এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > দলিতদের ‘কুকুর’ বলে তীব্র বিতর্কে নরেন্দ্র মোদীর মন্ত্রীসভার সদস্য

দলিতদের ‘কুকুর’ বলে তীব্র বিতর্কে নরেন্দ্র মোদীর মন্ত্রীসভার সদস্য



দলিতদের ‘কুকুরের’ সঙ্গে তুলনা করে দেশজোড়া তীব্র বিতর্ক তৈরি করলেন নরেন্দ্র মোদী মন্ত্রিসভার অন্যতম গুরুত্ত্বপূর্ন সদস্য কেন্দ্রীয় দক্ষতা উন্নয়ন দফতরের মন্ত্রী অনন্তকুমার হেগড়ে। সূত্রের খবর, কর্নাটকের বল্লারিতে এক সরকারি অনুষ্ঠানে যোগ দিতে যাচ্ছিলেন তিনি। কিন্তু পথে তাঁর গাড়ি আটক করে শ্লোগান দিতে থাকে দলিত বিক্ষোভকারীরা, ফলে অনুষ্ঠানে পৌঁছাতে অনেক দেরি হয়ে যায় তাঁর। আর অনুষ্ঠানের মঞ্চে উঠেই তিনি তাঁর ক্ষোভ উগরে দেন। কর্মসংস্থানের স্বার্থে প্রার্থীদের কর্মকুশলতা বাড়াতে সরকার যে বিরাট ভাবে উদ্যোগী, সে সব বোঝানোর পরেই হঠাৎ করে তিনি বলে ওঠেন, কয়েকটা রাস্তার কুকুর ক্ষোভ জানাবেই, কিন্তু তাতে আমাদের আটকে গেলে চলবে না!

আর এরপরেই তীব্র ক্ষোভ দেখতে শুরু করে বিরোধীরা। বর্তমানে নরেন্দ্র মোদী ও বিজেপির অন্যতম সমালোচক বিখ্যাত কন্নড় অভিনেতা প্রকাশ রাজ বলেন, অনেক হয়েছে, মন্ত্রী বারবার অপরাধ করছেন, দলিতদের কুকুর বলছেন উনি। প্রসঙ্গত, কিছুদিন আগেই ‘ধর্মনিরপেক্ষ’ শব্দটি বাদ দিয়ে দিতে সংবিধান সংশোধনের জন্য সওয়াল করেছিলেন মন্ত্রী অনন্তকুমার হেগড়ে। তিনি মন্তব্য করেছিলেন, বিজেপি খুব তাড়াতাড়ি সংবিধান বদলে দিতে চলেছে, আর তাঁরা এ জন্যই ক্ষমতায় এসেছেন। স্বাভাবিকভাবেই সে সময় দেশজোড়া বিতর্কের ঝড় ওঠে। আর এবার দলিতদের সরাসরি ‘কুকুর’ বলায় আবারো দেশজোড়া বিতর্কের ঝড় উঠেছে। ইতিমধ্যেই বারবার বিতর্কে জড়ানোয় সংসদ থেকে হেগড়ের ইস্তফা
দাবি করেছেন কংগ্রেস নেতা গুলাম নবি আজাদ। অন্যদিকে, অনন্তকুমার হেগড়ে তাঁর কথার ব্যাখ্যা করে বলেছেন, দলিতদের বিরুদ্ধে কিছু বলিনি, সাধারণ ভাবে বুদ্ধিজীবীদের উদ্দেশেই ওই কথাগুলি বলেছিলাম, তবে কংগ্রেস আমার ভাবমূর্তি খারাপ করার চেষ্টা করে চলেছে। বিজেপির তরফে সরকারিভাবে এখনো কোনো প্রতিক্রিয়া এই নিয়ে পাওয়া যায় নি। তবে সূত্রের খবর, এই বিতর্কে তারা অনন্তকুমার হেগড়ের পাশে নেই।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!