অশিক্ষিত’ ও ‘অক্সিজেনের’ খোটা দিয়ে তীব্র প্রতিবাদ কবি মন্দাক্রান্তা সেনের



প্রবীণ কবি শঙ্খ ঘোষকে মানহানীকর মন্তব্য করে আবার ও সংবাদ শিরোনামে বীরভূম জেলার তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি তথা বিধায়ক অনুব্রত মন্ডল। প্রসঙ্গত রাজ্যের বর্তমান পরিস্থিতি পঞ্চায়েত নির্বাচনকে কেন্দ্র করে রাজনৈতিক সন্ত্রাস , উত্তেজনা , এমনকি শাসক দলের প্রতিনিধিদের বিভিন্ন দাবি- দাওয়া প্রতিশ্রুতি কে বিষয় করে কবিতা লিখলেন বর্ষীয়ান কবি শঙ্খ ঘোষ। ‘মুক্ত গণতন্ত্র’ নামক কবিতায়  লেখা “রাস্তা জুড়ে খড়্গ হাতে দাঁড়িয়ে আছে উন্নয়ন।” এই লাইন কে কেন্দ্র করেই মূলত বিতর্কের সূত্রপাত হয়। এই কবিতার পালটা জবাবে একদা রাস্তায় উন্নয়ন দাঁড়িয়ে আছে দাবি করা অনুব্রত মন্ডল বললেন, “বড় বড় কথা বলছেন কবি? এ কোন কবি? আমরা তো কবি বলতে জানতাম রবীন্দ্রনাথ, নজরুল।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এ কোন নতুন কবি উঠে এসেছেন, যে আমার উন্নয়ন নিয়ে কথা বলছেন।” এখানেই না থেমে তিনি বলেছেন,”কবির নাম শঙ্খ রাখা ঠিক হয়নি, শঙ্খ নামের অপমান করেছেন উনি। এখনও বলছি, রাস্তায় উন্নয়ন দাঁড়িয়ে আছে।” এদিকে একজন খ্যাতনামা কবির মানহানী কে কেন্দ্র করে স্বাভাবিক ভাবেই উত্তাল হয়ে উঠেছে পশ্চিমবঙ্গের সংস্কৃতি মনস্ক মানুষ জন। সোস্যাল মিডিয়ায় তাঁরা নিজেদের মতন করে এদিনের ঘটনার প্রতিবাদ করছেন। প্রবীণ কবিকে অনুব্রত বাবুর এহেন অপমানের প্রতিবাদে কলম করলেন কবি মন্দক্রান্তা সেন। হতভাগ্য শিরোনামের কবিতায় নাম করেই অনুব্রত মন্ডল ওরফে কেষ্টাকে এক হাত দিলেন তিনি। মন্দাক্রান্তা সেনে’র কবিতায় উঠে এলো রাজ্যের বর্তমান পরিস্থিতি। তিনি লিখলেন,

কী হতভাগ্য দেশ হে আমার
কী উচ্ছন্ন রাজ্য
অশিক্ষিতেরা আকাশ ফাটায়
কবিকে করে না গ্রাহ্য

কবি আমাদের বিবেকের স্বর
ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা
অক্সিজেনের অভাবেই হায়
ভুল বকছেন কেষ্টা

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!